"কুরআন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

103.73.107.247-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে NahidSultanBot-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা
(103.73.107.247-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে NahidSultanBot-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত)
ট্যাগ: পূর্বাবস্থায় ফেরত পুনর্বহাল
 
== উৎপত্তি ==
[[আরবি ভাষা|আরবি ব্যাকরণে]] ''কুরআন'' শব্দটি মাসদার তথা [[ক্রিয়াবাচক বিশেষ্য]] হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এটি قرأ ''ক্বরা'আ'' [[ক্রিয়া পদ]] থেকে এসেছে যার অর্থ ''পাঠ করা'' বা ''আবৃত্তি করা''। এই ক্রিয়াপদটিকেই কুরআন নামের মূল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।<ref>BYU Studies, vol. 40, number 4, 2001. Page 52</ref> এই শব্দটির [[মিটার (সঙ্গীত)|.vমিটার]] ghbvবা "মাসদার" (الوزن) হচ্ছে غفران তথা "গুফরান"। এর অর্থ হচ্ছে অতিরিক্ত ভাব, অধ্যবসায় বা কর্ম সম্পাদনার মধ্যে একাগ্রতা। উদাহরণস্বরুপ, غفر নামক ক্রিয়ার অর্থ হচ্ছে "ক্ষমা করা"; কিন্তু এর আরেকটি মাসদার রয়েছে যার যা হলো غفران, এই মাসদারটি মূল অর্থের সাথে একত্রিত করলে দাঁড়ায় ক্ষমা করার কর্মে বিশেষ একাগ্রতা বা অতি তৎপর বা অতিরিক্ত ভাব। সেদিক থেকে কুরআন অর্থ কেবল পাঠ করা বা আবৃত্তি করা নয় বরং আরেকটি অর্থ হচ্ছে একাগ্র ভঙ্গীতে পাঠ বা আবৃত্তি করা। কুরআনের মধ্যেও এই অর্থেই কুরআন শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে। কুরআনের [[সূরা আল-কিয়ামাহ|সূরা আল-কিয়ামাহের]] (৭৫ নং সূরা) ১৮ নং আয়াতে এই শব্দটি উল্লেখিত আছে:
 
{{cquote|অতঃপর, আমি যখন তা পাঠ করি (ক্বুরা'নাহু), তখন আপনি সেই পাঠের (কুরআ'নাহ্‌) অনুসরণ করুন।<ref name="মাআরিফুল কুরআন">মাআরিফুল কুরআনের বাংলা অনুবাদ।</ref>}}<ref>{{cite quran|75|18|s=ns}}</ref>