"আগাছা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(বিষয়শ্রেণী:ক্ষতিকর উদ্ভিদ যোগ হটক্যাটের মাধ্যমে)
'''আগাছা''' হচ্ছে অবাঞ্চিত, সমস্যা সৃষ্টিকারী বা অনিষ্টকরঅনিষ্টকারী উদ্ভিদ যা বপন বা লাগানো ছাড়াই অতিমাত্রায় নিজে থেকে জন্মে।<ref>https://nhd.gov.bd/mobile/amp/content/আগাছা_দমনের_সাধারণ_কিছু_বিষয়</ref> আগাছা সাধারণত প্রতিযোগী ও অদম্য স্বভাবের এবং অধিক বংশবিস্তারে সক্ষম। এদের জীবনচক্র স্বল্প মেয়াদের। তবে আগাছা নগন্য উদ্ভিদ হলেও এর কোন কোনটি ভেষজগুণসম্পন্ন হয়ে থাকে। <ref>http://archive.prothom-alo.com/detail/news/12840</ref>
 
==বৈশিষ্ট্য ==
আগাছাকে সরুপাতা বা প্রশস্ত পাতাবিশিষ্ট হিসেবে উল্লেখ করা হয়। এটা এদের সাধারণ বৈশিষ্ট্য। বিভিন্ন ধরনের ঘাস অত্যন্ত সাধারণ সরু পাতাবিশিষ্ট আগাছা যা একবীজপত্রীর অন্তর্ভুক্ত। প্রশস্ত পাতাবিশিষ্ট আগাছা অত্যন্ত বৈচিত্র্যপূর্ণ যা দ্বিবীজপত্রীভুক্ত। আগাছা জলজ, স্থলজ, আরোহী ও উভচর ইত্যাদি শ্রেণির হয়ে থাকে। প্রায় সকল আগাছাই স্বভোজী তবে কিছু পরজীবী আগাছাও রয়েছে। নির্দিষ্ট সময় ও ক্ষেত্রবিশেষে আগাছাকে সাধারণভাবে অবাঞ্চিত হিসেবে বিবেচনা করা হলেও এগুলি ঔষধ, শাকসবজি, পশুখাদ্য ও জ্বালানি হিসেবে এবং জমির জৈব পদার্থ আবর্তনে ব্যবহৃত হতে পারে। বাংলাদেশে আবাদকৃত জমির আগাছা হিসেবে প্রায় ৩৫০ প্রজাতির উল্লেখ পাওয়া গেছে। একটি স্থানের প্রজাতির সংখ্যা ভূমির ব্যবহারের ধরন ও এর বাস্তসংস্থানিক অবস্থার ওপর নির্ভরশীল।
৩০,৬০৯টি

সম্পাদনা