"স্বীকারোক্তি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বানান
(ইং টার্ম)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা দৃশ্যমান সম্পাদনা
(বানান)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা দৃশ্যমান সম্পাদনা
'''স্বীকারোক্তি''' (Confession) হল যে কোনো সময় দেওয়া এমন একধরনের স্বীকৃতি (Admission) বা ববক্তব্যবক্তব্য যার মমাধ্যমেমাধ্যমে অভিযুক্ত ব্যক্তি ননিজেরনিজের অপরাধ কবুল ককরে।করে। [[ভারতীয় সাক্ষ্য আইন|ভারতীয় সাক্ষ্য আইনে]] (Indian Evidence Act) স্বীকারোক্তির সংজ্ঞা না দেওয়া থাকলেথাকলেও ব্যাখ্যা দেওয়া আছে। এই আ
 
আইনেরএই আইন (ধারা নং ২৪ - ৩০) অনুযায়ী স্বীকারোক্তি ফৌজদারী মামলায় একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ ও সংবেদনশীল বিষয়রূপে চিহ্নিত।
 
== প্রকারভেদ ==
১) [[ফৌজদারী আদালত]] বা ম্যাজিস্ট্রেটের সম্মুখে দদেওয়াদেওয়া সস্বীকারোক্তিস্বীকারোক্তি (Judicial confession)
 
২) ম্যাজিস্ট্রেট বা আআদালতেরআদালতের সসম্মুখেসম্মুখে চছাড়াছাড়া অঅন্যঅন্য কোথাও দেওয়া সস্বীকারোক্তিস্বীকারোক্তি ( Extra judicial confession)
 
== প্রাসঙ্গিক ধারা ==
সাক্ষ্য আইনের ২৪ নং ধারা : প্রলোভন, হুমকি, প্রতিশ্রুতি দিয়ে আদায় করা স্বীকারোক্তি আদালতের ককাছেকাছে অঅপ্রাসঙ্গিকঅপ্রাসঙ্গিক হবে যযাদিযদি আফালতআদালত মমনেমনে ককরেনকরেন তা দ্বারা স্বীকারকারী বব্যক্তিব্যক্তি ককোনোকোনো সুবিধা পপাবেপাবে ববাবা খারাপ ককিছুকিছু এড়াতে পপারবে।পারবে।
 
সাক্ষ্য আআইনেরআইনের ২৫ নং ধারা : পুলিশের কাছে প্রদেয় স্বীকারোক্তি অভিযুক্তের ববিরুদ্ধেবিরুদ্ধে পপ্রমানপ্রমান হহিসেবেহিসেবে আআনাআনা যাবেনা।
 
সাক্ষ্য আআইনেরআইনের ২৬ নং ধারা : পুলিশের হেফাজতে তথাকাথাকা বব্যক্তিরব্যক্তির স্বীকারোক্তি প্রমান হিসেবে আনা যাবেনা, যদিনা তা একজন ম্যাজিস্ট্রেট এরম্যাজিস্ট্রেটের সাক্ষাতে দেওয়া হয়।
 
== তথ্যসূত্র ==