"বিল কপসন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

টেস্ট ক্রিকেট - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি
(প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি)
(টেস্ট ক্রিকেট - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি)
১৯৩৭ সালে আরও বড় ধরনের আঘাতের কবলে পড়েন তিনি। তবে, ৮/১১ নিয়ে কাউন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে সেরা বোলিং করেন। তন্মধ্যে, ধারাবাহিকভাবে ছয় বলে পাঁচটি প্রথম-শ্রেণীর উইকেট পান। ওয়ারউইকশায়ারের বিপক্ষে ঐ পিচে অন্য কোন বোলার তাঁকে কোন সহযোগিতা করতে পারেননি। ব্যাটিং উপযোগী পিচে সাসেক্সের বিপক্ষে ৮/৬৪ পান। পরের বছর আবারো ১০৩ উইকেট পান। তাস্বত্ত্বেও [[কেন ফার্নেস|ফার্নেস]] ও [[Bill Bowes|বোসকে]] টেস্ট দলে অংশগ্রহণ করা থেকে বিরত রাখতে পারেননি।
 
== টেস্ট ক্রিকেট ==
ক্রিকেট সংবাদদাতা কলিন বেটম্যানের মতে, দীর্ঘ চুলের অধিকারী পেস বোলার হিসেবে কপসন খেলায় প্রাণের সূচনা নিয়ে অগ্রসর হতেন। তিনি দূর্ঘটনাবশতঃ ক্রিকেটে জড়িয়ে পড়েন।
অবশেষে ১৯৩৯ সালে টেস্ট খেলার সুযোগ হয় তাঁর। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে লর্ডসে তাঁর অভিষেক হয়। ২৪ জুন, ১৯৩৯ তারিখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হওয়া কপসন নিরাশ করেননি। নিখুঁত পিচে নয় উইকেট পান। তন্মধ্যে প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট পেয়েছিলেন।<ref name="espncricinfo">{{Cite web|url=http://www.espncricinfo.com/ci/engine/match/62658.html |title=1st Test: England v West Indies at Lord's, Jun 24-27, 1939 |accessdate=2011-12-13 |work=espncricinfo}}</ref> ঐ বছর তিনি ১৪৬ উইকেট পান। তবে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণে নিয়মিত টেস্ট বোলার হতে পারেননি।
 
১৯৪৬ সালের মধ্যে পেসে সক্ষমতা হারান। অন্যদের তুলনায় সোজা বোলিং করলেও যুদ্ধের পূর্বেকার বছরগুলোর ন্যায় কার্যকর ছিল না। ১৯৪৭ সালে আরও একটি টেস্টে অংশ নেন; তবে কোন সফলতা পাননি। ১৯৪৯ সালে ৪১ বছর বয়সে অবসর গ্রহণ করেন।
২৪ জুন, ১৯৩৯ তারিখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে বিল কপসন।
 
কপসন ডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম বোলার হিসেবে খেলতেন। ১৮.৯৬ গড়ে ১,০৯৪টি প্রথম-শ্রেণীর উইকেট পেয়েছেন। ব্যক্তিগত সেরা বোলিংশৈলী ছিল ৮/১১। টেস্ট ১৫ উইকেট লাভ করেন। ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে ২৭৯টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় ৩৫৯ ইনিংসে অংশ নিয়েছেন। ৬.৮১ গড়ে রান তুলেন। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান ছিল ৪৩।<ref>[http://www.cricketarchive.co.uk/Archive/Players/0/725/725.html Bill Copson at Cricket Archive]</ref>
 
ক্রিকেট সংবাদদাতা কলিন বেটম্যানের মতে, দীর্ঘ চুলের অধিকারী পেস বোলার হিসেবে কপসন খেলায় প্রাণের সূচনা নিয়ে অগ্রসর হতেন। তিনি দূর্ঘটনাবশতঃ ক্রিকেটে জড়িয়ে পড়েন।
 
৬৩ বছর বয়সে ১৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৭১ তারিখে ডার্বিশায়ারের ক্লে ক্রস এলাকায় তাঁর দেহাবসান ঘটে।
৭০,৫৩১টি

সম্পাদনা