"ভৌগোলিক স্বীকৃতি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্প্রসারণ
(হালনাগাদ)
(সম্প্রসারণ)
ট্যাগ: ২০১৭ উৎস সম্পাদনা
{{বৌদ্ধিক সম্পত্তি}}
'''ভৌগোলিক স্বীকৃতি''' বা '''geographical indication''' ( সংক্ষেপে '''জি আই''') হচ্ছে কোনো সামগ্ৰীর ব্যবহার করা বিশেষ নাম বা চিহ্ন। এই নাম বা চিহ্ন নিৰ্দিষ্ট সামগ্ৰীর ভৌগোলিক অবস্থিতি বা মূল (যেমন: একটি দেশ, একটি অঞ্চল বা শহর) অনুসারে নিৰ্ধারণ করা হয়। ভৌগোলিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সামগ্ৰী নিৰ্দিষ্ট গুণগত মানদণ্ড বা নিৰ্দিষ্ট প্ৰস্তুত প্ৰণালী অথবা বিশেষত্ব নিশ্চিত করে। উদাহরণস্বরুপ, ভৌগোলিক স্বীকৃতিপ্ৰাপ্ত [[আসামের রেশম শিল্প|অসমের মুগা সূতা]]<ref name="MUGA">{{cite journal | url=http://ipindia.nic.in/girindia/journal/Journal_52.pdf | title=G.I. – APPLICATION NUMBER 384 | journal=GEOGRAPHICAL INDICATIONS JOURNAL GOVERNMENT OF INDIA | year=2013 | month=October | volume=52 | pages=28-38}}</ref><ref name="MUGAGI">{{ওয়েব উদ্ধৃতি | url=http://archive.indianexpress.com/news/assam-s-muga-silk-gets-gi-registration/212312/ | title=Assam’s muga silk gets GI registration | publisher=The Indian Express | date=24 August 2007 | accessdate=9 December 2015 | author=Samudra Gupta Kashyap}}</ref> চিহ্নই<ref name="MUGALOGO">{{ওয়েব উদ্ধৃতি | url=http://www.telegraphindia.com/1140428/jsp/northeast/story_18284649.jsp#.VmfcrEb01QM | title=Finally, muga gets GI logo | publisher=The Telegraph | date=28 April 2014 | accessdate=9 December 2015}}</ref> মুগা সূতায় নিৰ্মিত বস্ত্ৰ বা অন্যান্য সামগ্ৰীর গুণগত মানদণ্ড নিশ্চিতি প্ৰদান করে। ভৌগোলিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত বিভিন্ন সামগ্ৰী নিৰ্দিষ্ট অঞ্চলটিতে বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন করার অধিকার এবং আইনী সুরক্ষা প্ৰদান করে।
 
== ভারতের ভৌগোলিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সামগ্ৰী ==
* [[দার্জিলিং চা]]- ২০০৩ সালে দার্জিলিং চা ভারতের ভারতীয় পেটেন্ট অফিসের মাধ্যমে ভারতের প্রথম পণ্য হিসাবে ২০০৪ -২০০৫ সালে জিআই ট্যাগ লাভ করে।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|url=http://articles.timesofindia.indiatimes.com/2010-08-29/chennai/28312502_1_gi-tag-gi-registry-gi-protection|title=GI tag: TN trails Karnataka with 18 products|date=Aug 29, 2010|work=The Times of India}}</ref>
* [[রসগোল্লা]]- ২০১৭ সালে পশ্চিমবঙ্গ [[রসগোল্লা|রসগোল্লার]] জন্য [[ভৌগোলিক স্বীকৃতি]] পায়।
* [[নকশি কাঁথা]]- ২০০৮ সালে [[ভারত|ভারতের]] [[পশ্চিমবঙ্গ]] রাজ্য নকশি কাঁথার [[ভৌগোলিক স্বীকৃতি]] পায়।<ref>http://www.ttg-sric.iitkgp.ernet.in/GIDrive/images/gi/registered_GI_13June2016.pdf</ref>
 
== বাংলাদেশের ভৌগোলিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সামগ্ৰী ==
১৬৯টি

সম্পাদনা