ওয়াই-ফাই: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(বিষয়শ্রেণী:ওয়াই ফাই অপসারণ; বিষয়শ্রেণী:ওয়াই-ফাই যোগ হটক্যাটের মাধ্যমে)
 
== ইতিহাস ==
[[ইউ এস]] ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন কর্তৃক রেডিও বর্ণালির কিছু ব্যান্ড উন্মুক্ত করার মাধ্যমে ওয়াই ফাই প্রযুক্তির যাত্রা শুরু হয় ১৯৮৫ সালে।<ref>[http://www.britannica.com/EBchecked/topic/1473553/Wi-Fi তারহীন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ]</ref> ১৯৯১ সালে এন সি আর কর্পোরেশন/এ টি এন্ড টি নিউওয়েজিন, নরওয়েতে ওয়াই ফাই/৮০২.১১ এর পূর্ব লক্ষণ আবিষ্কার করেন। প্রাথমিকভাবে আবিষ্কারক কোষাধ্যক্ষ-ব্যবস্থার জন্য এই প্রযুক্তি আবিষ্কার করেন। তাদের প্রথম প্রযুক্তি দ্রব্য হল [[ওয়েভ ল্যান]] যার তথ্য স্থানান্তর ক্ষমতা ছিল ১ মেগা বিট/সেকেন্ড এবং ২ মেগা বিট/সেকেন্ড। [[ভিক হেয়েস]] প্রাথমিক ৮০২.১১বি এবং ৮০২.১১এ আদর্শ নকশাকারীদের মধ্যে একজন, তিনি ওয়াই ফাই এর জনক নামে পরিচিত এবং তিনি ১০ বসর আই ই ই ই ৮০২.১১ এর প্রধান ছিলেন।
 
1985 সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেলিকম নিয়ন্ত্রক ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন (বিসিসি) কর্তৃক বেনামে বর্ণমালার কয়েকটি ব্যান্ড খোলার জন্য অনুমতি দেয় যা ওয়াই-ফাই নামে পরিচিত । যেখানে সরকারি লাইসেন্সের প্রয়োজন ছাড়াই ব্যবহার করতে অনুমতি দেয়া হয়েছিল । ঐ সময় এই পদক্ষেপ সম্পর্কে খুব কম লোকই জানত ; এছাড়া হ্যাম-রেডিও চ্যানেলটি ছিল লাইসেন্সহীন একটি বর্ণালী। কিন্তু এফসিসির কর্মচারী, মাইকেল মার্কাস ছিল স্বপ্নদর্শী প্রকৌশলী যিনি শিল্প, বৈজ্ঞানিক ও চিকিৎসা ব্যান্ড থেকে তিন ভাগের এক ভাগ স্পেকট্রাম গ্রহণ করেন এবং যোগাযোগ উদ্যোক্তাদের কাছে তাদেরকে ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছিলেন।
১৯৯২ সালে কমনওয়েলথ সায়েন্টিফিক এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ অরগানাইজেশন ([[সি এস আই আর ও]]) তারহীন তথ্য স্থানান্তরের জন্য [[কৃতিত্ব]] লাভ করে অস্ট্রেলিয়াতে। ১৯৯৬ সালে একই বিষয়ে ইউ এস এ তারা কৃতিত্ব লাভ করে। ওয়াই ফাই ওই কৃতিত্বর গাণিতিক সূত্রসমূহ ব্যবহার করে। ২০০৯ সালের এপ্রিলে,[[ইন্টেল]], [[মাইক্রোসফট]], [[এইচপি]], [[ডেল]] সহ ১৪ টি প্রযুক্তি ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এই কৃতিস্বত্ব ব্যবহার করার জন্য সি এস আই আর ও কে ২৫০ মিলিয়ন ইউ এস ডলার প্রদান করতে সম্মত হয়। <ref>[http://www.theage.com.au/technology/enterprise/csiro-to-reap-lazy-billion-from-worlds-biggest-tech-companies-20100601-wsu2.html সি এস আই আর ও পৃথিবীর সেরা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান থকে ব্যাপক অর্থ পাচ্ছে]</ref><ref>[http://www.smh.com.au/technology/sci-tech/how-australias-top-scientist-earned-millions-from-wifi-20091207-kep4.html যেভাবে অস্ট্রেলিয়ার সেরা বিজ্ঞানীরা ওয়াই ফাই থেকে অর্থ পেল]</ref>
 
900MHz, 2.4GHz এবং 5.8GHz এ তথাকথিত "আবর্জনা ব্যান্ড", ইতিমধ্যেই ডিভাইসের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছিল যা যোগাযোগের পরিবর্তে অন্য কোন উদ্দেশ্যে রেডিও-ফ্রিকোয়েন্সি শক্তি সহজেই ব্যবহার করতে সক্ষম: উদাহরণস্বরূপ, মাইক্রোওয়েভ ওভেন এর কথা বলা যায় যা খাদ্যের তাপ উৎপাদনের জন্য রেডিও তরঙ্গ ব্যবহার করা হয়। এফসিসি যোগাযোগের উদ্দেশ্যেও ব্যান্ডগুলি সহজলভ্য করে দিয়েছে, এই ব্যান্ডগুলির সাহায্যে যেকোনো ডিভাইস রেডিও তরঙ্গ ব্যাবহার করা যেতে পারে। তারা "স্প্রেড স্পেকট্রাম" প্রযুক্তিটি ব্যবহার করেছিল, যা মূলত সামরিক ব্যবহারের জন্য উন্নত করা হয়েছিল, যা একটি একক ও সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞায়িত ফ্রিকোয়েন্সি প্রেরণ করার মাধ্যমে সাধারণ পদ্ধতির বিপরীতে ফ্রিকোয়েন্সির বিস্তৃত পরিসরে একটি রেডিও সংকেত ছড়িয়ে দেয়। এই সংকেতটি ইন্টারসেপ্টের জন্য কঠিন কিন্তু ইন্টারফেয়ারেন্স জন্য কম সহজ করে তোলে।
 
যদিও ১৯৮৫ সালের দিকে স্বপ্নদর্শী বিষয় বলে মনে হয়েছিল অনেকের কাছে, তাই ঐ সময় বিশেষ কিছুই ঘটেনি। চূড়ান্তভাবে ওয়াই ফাই প্রযুক্তিকে শিল্প ক্ষেত্রে ব্যবহার উপযোগী করে তৈরি করা হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে, লোকাল-এ্যারিয়া নেটওয়ার্ক (ল্যান), যেমন প্রক্সিম এবং সিম্বল তাদের নিজস্ব মালিকানাধীন সরঞ্জামগুলি তৈরি করে যা অপ্রচলিত ব্যান্ডগুলিতে পরিচালিত হতে পারবে কিন্তু এক বিক্রেতার সরঞ্জাম থেকে অন্য কোনও সরঞ্জামে কথা বলতে পারবেনা। ইথারনেটের সাফল্যের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে , যেমন- ওয়্যারলাইন-নেটওয়ার্কিং এর মানের কথা উল্লেখ করা যেতে পারে, বেশ কয়েকটি বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান তাকে পসিটিভলি নিয়েছিল । ক্রেতাদের যদি কোনও বিশেষ বিক্রেতার পণ্যগুলির মধ্যে সীমাবদ্ধ না করে রাখা হয় তবে প্রযুক্তি গ্রহণের সম্ভাবনা অনেক বেশি হারে বেড়ে যাবে।
 
১৯৮৮ সালে, এনসিআর কর্পোরেশন, যা লাইসেন্স বিহীন স্পেকট্রাম ব্যবহার করতে চেয়েছিল বেতার ক্যাশ নিবন্ধকদেরকে হুক আপ করে রাখার জন্য। প্রকৌশলী ভিক্টর হ্যয়েসকে এর প্রারম্ভিক শুরু করার জন্য জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল। মিঃ হেইস, Bruce Tuch of Bell Labs এর সাথে সাথে ইনস্টিটিউট অফ ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার্স (IEEE) -এর কাছে এসেছিলেন, যেখানে একটি কমিটি ইথারনেট 80২.3 স্পীডকে মানসম্মত বলে সংজ্ঞায়িত করেছিল। মিঃ হেইসকে চেয়ারম্যান করে একটি নতুন কমিটি প্রতিষ্ঠিত হয় যার স্পীড নির্ধারণ করা হয়েছিল 802.11 , এবং নতুন করে আলোচনা চলতে থাকে।
 
বিভক্ত বাজার বলতে বোঝিয়ে ছিল যে বিভিন্ন বিক্রেতাদের মধ্যে এর সংজ্ঞা নিয়ে সম্মতি জানাতে একটু সময় লেগেছিল এবং কমিটির ৭৫% সদস্যের সম্মতির ভিত্তিতে গ্রহণযোগ্য একটি মানদণ্ডের জন্য রূপরেখা করা হয়েছিল। অবশেষে, 1997 সালে, কমিটি একটি মৌলিক স্পেসিফিকেশনে সম্মত হয়েছিল । এটি দুটি স্প্রীড স্পেকট্রাম প্রযুক্তি, ফ্রিকোয়েন্সি হপিং বা সরাসরি সিকোয়েন্স ট্রান্সমিশন ব্যবহার করে প্রতি সেকেন্ডে দুই মেগাবাইটের ডাটা-ট্রান্সফারের জন্য অনুমোদন দেয়া হয়েছিল। (প্রথম রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি মধ্যে জাম্পিং দ্বারা অন্য সংকেত থেকে হস্তক্ষেপ এড়ানো, দ্বিতীয় ফ্রিকোয়েন্সি বিস্তৃত ব্যান্ড উপর সংকেত আউট ছড়িয়ে।)
 
নতুন মান 1997 সালে প্রকাশিত হয়েছিল, এবং ইঞ্জিনিয়াররা অবিলম্বে প্রোটোটাইপ সরঞ্জামের সাথে কাজ করার জন্য নতুন উদ্যমে কাজ শুরু করেছিল। দুই প্রকার ব্যান্ড ১) 80২.11 বি নামক (যা 2.4GHz ব্যান্ডে কাজ করে) এবং ২) 80২.11 এ (যা 5.8 গিগাহার্জ ব্যান্ডে কাজ করে) যথাক্রমে ডিসেম্বর ১৯৯৯ এবং জানুয়ারি ২০০০ সালে অনুমোদন করা হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে 802.11 বি কে Richard van Nee of Lucent এবং Mark Webster of Intersil দ্বারা উন্নত করা হয়েছিল (তারপর হ্যারিস সেমিকন্ডাক্টর)।
 
কোম্পানিগুলো 802.11 বি- এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ ডিভাইসগুলি নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিল। কিন্তু স্পেসিফিকেশনটি এত দীর্ঘ এবং জটিল ছিল যে - এটি প্রায় ৪০০ পৃষ্ঠা পূরণ করেছে। সামঞ্জস্য সংক্রান্ত জটিলতাগুলি তখনও বিদ্যমান ছিল। অতএব আগস্ট ১৯৯৯ সালে, ছয় কোম্পানি-ইনটারসিল, 3 কম, নকিয়া, এয়ারনেট (সিএসও দ্বারা কেনা), Symbol and Lucent (যার ফলে এজ্রে সিস্টেম তৈরির উপাদান বিভাগটি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল) সম্মিলিতভাবে ওয়্যারলেস ইথারনেট কম্প্যাটিবিলিটি অ্যালায়েন্স WECA) তৈরি করেছিল। সম্পাদনা মোঃ শাহাদাত হোসেন
 
== ব্যবহার ==
বেনামী ব্যবহারকারী