"রিচি রবিনসন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

অবসর - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি
(ঘরোয়া ক্রিকেট - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি)
(অবসর - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি)
}}
 
'''রিচার্ড ড্যারিল রিচি রবিনসন''' ({{lang-en|Richie Robinson}}; [[জন্ম]]: [[৮ জুন]], [[১৯৪৬]]) ভিক্টোরিয়ার পূর্ব মেলবোর্নে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা সাবেক অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। [[অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল|অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের]] অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৭৭ সালে তিনটি [[টেস্ট ক্রিকেট|টেস্ট]] ও দুইটি [[একদিনের আন্তর্জাতিক|একদিনের আন্তর্জাতিকে]] অংশগ্রহণ করেছেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে [[ভিক্টোরিয়া ক্রিকেট দল|ভিক্টোরিয়ার]] প্রতিনিধিত্ব করেছেন তিনি।<ref>[http://www.cricketarchive.com/cgi-bin/ask_the_player_oracle.cgi CricketArchive Player Oracle, Retrieved 12 August, 2017]</ref> দলে তিনি মূলতঃ [[উইকেট-রক্ষক|উইকেট-রক্ষকের]] দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও ডানহাতে ব্যাটিং করতেন '''রিচি রবিনসন'''।
 
== ঘরোয়া ক্রিকেট ==
১৯৭১ থেকে ১৯৮২ সময়কালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট জীবন অতিবাহিত করেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর খেলায় ভিক্টোরিয়ার পক্ষে খেলেছেন। এছাড়াও দলের অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। মূলতঃ উইকেট-রক্ষক হিসেবে ক্রিকেট খেলায় অংশ নিয়েছেন।
 
== খেলোয়াড়ী জীবন ==
অবিস্মরণীয় ক্রিকেটার [[রড মার্শ|রড মার্শের]] পর তাঁকে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় সেরা উইকেট-রক্ষক হিসেবে বৈশ্বিকভাবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছিল। মার্শ যদি না খেলতেন তাহলে নিঃসন্দেহে তাঁর টেস্ট খেলার সংখ্যা বহুগুণে বৃদ্ধি পেতো। তবে, রাজ্য ক্রিকেটে উইকেট-রক্ষক ও ব্যাটসম্যানের যৌথ দায়িত্বে থাকলেও রবিনসন মাত্র তিন টেস্ট খেলেছেন মূলতঃ ব্যাটিংয়ে অভিজ্ঞ হিসেবে।
 
বিশ্ব সিরিজ ক্রিকেট অংশগ্রহণ করেছেন রিচি রবিনসন। [[World Series Cricket Cavaliers XI|ক্যাভেলিয়ার্সের]] পক্ষে উইকেট-রক্ষণে ছিলেন। ১৯৭৮-৭৯ মৌসুমে ক্যাভেলিয়ার কান্ট্রি সফরে থেকে ১৭ খেলায় অংশ নেন। ২২.৫০ গড়ে ৩১৫ রান তোলেন। এছাড়াও ৩১ ক্যাচ ও ৮ স্ট্যাম্পিংয়ের সাথে জড়িত ছিলেন তিনি।<ref>{{cite web|url=http://stats.cricinfo.com/ci/engine/records/averages/batting_bowling_by_team.html?id=3669;team=221;type=tournament|title=Cricinfo – Cavaliers Stats}}</ref>
 
== অবসর ==
[[প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট]] জীবন থেকে অবসর নেয়ার পর [[Queensland cricket team|কুইন্সল্যান্ড দলকে]] প্রশিক্ষণের দায়িত্ব নেন। এরপর নর্দার্ন টেরিটরির ডারউইনে ট্রেসি ভিলেজ ক্রিকেট ক্লাবের পক্ষে খেলেন। ১৯৯৩ সালে ডারউইন ডিস্ট্রিক্ট বর্ষসেরা পুরস্কারের মর্যাদায় ভূষিত হন তিনি।<ref name=ntnews>Morris, G. "Huge cash for short games is hurting Test matches", ''NT News'', 3 May 2013, p. 46.</ref> ২০১৩ সালে ট্রেসি ভিলেজের কোচ হিসেবে নিযুক্ত হন তিনি।
 
== তথ্যসূত্র ==
৭৭,২৬৮টি

সম্পাদনা