"প্রফুল্ল চন্দ্র রায়" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

Rishav Roychowdhury-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে 103.88.24.10-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফে...
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা দৃশ্যমান সম্পাদনা
(Rishav Roychowdhury-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে 103.88.24.10-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফে...)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
বাঙালী {{Infobox scientist
| title =
| name = আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায়
| birth_name = প্রফুল্ল চন্দ্র রায়
| birth_date = আগষ্ট ২, ১৮৬১
| birth_place = [[রাডুলী]]রারুলী, [[খুলনা]], [[বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি]] (বর্তমান [[বাংলাদেশ]]) [[ব্রিটিশ রাজ]]
| death_date = জুন ১৬, ১৯৪৪
| death_place = [[কলকাতা]] ,নিজ বাসভবন
| nationality = [[ব্রিটিশ ভারতীয়]]
| alma_mater = [[বিদ্যাসাগর কলেজ|মেট্রোপলিটান ইনস্টিটিউশন]]<br/>[[প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়, কলকাতা|প্রেসিডেন্সি কলেজ]] <br/> [[এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়]]
}}
 
'''প্রফুল্ল চন্দ্র রায়''', যিনি '''পি সি রায়''' নামেও পরিচিত ([[আগস্ট ২]], [[১৮৬১]] - [[জুন ১৬]], [[১৯৪৪]]) একজন প্রখ্যাত [[বাঙালি]] রসায়নবিদ, বিজ্ঞানশিক্ষক, দার্শনিক, কবি। তিনি [[বেঙ্গল কেমিকাল|বেঙ্গল কেমিকালের]] প্রতিষ্ঠাতা এবং [[মার্কিউরাস নাইট্রাইট]] [[HgNO2|(HgNO2)]] -এর আবিষ্কারক। দেশী শিল্পায়ন উদ্যোক্তা। তাঁর জন্ম অবিভক্ত বাংলার [[খুলনা জেলা]]য় (বর্তমানে বাংলাদেশের অন্তর্গত)। তিনি [[জগদীশ চন্দ্র বসু|বৈজ্ঞানিক জগদীশ চন্দ্র বসুর]] সহকর্মী ছিলেন।
 
== জন্ম ও বাল্যকাল ==
পি সি রায় [[বাংলাদেশ|বাংলাদেশের]] [[খুলনা জেলা|খুলনা জেলার]] [[পাইকগাছা উপজেলা|পাইকগাছা উপজেলার]] রাডুলি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি মা ভূবনমোহিনী দেবী এবং পিতার হরিশচন্দ্র রায়েররাযয়ের পুত্র। হরিশচন্দ্র রায় স্থানীয় জমিদার ছিলেন। বনেদি পরিবারের সন্তান প্রফুল্লচন্দ্র ছেলেবেলা থেকেই সব বিষয়ে অত্যন্ত তুখোড় এবং প্রত্যুৎপন্নমতি ছিলেন।
 
তার পড়াশোনা শুরু হয় বাবার প্রতিষ্ঠিত এম ই স্কুলে। [[১৮৭২]] খ্রিস্টাব্দে তিনি [[কলকাতা|কলকাতার]] [[হেয়ার স্কুল|হেয়ার স্কুলে]] ভর্তি হন, কিন্তু কঠিন [[রক্ত আমাশায়]] রোগের কারণে তার পড়ালেখায় ব্যাপক বিঘ্নের সৃষ্টি হয়। বাধ্য হয়ে তিনি নিজ গ্রামে ফিরে যান। গ্রামে থাকার এই সময়টা তার জীবনে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনে সাহায্য করেছে। বাবার গ্রন্থাগারে প্রচুর বই পান তিনি এবং বইপাঠ তার জ্ঞানমানসের বিকাশসাধনে প্রভূত সহযোগিতা করে।
 
== শিক্ষাজীবন ==
== অবদান ==
* নিজের বাসভবনে দেশীয় [[ভেষজ]] নিয়ে গবেষণার মাধ্যমে তিনি তার গবেষণাকর্ম আরম্ভ করেন। তার এই গবেষণাস্থল থেকেই পরবর্তীকালে [[বেঙ্গল কেমিক্যাল কারখানা|বেঙ্গল কেমিক্যাল কারখানার]] সৃষ্টি হয় যা ভারতবর্ষের শিলপায়নে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। তাই বলা যায় বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে ভারতীয় উপমহাদেশের শিল্পায়নে তার ভূমিকা অনস্বীকার্য।
* [[১৮৯৫]] খ্রিস্টাব্দে তিনি [[মারকিউরাস নাইট্রাইট]] [[(HgNO<sub>2</sub>]]) আবিষ্কার করেন যা বিশ্বব্যাপী আলোড়নের সৃষ্টি করে। এটি তার অন্যতম প্রধান আবিষ্কার। তিনি তার সমগ্র জীবনে মোট ১২টি যৌগিক [[লবণ]] এবং ৫টি [[থায়োএস্টার]] আবিষ্কার করেন।
* সমবায়ের পুরোধা স্যার পিসি রায় ১৯০৯ খ্রিস্টাব্দে নিজ জন্মভূমিতে একটি কো-অপারেটিভ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯০৩ খ্রিস্টাব্দে বিজ্ঞানী পিসি রায় পিতার নামে আরকেবিকে হরিশ্চন্দ্র স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন।
 
 
== ব্যক্তি হিসেবে আচার্য ==
 
'''এককথায়'''
 
ছাএদের খুব ভালোবাসতেন। সহজ জীবনযাপন করতে চেয়েছিলেন।এককথায় খুব সহজসরল মানুষ ছিলেন।
 
=== দেশপ্রেম ===
আচার্য দেবের দেশপ্রেম তাকে ইউরোপে থেকে ফিরিয়ে এনেছিল। দেশে এসেও তিনি তার সেই স্বদেশপ্রীতির পরিচয় দিয়েছেন। তিনি ক্লাসে বাংলায় লেকচার দিতেন। বাংলা ভাষা তার অস্তিত্বের সাথে মিশে ছিল। তার বাচনভঙ্গী ছিল অসাধারণ যার দ্বারা তিনি ছাত্রদের মন জয় করে নিতেন খুব সহজেই। তিনি সকল ক্ষেত্রেই ছিলেন উদারপন্থী।