"সেফালোস্পোরিন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

==ইতিহাস==
{{see also|Discovery and development of cephalosporins}}
সেফালোস্পোরিন যৌগটি ১৯৪৮ সালে ইতালীয় [[সার্দিনিয়া|সার্দিনিয়ার]] বিজ্ঞানী [[জোসেফ ব্রতজু]] নর্দমা থেকে প্রথম কালচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ''[[সেফালোস্পোরিয়াম আক্রেমোনিয়াম (Cephalosporium acremonium)]]'' নামের [[ছত্রাক]] থেকে আলাদা করেন।<ref>Podolsky, M. Lawrence ( ) ''Cures Out of Chaos: How Unexpected Discoveries Led to Breakthroughs in Medicine and Health'', Harwood Academic Publishers</ref> তিনি লক্ষ্য করেন এই কালচারগুলো যে উপাদান বা পদার্থ তৈরি করছে সেগুলো ''[[সালমোনেলা টাইফি (Salmonella typhi)]]'' নামের ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে ফলপ্রসূদায়কভাবে কাজ করছে, যা বিটা-ল্যাক্টামেজ (এনজাইম) সম্বলিত [[টাইফয়েড|টাইফয়েড জ্বরের]] কারণ। [[গাই নিউটন]] এবং [[Edward Abraham|এডওয়ার্ড আব্রাহাম]] [[অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়|অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের]] [[Sir William Dunn School of Pathology|স্যার উইলিয়াম স্কুল অব প্যাথলজি]]-তে [[cephalosporin C|সেফালোস্পোরিন সি]] পৃথক করেন। The cephalosporin nucleus, [[7-ACA|7-aminocephalosporanic acid]] (7-ACA), was derived from cephalosporin C and proved to be analogous to the penicillin nucleus [[6-APA|6-aminopenicillanic acid]] (6-APA), but it was not sufficiently potent for clinical use. Modification of the 7-ACA side chains resulted in the development of useful antibiotic agents, and the first agent, [[cefalotin]] (cephalothin), was launched by [[Eli Lilly and Company]] in 1964.
 
==তথ্যসূত্র==
৭১০টি

সম্পাদনা