প্রধান মেনু খুলুন

পরিবর্তনসমূহ

সম্প্রসারণ, তথ্যসূত্র যোগ/সংশোধন
২৮ মার্চ [[কে এম সফিউল্লাহ]] এর নেতৃত্বে ২য় ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এর কর্মকর্তারা যাদের অবস্থান ছিল রাজধানী ঢাকা সংলগ্ন জয়দেবপুর ক্যান্টনমেন্ট, অন্যান্য সৈন্যদল এবং বাকি ক্যান্টনমেন্ট বিদ্রোহ ঘোষনা করে। প্রাথমিকভাবে মেজর [[কাজী মুহাম্মদ সফিউল্লাহ|সফিউল্লাহ]] সেক্টর-৩ এর অধিনায়ক হিসেবে নির্বাচিত হন.<ref name="at war">{{বই উদ্ধৃতি|title=বাংলাদেশ অ্যাট ওয়ার|last=সফিউল্লাহ|first=কে এম|publisher=[[আগামী প্রকাশনী]]|year=২০০৫| isbn=9844013224|page=২১১|author-link=কে এম সফিউল্লাহ|orig-year=১৯৮৯}}</ref>
 
== সুত্রপাত ==
স্বাধীনতাযুদ্ধের দীর্ঘায়নের সম্ভাবনা বিবেচনায় এনে [[১৯৭১ সালের অস্থায়ী বাংলাদেশ সরকার|বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকার]] বিপক্ষের অস্ত্র সংগ্রামের প্রতিরোধ এর জন্যে নিয়মিত সামরিক বাহিনী নিয়ন্ত্রণের সিদ্ধান্ত নেয়।
 
পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সরকারের নির্দেশে [[মহম্মদ আতাউল গণি ওসমানী|কর্নেল আতাউল গনি ওসমানী]] তিনটি ব্রিগেড আকারের ফোর্স গঠন করেন। যেগুলোর নামকরণ করা হয় তাদের অধিনায়কদের নামের অদ্যাংশ দিয়ে। যা এস ফোর্স, কে ফোর্স, জেড ফোর্স নামে পরিচিত। <ref name="ডেইলি স্টার" />
 
সরকারের নির্দেশনা অনুসারে, মেজর [[খালেদ মোশাররফ]] সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে গঠন করেন '''[[কে ফোর্স (বাংলাদেশ)|কে ফোর্স]]''' এবং মেজর [[জিয়াউর রহমান]] '''[[জেড ফোর্স]]''' এবং মেজর [[কাজী মুহাম্মদ সফিউল্লাহ|কে এম শফিউল্লাহ]] গঠন করেন '''এস ফোর্স'''।
 
এস ফোর্স এর ব্রিগেড সদর দপ্তর ছিল হেজামারা।<ref name="ডেইলি স্টার">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|title=সেক্টর এন্ড আর্মড ফোরসেস অব লিবারেশন ওয়ার|url=http://archive.thedailystar.net/campus/2008/03/04/feature_sectors.htm|accessdate=12 জানুয়ারি 2017|publisher=দ্যা ডেইলি স্টার|language=ইংরেজি}}</ref>
== গঠন ==