লূত (ইসলাম): সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সাধারণ সম্পাদনা
সম্পাদনা সারাংশ নেই
(সাধারণ সম্পাদনা)
}}
{{Islamic prophets|Prophets in the Quran}}
'''লুত ইবনে হারুন (আঃ)''' ( {{lang-ar-at|a=لوط|t=Lūṭ}} ), পরিচিতযিনি '''[[Lotসচরাচর হযরত লুত (biblicalআঃ) person)|লুতনামে অভিহিত, [[বাইবেল]]''' হলেন এবং [[কোরান|কুরআনে]] উল্লেখিত আল্লাহ প্রেরিত একজন নবী,পয়গম্বর যাকে [[সদোম ও গোমোরাহ]] নামক শহরদ্বয়ের অধিবাসীদের নবী হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছিল।<ref>{{cite quran|26|161|s=ns}}</ref><ref>{{cite book |last= Wheeler |first= Brannon M. |title= Prophets in the Quran: an introduction to the Quran and Muslim exegesis |url= http://books.google.com/books?id=qIDZIep-GIQC&pg=PA8#v=snippet&q=%2225+prophets+mentioned+by+name%22&f=false |series= Comparative Islamic studies |publisher= Continuum International Publishing Group |year=2002 |isbn= 978-0-8264-4957-3 |page= 8}}</ref> তিনি ছিলেন নবী [[ইব্রাহীম|ইব্রাহীমের]] আপন ভাতিজা।<ref name="referenceC">{{cite book |last1=Noegel |first1=Scott B. |last2=Wheeler |first2=Brannon M. |authorlink= |title=Lot |encyclopedia=The A to Z of Prophets in Islam and Judaism |url=https://books.google.com/books?id=Lo9jAavEHdIC&pg=PA118#v=onepage&q=Lot%20stones%20clay&f=false |accessdate=26 June 2013 |year=2010 |publisher=Rowman & Littlefield Publishers, Incorporated |location= |isbn=0810876035 |pages=118–126}}</ref> ইব্রাহীমের সঙ্গে তিনি কেনানে চলে আসেন। সেখানেই তার উপর নবুয়াতের দায়িত্ব অবতীর্ণ হয়। <ref>Hasan, Masudul. ''History of Islam''.</ref>[[কুরআন|পবিত্র কুরআনে]] বর্ণিত ২৫ জন নবীর মধ্যে ইসলামের একজন নবী যাকে [[সমকামিতা]]য় লিপ্ত থাকা স্বীয় জাতির সতর্ককারী হিসেবে আল্লাহ তাআলা নিয়োজিত করেছিলেন|করেছিলেন। সমকামিতা ত্যাগ না করায় তারা আল্লাহর আযাবে সমূলে ধ্বংস হয়েছিলো|হয়েছিলো।
 
== কুরআনের বর্ণনানুসারে লূত(আঃ) এবং তার সম্প্রদায়ের কাহিনী ==
পবিত্র কুরআনে ১৫,২৬,২৯ এবং ৬৬ নম্বর [[সূরা|সূরাসমূহের]] বিভিন্ন অংশে লূত(আঃ) এর কাহিনী বর্ননা করেন| লূত(আঃ) এর জাতি পার্থিব উন্নতির চরম উৎকর্ষে পৌছে যাওয়ার কারণে বিলাসিতার অতিশয্যে সীমালঙ্ঘনের দিক দিয়ে তাদের পূর্বের গযবপ্রাপ্ত জাতিগুলোকেও ছাড়িয়ে গিয়েছিল| লূত(আঃ) এর জাতি [[ব্যভিচার]] ও [[অজাচার]] তো করতোই, তার উপর সমকামিতার মত চরম সীমালঙ্ঘনও তারাই প্রথম শুরু করে, যা তাদের পূর্বে কেউ কখনো করে নি; উপরন্তু, তারা এর ফলে বিন্দুমাত্র অনুতপ্ত না হয়ে গর্বভরে তা সমাজে প্রকাশ করে বেড়াত এবং প্রকাশ্যে ও নির্লজ্জভাবে এসব নিষিদ্ধ কাজগুলো করত| আল্লাহ তাআলা তাই লূত(আঃ)কে তার জাতির জন্যে সতর্ককারী নবী মনোনীত করলেন এবং আল্লাহকে ভয় করে তাদের এসব কাজ থেকে বিরত থাকতে বলার নির্দেশ দিলেন| লুত(আঃ) দীর্ঘ সময় ধরে সতর্ক করার পরও যখন তাদের পরিবর্তন হল না তখন আল্লাহ তাআলা চুড়ান্ত বিপর্যয়ের মাধ্যমে সমগ্র এলাকা উলটিয়ে দেন, আকাশ থেকে একাধারে বৃষ্টি ও পাথর বর্ষণ করে সমগ্র জাতিকে সমুলে নিশ্চিহ্ন করে দেন। বর্ণিত আছে, বর্তমান [[মৃত সাগর]] বা ডেড সি হল লুত (আঃ) এর জাতির সেই বাসস্থান যেখানে তাদের ধ্বংস করা হয়েছিলো| বাইবেলেও লুতের বর্ণনা পাওয়া যায়। যদিও বাইবেলের বর্ণনা ইসলামে পুরোপুরি গ্রহন করা হয়নি।
 
== কুরআনের বর্ণনানুসারে লূতলুত(আঃ) এবং তার সম্প্রদায়ের কাহিনী ==
পবিত্র কুরআনে ১৫,২৬,২৯ এবং ৬৬ নম্বর [[সূরা|সূরাসমূহের]] বিভিন্ন অংশে লূতলুত (আঃ) এর কাহিনী বর্ননা করেন| লূতলুত (আঃ) এর জাতি পার্থিব উন্নতির চরম উৎকর্ষে পৌছে যাওয়ার কারণে বিলাসিতার অতিশয্যে সীমালঙ্ঘনের দিক দিয়ে তাদের পূর্বের গযবপ্রাপ্ত জাতিগুলোকেও ছাড়িয়ে গিয়েছিল|গিয়েছিল। লুত লূত(আঃ) এর জাতি [[ব্যভিচার]] ও [[অজাচার]] তো করতোই, তার উপর সমকামিতার মত চরম সীমালঙ্ঘনও তারাই প্রথম শুরু করে, যা তাদের পূর্বে কেউ কখনো করে নি; উপরন্তু, তারা এর ফলে বিন্দুমাত্র অনুতপ্ত না হয়ে গর্বভরেগর্ব ভরে তা সমাজে প্রকাশ করে বেড়াত এবং প্রকাশ্যে ও নির্লজ্জভাবে এসব নিষিদ্ধ কাজগুলো করত| আল্লাহআল্লাহতাআলা তাআলাতাই তাইলুত লূত(আঃ)কে তার জাতির জন্যে সতর্ককারী নবী মনোনীত করলেন এবং আল্লাহকে ভয় করে তাদের এসব কাজ থেকে বিরত থাকতে বলার নির্দেশ দিলেন|দিলেন। লুত(আঃ) দীর্ঘ সময় ধরে সতর্ক করার পরও যখন তাদের পরিবর্তন হল না তখন আল্লাহ তাআলা চুড়ান্ত বিপর্যয়ের মাধ্যমে সমগ্র এলাকা উলটিয়ে দেন, আকাশ থেকে একাধারে বৃষ্টি ও পাথর বর্ষণ করে সমগ্র জাতিকে সমুলে নিশ্চিহ্ন করে দেন। বর্ণিত আছে, বর্তমান [[মৃত সাগর]] বা ডেড সি হল লুত (আঃ) এর জাতির সেই বাসস্থান যেখানে তাদের ধ্বংস করা হয়েছিলো| বাইবেলেও লুতের বর্ণনা পাওয়া যায়। যদিও বাইবেলের বর্ণনা ইসলামে পুরোপুরি গ্রহন করা হয়নি।হয়েছিলো।
=== লুত (আঃ)-এর স্ত্রী‘র অবস্থা ===
=== বাইবেল-এর বর্ণনানুসারে লূত(আঃ)-এর কাহিনী ===
বাইবেলেও লুতের (আঃ) কাহিনী পাওয়া যায়।<ref>[https://www.biblegateway.com/passage/?search=Genesis+19%3A4-9&version=KJV Genesis 19:4-9-King James Version (KJV)]</ref> তবে জেনেসিস, ১৯ অধ্যায় (আয়াত ৪ - ৯) এর অতিরিক্ত কিছু কাহিনী (তাঁর কন্যাদের সংশ্লিষ্ট) নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্রের (অর্থাৎ বাইবেলের তথা জেনেসিসের নির্ভেজাল সংস্করণ) অভাবে বিতর্কিত হয়ে আছে। তাই লভ্য বাইবেলের (জেনেসিস, ১৯ অধ্যায়) বর্ণনা ইসলামে সর্বাংশে গ্রহণ করা হয়নি।
==তথ্যসূত্র==
{{Reflist|colwidth=30em}}
== বহিঃসংযোগ ==
*[http://www.at-tahreek.com/nobider_kahini/7.html ডঃ আসাদুল্লাহ আল-গালিবের নবীদের কাহিনী বইয়ে লুত(আঃ) এর কাহিনী]
*[https://www.biblegateway.com/passage/?search=Genesis+19%3A4-9&version=KJV জেনেসিস-এ বিবৃত কাহিনী]
 
{{তথ্যছক-কুরআনে উল্লেখিত পয়গম্বরবৃন্দ}}