"লিওনেল প্যালেরিট" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ইংল্যান্ড দলে অন্তর্ভূক্তি - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি
(সম্প্রসারণ)
(ইংল্যান্ড দলে অন্তর্ভূক্তি - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি)
 
১৮৯৭ সালে খুব কমসংখ্যক প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নেন পালাইরেট। মাত্র বারো খেলায় অংশ নিয়ে ৩০-এর কম গড়ে ৫৯৩ রান করেন। ১৮৯৫ থেকে ১৯০৬ সালের মধ্যে এটিই তাঁর সর্বনিম্ন গড় ছিল।<ref name="batbs"/> তাস্বত্ত্বেও সমারসেট কর্তৃপক্ষ তাঁর উপর বেশ আস্থা রেখেছিলেন। ১৮৯৭ সালে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে কাউন্টি দলটির ব্যাটিং গড়ে তিনি শীর্ষস্থানে আরোহণ করেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Events/0/County_Championship_1897/Somerset_Batting.html |title= Batting and Fielding for Somerset: County Championship 1897 |publisher=CricketArchive |accessdate=22 November 2012}}</ref> ১৮৯৮ সালে চারবারের মধ্যে তৃতীয়বার সহস্রাধিক প্রথম-শ্রেণীর রান তুলেন।<ref name="batbs"/> ব্রিস্টলে গ্লুচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে অপরাজিত ১৭৯ রানের মূল্যবান ইনিংস উপহার দেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5043.html |title=Gloucestershire v Somerset: County Championship 1898 |publisher=CricketArchive |accessdate=22 November 2012}}</ref> মৌসুমের শেষভাগে প্রথমবারের মতো সমারসেট দলকে নেতৃত্ব দিয়ে একই দলের বিপক্ষে দলকে ইনিংস ও ১৬৯ রানের জয় এনে দেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/cgi-bin/player_oracle_reveals_results2.cgi?playernumber=260&opponentmatch=exact&playername=R&resulttype=All&matchtype=FirstClass&teammatch=exact&startwicket=&homeawaytype=All&opponent=&endwicket=&wicketkeeper=&searchtype=InningsList&endscore=&playermatch=contains&branding=cricketarchive&captain=on&endseason=&startscore=&team=Somerset&startseason= |title=Player Oracle Reveals Results: LCH Palairet as captain in first-class matches where team is Somerset |publisher=CricketArchive |accessdate=22 November 2012}}</ref> স্কারবোরা উৎসবে দুই খেলায় অংশ নেন। তন্মধ্যে, জেন্টলম্যানের সদস্যরূপে প্লেয়ার্সের বিপক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেছিলেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5109.html |title=Gentlemen v Players: Other First-Class matches in England 1898 |publisher=CricketArchive |accessdate=22 November 2012}}</ref><ref name="batbo">{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Players/0/260/f_Batting_by_Opponent.html |title=First-class Batting and Fielding Against Each Opponent by Lionel Palairet |publisher=CricketArchive |accessdate=22 November 2012}}</ref> এছাড়াও, থর্নটনের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড একাদশের সদস্যরূপে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপাধারী দল ইয়র্কশায়ারের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত খেলায় অংশ নেন।
 
 
১৮৯৯ সালের পুরোটা সময় [[appendicitis|অ্যাপেন্ডিসাইটিসের]] কারণে খেলা থেকে দূরে অবস্থান করতে বাধ্য হন।<ref name="bailys"/><ref>Foot (1986), p. 69.</ref> তবে, বেইলিজ ম্যাগাজিন অব স্পোর্টস এন্ড পাসটাইমসে উল্লেখ করা হয় য, ঐ গ্রীষ্মে তিনি হয়তোবা ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার খেলায় অংশ নিতে পারতেন।<ref name="bailys"/> ১৯০০ সালে খেলার জগতে ফিরে আসেন। ৩৫.০৭ গড়ে ৯৪৭ রান তুলেন।<ref name="batbs"/> হ্যাম্পশায়ারের বিপক্ষে ১৬১ রানের একমাত্র সেঞ্চুরিটি করেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5511.html |title=Hampshire v Somerset: County Championship 1900 |publisher=CricketArchive |accessdate=24 November 2012}}</ref> এ সময় [[Charles Bernard (cricketer)|চার্লস বার্নার্ডের]] সাথে ২৬২ রানের জুটি গড়েন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Records/England/Firstclass/Somerset/Partnership_Records/Highest_Partnerships_Somerset_v_Hampshire.html |title=Highest Partnerships For Somerset Against Hampshire |publisher=CricketArchive |accessdate=24 November 2012}}</ref>
 
১৯০১ সালে দারুণ সময় অতিবাহিত করেন লিওনেল পালাইরেট। পরিসংখ্যানগতভাবে কেবলমাত্র ফ্রাই ও রণজিত সিংহের পরই জাতীয় ব্যাটিং গড়ে অবস্থান করেন।{{efn|name="1000runs"}} ইয়র্কশায়ারের বিপক্ষে মনোমুগ্ধকর ১৭৩ রানের ইনিংসটি সকলের মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে উপনীত হয়।<ref name="wisdenobit"/> ১৯০০ সালে ইয়র্কশায়ার কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপাধারী দল ছিল। খেলাটি হেডিংলি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় ও ১৯০১ সালে দলের একমাত্র পরাজয়ের স্বাদ আস্বাদন করে সমারসেটের কাছে।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5740.html |title=Yorkshire v Somerset: County Championship 1901 |publisher=CricketArchive |accessdate=28 December 2012}}</ref> সমারসেট প্রথম ইনিংসে ৮৭ রানে অল-আউট হয় ও ইয়র্কশায়ার ৩২৫ রান তুলে ২৩৮ রানে এগিয়ে যায়। প্রথম ইনিংসে পালাইরেট ও সতীর্থ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান [[লেন ব্রন্ড]] কোন রান তুলতে না পারলেও দ্বিতীয় ইনিংসে দুজনে ১৪০ মিনিট ব্যাটিং করে ২২২ রানের জুটি গড়েন। দুজনেই সেঞ্চুরি করেন। ১০৭ রানে ব্রন্ড ফিরে গেলেও পালাইরেট তাঁর ব্যাটিং কার্য চালিয়ে যান। এক পর্যায়ে ১৭৩ রান তুলে [[Caught|কট এন্ড বোল্ড]] হন। এরপর ফ্রাঙ্ক ফিলিপস ১২২ রান করে দলের তৃতীয় সেঞ্চুরি করেন। ৬৩০ রান করে সমারসেটের ইনিংস শেষ হয়। পরবর্তীতে ব্রন্ড ও [[Beaumont Cranfield|বিউমন্ট ক্রানফিল্ড]] উভয়ের চার উইকেট লাভের কল্যাণে ১১৩ রানে ইয়র্কশায়ার দল গুটিয়ে যায়। ফলশ্রুতিতে, সমারসেট ২৭৯ রানে জয় পায়।<ref>Green (1980), pp. 277–278.</ref> ইয়র্কশায়ারের অধিনায়ক লর্ড হক ঘোষণা করেন যে, খেলাটিতে পরাজয়বরণ করলেও আমার দেখা সেরা খেলাগুলোর এটি একটি।<ref>{{cite book |title=Cricket's Strangest Matches |last=Ward |first=Andrew |publisher=Robson Books |location=London |year=2005 |page=56 |isbn=978-1-86105-293-3}}</ref> একই বছর পালাইরেট ল্যাঙ্কাশায়ারের বিপক্ষে ১৮২ ও সাসেক্সের বিপক্ষে ১৯৪ রান তুলেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5711.html |title=Somerset v Lancashire: County Championship 1901 |publisher=CricketArchive |accessdate=25 November 2012}}</ref><ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5783.html |title=Somerset v Sussex: County Championship 1901 |publisher=CricketArchive |accessdate=25 November 2012}}</ref> ১৯০১ সালে সর্বমোট পাঁচ সেঞ্চুরি ও এগারোটি অর্ধ-শতক করেন। ৫৭.৭৫ গড়ে ১৯০৬ রান তুলেন যা তাঁর খেলোয়াড়ী জীবনে এক মৌসুমে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ছিল।<ref name="batbs"/>
 
== ইংল্যান্ড দলে অন্তর্ভূক্তি ==
১৯০২ সালের ইংরেজ গ্রীষ্ম মৌসুমটি বৃষ্টিতে ব্যাপকভাবে আক্রান্ত হয়। ফলশ্রুতিতে, ব্যাটিং করা বেশ দুষ্কর হয়ে দাড়িয়েছিল।<ref>Altham, Swanton (1938), p. 244.</ref> পুরো মৌসুম জুড়ে পালাইরেট কোন সেঞ্চুরির সন্ধান পাননি। তাস্বত্ত্বেও, সহস্রাধিক রান উঠানোয় সক্ষমতা দেখান। আবারও তিনি ইয়র্কশায়ারের পরাজয়ের প্রতীকী কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হন। [[Sir Home Gordon, 12th Baronet|স্যার হোম গর্ডন]] বৃষ্টি আক্রান্ত উইকেটে পালাইরেটের ২৫ ও ২৪ রানের পাশাপাশি উভয় ইনিংসে ব্রন্ডের দুই অঙ্কে স্পর্শের কথা তুলে ধরেন। উইজডেনের মতে, এ জুটির ব্যাটিং অবিশ্বাস্য ও সমারসেটের ৩৪ রানে জয়ে প্রভূতঃ ভূমিকা রাখে যা বছরে দলটির বিপক্ষে দ্বিতীয়বার জয় পায়। কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে সমারসেটই একমাত্র দল হিসেবে ইয়র্কশায়ারকে পরাজিত করেছিল।<ref>Green (1980), pp. 279–280.</ref>
 
১৯০২ সালে অস্ট্রেলিয়া দল ইংল্যান্ড সফরে আসে। সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরুর এক সপ্তাহ পূর্বে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলার জন্য মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে খেলার জন্য মনোনীত হন। ড্র হওয়া খেলায় তিনি ৩৯ ও ৪৪ রান তুলেন।<ref>{{cite web|url=https://cricketarchive.com/Archive/Scorecards/5/5915.html |title=Marylebone Cricket Club v Australians: Australia in British Isles 1902 |publisher=CricketArchive |accessdate=25 November 2012}}</ref> প্রথম তিন টেস্টে তাঁর খেলার সুযোগ হয়নি। পালাইরেটকে রণজিত সিংহ ও [[ফ্রেড টেট|ফ্রেড টেটকে]] ফ্রাই, [[জর্জ হার্স্ট]] ও গিলবার্ট জেসপের স্থলাভিষিক্ত করা হবে। উইজডেন খেলার প্রতিবেদনে উল্লেখ করে যে, ফ্রাইকে বাদ দেয়া যথোপযুক্ত সিদ্ধান্ত ছিল। কিন্তু হার্স্ট ও জেসপকে খেলানো হবে।<ref name="Green2932">Green (1980), pp. 29–32.</ref>
 
== পাদটীকা ==
৭২,২৩৭টি

সম্পাদনা