"ইংরেজি ভাষা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন
(Lokman Choudhury Rabby-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে CAPTAIN RAJU-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে...)
(বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন)
|altname = ইংরাজি
|nativename = English
|region = ([[#ভৌগোলিক বন্টনবণ্টন|নিচে]] দেখুন)
|speakers = প্রায় ৩৮০ মিলিয়ন (২০০১)<!--Ethn. updated to 364M, not yet pub.-->
|date =
|map = Anglospeak.svg
|mapcaption =
{{legend|#0000ff|দেশসমূহ যেখানে ইংরেজি একটি প্রাতিষ্ঠানিক বা কার্যত সরকারি ভাষা, অথবা জাতীয়জাতিয় ভাষা, এবং জনসংখ্যার বেশীরভাগেরবেশিরভাগের অনর্গল কথিত}}
{{legend|#8ddada|দেশসমূহ যেখানে এটি একটি সরকারি কিন্তু প্রধান ভাষা নয়}}
}}
[[১০৬৬]] সালে উত্তর [[ফ্রান্স|ফ্রান্সের]] [[নরমঁদি]] অঞ্চলে বসবাসকারী [[নর্মান জাতি]] [[ইংলিশ চ্যানেল]] পাড়ি দিয়ে [[ইংল্যান্ড]] আক্রমণ করে। নর্মানদের ইংল্যান্ড বিজয়ের পর প্রায় ৩০০ বছর ধরে ইংল্যান্ডের রাজারা ছিলেন নর্মান বংশোদ্ভূত এবং এসময় রাজকীয় ও প্রশাসনিক কাজকর্ম কেবল নর্মানদের কথ্য এক ধরনের প্রাচীন [[ফরাসি ভাষা|ফরাসি ভাষায়]] সম্পন্ন হত। এই যুগে বিপুল পরিমাণ ফরাসি শব্দ প্রাচীন ইংরেজি ভাষায় আত্মীকৃত হয়ে যায়, ইংরেজি ভাষার বেশির ভাগ বিভক্তি লুপ্ত হয় এবং ফলস্বরূপ [[মধ্য ইংরেজি ভাষা|মধ্য ইংরেজি ভাষার]] আবির্ভাব ঘটে। প্রাচীন ও মধ্য ইংরেজির সবচেয়ে বিখ্যাত সাহিত্যকর্মের মধ্যে আছে ''[[বেওউল্‌ফ]]'' এবং [[চসার|চসারের]] ''[[দ্য ক্যান্টারবেরি টেলস]]''।
 
[[১৫০০]] সালের দিকে বিরাট স্বরধ্বনি সরণ সংঘটিত হয় এবং [[আধুনিক ইংরেজি|আধুনিক ইংরেজির]] উদ্ভব ঘটে। [[উইলিয়াম শেক্‌স্‌পিয়ার|শেক্‌সপিয়ারের]] রচনাসহ আধুনিক ইংরেজি সাহিত্যের পুরোটাই এই আধুনিক ইংরেজিতে লেখা। [[এথ্‌নোলগ]] অনুসারেঅণুসারে ইংরেজি ভাষার মাতৃভাষীর সংখ্যা প্রায় ৩৪ কোটি। মাতৃভাষীর সংখ্যা অনুযায়ীঅণুযায়ী ইংরেজির স্থান [[ম্যান্ডারিন]], [[হিন্দি]] ও [[স্পেনীয় ভাষা|স্পেনীয় ভাষার]] পরেই।
 
প্রথমে [[ইংল্যান্ড]] ও পরে [[মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র|মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের]] রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, বৈজ্ঞানিক ও সাংস্কৃতিক প্রভাবের কারণে বিশ্বের অন্য যেকোন ভাষার চেয়ে ইংরেজিই বেশি বিস্তার লাভ করেছে। ইংরেজি প্রায় ৫২টি দেশের জাতীয়জাতিয় বা সরকারী ভাষা। বিশ্বের [[ইন্টারনেট]] ব্যবহারকারী জনসংখ্যার ৩৫ শতাংশই ইংরেজিভাষী। আধুনিক যোগাযোগে ও বিভিন্ন পেশায় ইংরেজির ব্যাপক ব্যবহারের কারণে এটি বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি অধীত [[দ্বিতীয় ভাষা]]। সংস্কৃতি ও প্রযুক্তির নতুন নতুন আন্তর্জাতিক পরিভাষার অধিকাংশই ইংরেজি থেকে এসেছে।
 
== ভৌগোলিক বন্টনবণ্টন ==
'''ইংরেজি ভাষা''' প্রথম ভাষা বা মাতৃভাষা হিসেবে [[যুক্তরাজ্য]], [[মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র]], [[কানাডা]], [[অস্ট্রেলিয়া]], [[প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড|আয়ারল্যান্ড]], [[নিউজিল্যান্ড]] ও অনেক [[ক্যারিবীয়]] দেশে স্বীকৃত। এছাড়া [[ভারত]], [[পাকিস্তান]], [[ফিলিপাইন]] ও অনেক [[আফ্রিকা]]ন দেশে ইংরেজি সরকারি ভাষা হিসেবে স্বীকৃত।
 
৭৭,৩৩৭টি

সম্পাদনা