"নলিনীবালা দেবী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎সাহিত্যিক অবদান: সংশোধন, replaced: সম্পূর্ন → সম্পূর্ণ
(বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন)
(→‎সাহিত্যিক অবদান: সংশোধন, replaced: সম্পূর্ন → সম্পূর্ণ)
১৯০৯ সনে মাত্র ১১ বৎসর বয়সে [[শিবসাগর|শিবসাগরের]] জীবেশ্বর চাংকাকতী নামক ব্যক্তির সহিত তাঁর বিবাহ হয়। কিন্তু তাঁর ২১ বৎসর বয়সে স্বামীর অকাল মৃত্যু হয় ফলে তিনি নিজ পিতৃগৃহে ফিরে আসেন। <ref name="আসামীছ অনলাইন"/>
==সাহিত্যিক অবদান==
স্বামীর অকাল মৃত্যুর পর তিনি পাঁচটি সন্তান নিয়ে অশেষ কষ্টে দিনযাপন করেছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেই তাঁর দুই পুত্রের অকাল মৃত্যু হয়। স্বামী ও দুই পুত্রের অকাল মৃত্যুর বেদনায় জর্জরিত হয়ে তিনি নিজেকে সম্পূর্নসম্পূর্ণ রুপে ঈশ্বরকে অর্পন করেন। সেই সময়ে তিনি [[বেদ]], [[গীতা]], [[উপনিষদ]] ও [[ভাগবত]] অধ্যয়নে মনোনিবেশ করেন। শৈশবে অঙ্কুরিত সুপ্ত প্রতিভা সেই সময়ে জাগ্রত হয়। বিবাহের পর শ্বশুর তাঁকে একটি স্বর্ন কলম উপহার দেন। পরবর্তী সময়ে তিনি কলমটির মান রাখেন। পিতার উপদেশ ও অনুপ্রেরনা তাঁকে জীবন যুদ্ধে জয়ী হতে সাহায্য করেছিল। মাত্র দশ বৎসর বয়দে পিতা নামক কবিতার মাধ্যমে কবি জীবনে প্রবেশ করেন।<ref name="আসামীছ অনলাইন"/>
[[চিত্র:Nalini bala devi.JPG|thumb|200px|right|গুৱাহাটীৰ পল্টনবজাৰৰ শ্বহীদ উদ্যানত পদ্মশ্ৰী নলিনী বালা দেৱীৰ আবক্ষ মূৰ্তি।]]
 
২,৪৯৫টি

সম্পাদনা