মাটি: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন (আমেরিকান --> মার্কিন বা মার্কিনী)
সম্পাদনা সারাংশ নেই
(সংশোধন (আমেরিকান --> মার্কিন বা মার্কিনী))
 
== প্রকারভেদ ==
বিভিন্নভাবে মৃত্তিকাবিজ্ঞানীরা মাটির প্রকারভেদ করেছেন। তন্মধ্যে - বেলে, এঁটেল, দো-আঁশ এবং পলিমাটি অন্যতম । বিভিন্ন ধরনের মাটির মধ্যে সম্পর্ক বুঝতে এবং কোনো বিশেষ কাজে মাটির উপযোগিতা যাচাই করার জন্য মাটির বিভিন্ন রকমের শ্রেণীবিভাগ করা হয়েছে । পূর্বে এইরকম একটি ধারণা ছিল যে, মাটি তৈরির উপকরণ এবং কারণগুলি-ই মাটিকে কোনো একটি নির্দিষ্ট বহির্গঠন দান করে । এই ধারণা অনুযায়ী বানানো প্রথম দিককার শ্রেনীবিভাগ গুলির মধ্যে ১৮৮৮ খ্রীস্টাব্দে রাশিয়ান বৈজ্ঞানিক [[Dokuchaev]] (দকুচেভ)-এরটি উল্লেখযোগ্য । পরবর্তী কালে অনেক আমেরিকানমার্কিন এবং ইউরোপীয়ানইউরোপীয় গবেষক এটিকে উন্নত করে ১৯৬০ খ্রীস্টাব্দ নাগাদ একটি গ্রহনযোগ্য শ্রেণীবিভাগ তৈরী করেন । এই ষাটের দশকে একটি অন্য ধরনের শ্রেণীবিভাগ তৈরী হয়, যেখানে মাটি তৈরির উপকরণ ও কারণের থেকে মাটির বহির্গঠনের উপর বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে । পরবর্তীকালে এটি-ও ধীরে ধীরে উন্নত হচ্ছে ।World Reference Base for Soil Resources (WRB)<ref>{{cite web | last =IUSS Working Group WRB | first = | authorlink = | coauthors = | title = World Reference Base for soil resources - A framework for international classification, correlation and communication | work = | publisher = FAO | month = | year =2007 | url = http://www.fao.org/ag/agl/agll/wrb/doc/wrb2007_corr.pdf | format = | doi = | accessdate =}}</ref> নামের সংস্থাটি মাটির আন্তর্জাতিক শ্রেণীবিভাগের কাজে বাপৃত।
 
== তথ্যসূত্র ==
৫৭,৬০৮টি

সম্পাদনা