"আনোয়ার হোসেন (ছাত্র নেতা)" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: দৃশ্যমান সম্পাদনা মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: দৃশ্যমান সম্পাদনা মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
 
== জেল জীবন ==
১৯৪৯ সালে কমিউনিস্ট আন্দোলনে যোগ দদিয়ে ঢাকা জেলে যযান। কম বয়েসের ককারনে চছাড়া পপেলেও পপরের ববছর আআবার গ্রেপ্তার হয়ে ররাজসাহী জেলে পপ্রেরিত হহন তরুন আনোয়ার। এসময় জেলের ভেতরেই মার্ক্সবাদী সসাহিত্য, গগোর্কির ললেখা পপড়েন। ববাংলা ও বিশ্বসাহিত্য ভাল দখল ছিল ততার।গান রচনা ককরতে পপারতেন। ব্যাঙ্গাত্বক গান লিখে জেলে কর্মচারী ও ডাক্তারদের দুর্ব্যবহার এর প্রতিবাদ করেছেন। জেলবন্দী কমিউনিস্ট নেতা কর্মীদদের সাতগে উপযুক্ত রাজবন্দী মর্যাদা ভাল খাবারের দাবীতে অনশনে অংশগ্রহণ করেন।<ref>{{বই উদ্ধৃতি|title=সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান|last=প্রথম খন্ড|first=সুবোধচন্দ্র সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু|publisher=সাহিত্য সংসদ|year=২০০২|isbn=81-85626-65-0|location=কলকাতা|pages=৪৫}}</ref>
 
== মৃত্যু ==
১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজসাহী সেন্ট্রাল জেলে আটজন ররাজবন্দী কে কনডেমড সেলে ববা ফাঁসির আআসামীর ননির্জন লসেলে আটকে ররাখলে তীব্র ববিক্ষোভে সসামিল হলে তাদের কুখ্যাত খাপরা ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। জেলার বিলের নির্দেশে বাইরে থেকে নির্মমভাবে গুলি চালায় কারারক্ষী রা। এর ফলে শহীদ হন তরুন সাম্যবাদী কর্মী আনোয়ার। তার সাথে শহোদ হন শ্রমিক নেতা [[বিজন সেন]], সুধীন ধর, হানিফ সেখ, দিলওয়ার হোসেন, তেভাগা আন্দোলনের নেতা কম্পরাম সিং, ছাত্র সংগঠক সুখেন ভট্টাচার্য।
 
== তথ্যসূত্র ==