জলঙ্গী নদী: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(→‎তথ্যসূত্র: সম্প্রসারণ)
==নদীর প্রবাহ==
[[চিত্র:Nadia Rivers.jpg|thumb|জলঙ্গী নদীর প্রবাহ]]
জলঙ্গী নদী [[মুর্শিদাবাদ জেলা]]য় চর মধবোনার কাছে [[পদ্মা নদী]] থেকে উৎপত্তি লাভ করেছে। উৎস স্থল থেকে দক্ষিণে নদীটি প্রবাহিত হয়েছে। প্রবাহ পথে নদীটি ইসলামপুর, [[ডোমকল মহকুমা|ডোমকল]], [[তেহট্ট মহকুমা|তেহট্ট]], [[পলাশীপাড়া]], [[চাপড়া]] অতিক্রম করে [[কৃষ্ণনগর|কৃষ্ণনগরে]]<nowiki/>র কাছে এসে পশ্চিম দিকে বাঁক নিয়েছে। এর পর নদীটি পশ্চিমমুখী হয়ে [[মায়াপুর|মায়াপুরে]]<nowiki/>র কাছে সাহেবগঞ্জে [[গঙ্গা নদী]] বা [[ভাগীরথী নদী]]র সঙ্গে মিলিত হয়েছে। এই প্রবাহ পথের মোট দৈর্ঘ্য ২২০ কিলোমিটার। নদীটির প্রবাহ পথে প্রচুর [[নদী বাঁক]] ও অশ্বক্ষুরাকৃতি হ্রদ দেখা যায়। [[ভৈরব নদী]] এই নদীর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এবং এই নদীটিই জলঙ্গী নদীর বেশির ভাগ জলের যোগান দেয়। বর্ষার মরশুম ছাড়া গ্রীষ্মের মরশুমে নদীটির জল অস্বভাবিক ভাবে কমে যায়।<ref name=":0">{{cite news |title = জলঙ্গি , তোমার জল কোথায় | url=http://www.anandabazar.com/ | accessdate = ০৬-০৮-২০১৬ | newspaper = আনন্দবাজার পত্রিকা }}</ref>
 
==বর্তমান অবস্থা==
 
==শিল্পে সাহিত্যে জলঙ্গী==
[[সত্যজিৎ রায়|সত্যজিৎ রায়ে]]<nowiki/>র অপুর সংসার সিনেমার অনেকটা অংশই জলঙ্গীর পাড়ে তোলা।লাতো। [[জীবনানন্দ দাশেরদাশ|জীবনানন্দ]] শেশের কবিতা 'আবার আসিব আমি বাংলার নদী মাঠ ক্ষেত ভালবেসে, জলাঙ্গীর ঢেউয়ে ভেজা বাংলার এ সবুজ করুণ ডাঙ্গায়'। সাগর চট্টোপাধ্যায় ও নদীয়ার গনশিল্পী বাবলু হালদারের গান '''ও আমার জলঙগী নদী, তোর কোলে রইলাম আমি, জনম অবধি''<nowiki/>'।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|url=http://www.abahan.com/Kabita/jibananda1.htm|title=আবার আসিব ফিরে|last=জীবনানন্দ দাশ|first=|date=|website=|publisher=আবাহন|access-date=১৯.০২.১৭}}</ref>
 
==তথ্যসূত্র==