"ব্যবহারকারী আলাপ:সাহিদি সারোয়ার" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎ইসলামকে জানুন!: নতুন অনুচ্ছেদ
 
(→‎ইসলামকে জানুন!: নতুন অনুচ্ছেদ)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
[[উইকিপিডিয়া:অভ্যর্থনা কমিটি|বাংলা উইকিপিডিয়া অভ্যর্থনা কমিটি]], ১৭:৪৩, ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ (ইউটিসি)
|}
 
== ইসলামকে জানুন! ==
 
একটু পড়ুন!
বর্তমান সময়ে সবার ইনবক্সে একটি মেসেজের ছড়াছড়ি আর সেই মেসেজটার বিবরন হচ্ছে;
"ভাইরা আপনার পায়ে ধরি প্রথমে এই পোস্টটি পড়েন,
তারপর নাহয় খারাপ পোস্টগুলো পড়েন!""""
 
মদিনা শরীফের শায়েখ (নাকি) স্বপ্নযোগে হুজুর সাঃ কে দেখেছেন,হুযুর সাঃ (নাকি) সেই শায়েখকে বলেছেন ৭০০০ লোক মারা গেলো এক বছরের মধ্যে কিন্তু ঈমাণদার ছিলেন না একজনও!
স্ত্রীরা স্বামীর কথা শোনেনা,মানুষ নামাজ পড়ে না,সুদ খায়,খারাপ পথে চলে আরো অনেক কিছু।এবং কেয়ামত সন্নিকটে তাই সবাইকে ভালো হবার উপদেশ দেন!
ব্যাস এর পর সেই মেসেজটি সবাইকে পাঠানোর সংকেত দেন মেসেজ সেন্ডারেরা।
এবং পূর্ণ ঈমাণের সহিত,
নচেৎ নাকি আজাব ও গজব আসতে পারে,
একজনের নাকি ছেলেও মারা গেছে অবিশ্বাস করার কারনে আর আরেকজন নাকি অনেক টাকা পেয়েছে মেসেজটি পাঠানোর ফলে।
এবার আসুন আমার মতে মেসেজটির সারমর্ম কি বলে!
♣প্রথমত যেই ভদ্রলোকেরা এই মেসেজগুলো পাঠাচ্ছেন তাদের দিকে তাকালে একটা জিনিস দেখবেন তারা অধিকাংশই নামাজ কালাম কায়েম করেন না,
স্রেফ নিজের নাম ও ক্রেডিট কামাইতে এসমস্ত মেসেজ পাঠাচ্ছে,
 
♣২য়’ত তিনি শুরুতেই বলেছেন প্রথমে এই মেসেজটি পড়ুন তারপর নাহয় খারাপ পোস্টগুলো পড়ুন!____
তারমানে আপনি আমি খারাপ পোস্ট পড়ি,
ঠিক না বেঠিক?
 
♣৩য়’ত তিনি মেসেজটি জোর করে বিশ্বাস করতে বলতেছেন,
এবং একপ্রকার স্নায়ুচাপ দিতেছে মেসেজটি সবাইকে পাঠাতে।
 
♣৪র্থ’ত মেসেজের মধ্যে লাভ ও লোকসানের স্বার্থ সুকৌশলে ঢুকানো আছে,আর জনসাধারণ মানুষ সেই কুচক্রী ফেৎনাবাজদের সেই কুচক্র বুঝতে না পেরে নিজেকে খাটি মুসলমান মনে করে গর্বে বুক ফুলিয়ে এবং মনের মধ্যে একপ্রকার প্রশান্তি অনুভব করে যাকে তাকেই পাঠাচ্ছে এই মেসেজটি,একজন আরেকজনকে,আরেকজন অন্যজনকে,৩য় ব্যক্তি ৪র্থ জনকে এভাবে সবাই সবাইকে,
এমনও দেখা যাচ্ছে একদিনেই প্রায় সেই একই মেসেজ কমসে কম ২০-২৫ টা আসতেছে।
 
আরো অনেক আইটেমের মেসেজ দেয় ভদ্রলোকেরা,
যেমন আল্লাহর ৭টি নাম।
আমিন না লিখে যাবেন না,আরো অনেক বিরক্তিকর টেক্সট।
আসলে এগুলো হচ্ছে মানুষকে বিভ্রান্ত করা ও ঈমাণের উপর আঘাত হানার বিধর্মী ইহুদিদের এক অভিনব কায়দা ও কৌশল।
আজ আপনি কাদের ফলো করছেন?
কার মতবাদে নিজেদের পরিচালিত করছেন?
 
সময় থাকতে নিজে সচেতন হউন ও অন্যকেও এ বিষয়ে অবহিত করুন!
পাছে আবার এই সমস্ত মেসেজ আপনার পাপের কারন না হয়!
বিঃদ্র:[আমি তাওহীদ ও ইসলামের দাওয়াতের বিরোধিতা করিনা,তবে দাওয়াত তো ভালোভাবেও দেওয়া যায়,বানোয়াট কাহিনি করার দরকার কি?
আর ইসলাম ও কুরআন হেফাজত তো আল্লাহ নিজেই করবেন,শুধু আমাদের সৎ ও সত্যভাবে প্রচার করতে হবে!]
♣•••••••••••••••••••••••••••••••••••
মোঃ রাব্বি সাহিদি সারোয়ার হোসেন।
Sahidesarwar@yahoo.com
৮টি

সম্পাদনা