"ইথানল" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন
ট্যাগ: মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা
(বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন)
| OtherCpds = [[মিথানল]], [[প্রপানল]]}}
}}
'''ইথানল''', যা '''ইথাইল অ্যালকোহল''' নামেও পরিচিত, এক প্রকারের [[অ্যালকোহল]]। এটি দাহ্য, স্বাদবিহীন, বর্ণহীন, সামান্য বিষাক্ত ও বিশিষ্ট গন্ধযুক্তগণ্ধযুক্ত, এবং অধিকাংশ মদ এর প্রধান উপাদান। এতে ৯৯% বিশুদ্ধ অ্যালকোহল থাকে। এটি জৈব সংশ্লেষণে ব্যবহৃত হয়। এর রাসায়নিক সংকেত হল CH<sub>3</sub>-CH<sub>2</sub>-OH, বা [[কার্বন|C]]<sub>2</sub>[[হাইড্রোজেন|H]]<sub>6</sub>[[অক্সিজেন|O]], বা EtOH, C<sub>2</sub>H<sub>5</sub>OH বা C<sub>2</sub>H<sub>6</sub>O।
==রাসায়নিক সংকেত==
ইথানল দুই কার্বন বিশিষ্ট এলকোহল। এর রাসায়নিক সংকেত হচ্ছে:
CH<sub>3</sub>CH<sub>2</sub>OH । CH<sub>3</sub>–CH<sub>2</sub>–OH দ্বারা বোঝায় একটি [[মিথাইল মূলক]] (CH<sub>3</sub>–) একটি [[মিথিলিন মূলক]] (–CH<sub>2</sub>–) এর সাথে যুক্ত হয়ে হাইড্রোক্সিল মূলকের অক্সিজেন অনুরঅণুর সাথে একক বন্ধন দ্বারা যুক্ত। এটা ডাইমিথাইল ইথারের একটি সমানু। রসায়ন শাস্ত্রে অনেক সময় ইথানলকে সংক্ষেপে '''EtOH''' লেখা হয়। '''Et''' দ্বারা ইথাইল গ্রুপকে বোঝানো হয়।
 
==ইথানল নামকরণ==
রসায়নের নামকরণের আন্তর্জাতিক সংস্থা IUPAC এর নিয়ম অনুসারেঅণুসারে ইথানলের নামকরণ করা হয়েছে। ইথানলের অনুতেঅণুতে দুটি কার্বন থাকায় পুর্বপদে ইথ এবং হাইড্রোক্সিল মূলকের উপস্থিতির কারণে পরপদে অল ব্যবহার করা হয়েছে |
 
১৮৩৪ সালে জার্মান রসায়নবিদ
জাস্টাস ফন লিয়েবেগ প্রথম ইথাইল শব্দটি ব্যবহার করেন।<ref>Liebig, Justus (1834) [http://babel.hathitrust.org/cgi/pt?id=uva.x002457887;view=1up;seq=13 "Ueber die Constitution des Aethers und seiner Verbindungen"] (On the constitution of ether and its compounds), ''Annalen der Pharmacie'', '''9''' : 1–39. From page 18: "''Bezeichnen wir die Kohlenwasserstoffverbindung 4C + 10H als das Radikal des Aethers mit E<sub>2</sub> und nennen es Ethyl'', …" (Let us designate the hydrocarbon compound 4C + 10H as the radical of ether with E<sub>2</sub> and name it ethyl …).</ref>
 
ইথাইল শব্দটি ফরাসি শব্দ ইথার এবং গ্রীকগ্রিক শব্দ হাইল সমন্বয়ে গঠিত। ফরাসি ভাষায় ইথার বলতে সেই পদার্থকে বোঝায় যা কক্ষ তাপমাত্রায় বাষ্পীভূত হয় এবং গ্রীকগ্রিক ভাষায় হাইল অর্থ বস্তু বা পদার্থ।<ref>{{OEtymD|ethyl}}</ref>
 
১৮৯২ সালে জেনেভা, সুইজারল্যান্ডে অনুষ্ঠিতরাসায়নিকঅণুষ্ঠিতরাসায়নিক নামকরনের আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ইথানল নামটি সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়।<ref>For a report on the 1892 International Conference on Chemical Nomenclature, see:
* {{cite journal|author=Armstrong, Henry |year=1892|url=http://books.google.com/books?id=LHkCAAAAIAAJ&pg=PA56 |title=The International Conference on Chemical Nomenclature|journal=Nature|volume=46|pages=56–59|doi=10.1038/046056c0|issue=1177}}
* Armstrong's report is reprinted with the resolutions in English in: {{cite journal|author= Armstrong, Henry |year=1892|url=http://books.google.com/books?id=RogMAQAAIAAJ&pg=PA398|title=The International Conference on Chemical Nomenclature|journal=The Journal of Analytical and Applied Chemistry|volume=6|pages= 390–400 (398)|quote= The alcohols and the phenols will be called after the name of the hydrocarbon from which they are derived, terminated with the suffix ''ol'' (ex. pentanol, pentenol, etc.).}}</ref>
৯৫.৪% ইথানল ও ৪.৬% পানির মিশ্রণ ।
===মেথিলেটেড স্পিরিট===
[[মদ]], [[বিয়ার]], [[হুইস্কি]], [[ব্রান্ডি]] প্রভৃতি পানীয় ইথাইল এলকোহল হতে প্রস্তুত করা হয়। এ পানীয়সমহূল প্রকৃতপক্ষে ইথাইল এলকোহলের বিভিন্ন ঘনমাত্রার [[জলীয় দ্রবণ]] বিশেষ। এসকল পানীয়ের উপর প্রচুর [[আবগারী শুল্ক]] দিতে হয়। তাই এগুলো অত্যন্ত মহার্ঘ। অনেক সময় মাদকাসক্ত ব্যক্তিরা বাজার হতে সস্তা দামের ইথাইল এলকোহল কিনে এর সঙ্গে প্রয়োজন মত পানি মিশ্রিত করে দামী বাণিজ্যিক মদের বিকল্প হিসেবে পান করে। পানের কাজে এরূপ যথেচ্ছ ব্যবহারের ফলে ইথাইল এলকোহলের ঘাটতি পড়তে পারে। কারণ দ্রাবক এবং শিল্পজাত দ্রব্য উৎপাদনকাজে ইথাইল এলকোহল ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। তাই পানীয় হিসেবে ইথাইলে এলকোহলের অনঅনুমোদিত ব্যবহার বন্ধে এর সাথে মিথানল, পিরিডিন, ন্যাপথা প্রভৃতি বিষাক্ত পদার্থ মিশিয়ে বাজারজাত করা হয়। বাণিজ্যিকভাবে এরূপ অ্যালকোহলকে মেথিলেটেড স্পিরিট, ডি ন্যাচারড অ্যালকোহল বা অসেবনীয় অ্যালকোহল নামে পরিচিত। এটি বিশেষভাবে রং-বার্ণিশের কাজে দ্রাবক হিসেবে ব্যবহার করা হয়।<ref>উচ্চ মাধ্যমিক রসায়ন, দ্বিতীয় পত্র। অধ্যায়ঃ২৪, এলকোহল, ফেনল ও ইথারসমহুহ। ৩০৭ পৃষ্ঠা। লেখকঃ ড. রবিউল ইসলাম, ড. গাজী মোঃ আহসানুল কবীর, ডঃ মনিমুল হক। ৬ষ্ঠ সংস্করণ, জুন ২০০৪ । প্রথম প্রকাশ মার্চ ১৯৯৯।</ref> মেথিলেটেড স্পিরিটকে ইথানলের প্রকারভেদ হিসেবে গন্যগণ্য করা হয়।
 
==বিবিধ==
১,০৫,৭৫৯টি

সম্পাদনা