আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশন: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন
(→‎আরও দেখুন: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে, কোন সমস্যা?)
(বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন)
|formation = ১৯৫৭
|map = CAF.svg
|type = খেলাধূলারখেলাধুলার সংস্থা
|headquarters = [[সিক্সথ অব অক্টোবর সিটি]], [[মিশর]]
|membership = [[পুরুষদের জাতীয়জাতিয় ফুটবল সংস্থার দলগুলোর তালিকা|৫৬ সদস্য সংস্থা]]
|language = [[ইংরেজি ভাষা|ইংরেজি]], [[ফরাসি ভাষা|ফরাসি]] ও [[আরবি ভাষা|আরবি]]
|leader_title = [[ক্যাফ সভাপতিদের তালিকা|সভাপতি]]
|website = [http://www.cafonline.com/ www.cafonline.com]
}}
'''কনফেডারেশন অব আফ্রিকান ফুটবল''' বা '''ক্যাফ''' ({{lang-fr|Confédération Africaine de Football}}; {{lang-ar|الإتحاد الأفريقي لكرة القدم‎}}) [[আফ্রিকা মহাদেশ|আফ্রিকা মহাদেশের]] ফুটবল সংস্থার প্রধান পরিচালনা পরিষদ ও নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা। আফ্রিকার জাতীয়জাতিয় ফুটবল সংস্থাগুলোকে ক্যাফ পরিচালনা করে। এটি মহাদেশীয়, জাতীয়জাতিয় এবং ক্লাবভিত্তিক [[ফুটবল]] [[প্রতিযোগিতা]] পরিচালনা করে থাকে। পাশাপাশি পুরস্কারের অর্থমূল্য, নিয়ম-নীতি প্রণয়ন ও প্রচার স্বত্ত্বের বিষয়েও এটি হস্তক্ষেপ করে। [[ফিফা|ফিফার]] নিয়ন্ত্রণাধীন ছয়টি মহাদেশীয় ফুটবল সংস্থার অন্যতম বৃহত্তম হচ্ছে ক্যাফ। [[উয়েফা|উয়েফা'র]] তুলনায় এটি মাত্র তিন বছর পরে গঠিত হয়। কিন্তু দীর্ঘদিন যাবৎ জাতীয়জাতিয় ও স্থানীয় প্রতিযোগিতায় খেলাধূলারখেলাধুলার মান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।
 
[[১৯৯৮ ফিফা বিশ্বকাপ|১৯৯৮]] সালে [[ফ্রান্স|ফ্রান্সে]] অনুষ্ঠিতঅণুষ্ঠিত [[ফিফা বিশ্বকাপ|ফিফা]] [[বিশ্বকাপ|বিশ্বকাপের]] পর এ অঞ্চল থেকে ৫টি দেশ বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। পরবর্তীতে [[দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয়জাতিয় ফুটবল দল|দক্ষিণ আফ্রিকায়]] অনুষ্ঠিতঅণুষ্ঠিত ২০১০ সালের বিশ্বকাপে [[ফিফা বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ|স্বাগতিক দেশসহ]] মোট ৬টি দেশের জাতীয়জাতিয় ফুটবল দল অংশ নিয়েছিল। কিন্তু, [[২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ|২০১৪]] সালের বিশ্বকাপে দলের সংখ্যা পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
 
== গঠন ==
[[মিশর জাতীয়জাতিয় ফুটবল দল|মিশর]], [[দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয়জাতিয় ফুটবল দল|দক্ষিণ আফ্রিকা]] এবং [[সুদান জাতীয়জাতিয় ফুটবল দল|সুদানের]] ফুটবল সংস্থা একত্রিত হয়ে [[সুদান|সুদানের]] [[রাজধানী]] [[খার্তুম|খার্তুমে]] ৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫৭ তারিখে ক্যাফ গঠন করে। এর পূর্বে ৭ জুন, ১৯৫৬ তারিখে কিছুসংখ্যক মিশরীয়, সোমালি, দক্ষিণ আফ্রিকান ও সুদানী [[পর্তুগাল|পর্তুগালের]] [[লিসবন|লিসবনে]] অ্যাভনিদা হোটেলে সংস্থা গঠনের উদ্দেশ্যে মিলিত হয়েছিলেন। খার্তুমে সংস্থার [[সদর দফতর]] প্রথম স্থাপন করা হলেও কয়েক মাস পর [[সুদান ফুটবল সংস্থা|সুদানীজসুদানিজ ফুটবল সংস্থায়]] [[আগুন]] লাগে ও তা ছড়িয়ে পড়লে পার্শ্ববর্তী [[কায়রো|কায়রোতে]] সংস্থার কার্যালয় স্থানান্তর করা হয়। ২০০২ সাল থেকে প্রশাসনিক কার্যক্রম কায়রোর কাছাকাছিকাছাঁকাছি [[সিক্সথ অব অক্টোবর সিটি|সিক্সথ অব অক্টোবর সিটিতে]] পরিচালিত হচ্ছে। শুরুতে চারটি দেশের জাতীয়জাতিয় ফুটবল সংস্থা এর সদস্য ছিল। বর্তমানে এ সংখ্যা ৫৬টিতে এসে পৌঁছেছে। তন্মধ্যে ৫৪টি পূর্ণাঙ্গ ও ২টি - [[জাঞ্জিবার]] ও [[রিইউনিয়ন আইল্যান্ড]] সহযোগী সদস্য হিসেবে রয়েছে।
 
সংস্থার প্রথম মহাসচিব ছিলেন [[ইউসুফ মোহাম্মদ]] এবং সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন [[আবদেল আজিজ আবদাল্লাহ সালেম]]। বর্তমান [[ক্যাফ সভাপতিদের তালিকা|সভাপতি]] হিসেবে রয়েছেন [[ইসা হায়াতো]]।
 
== প্রতিযোগিতা ==
সংস্থাটি প্রধান প্রতিযোগিতা হিসেবে পুরুষদের জাতীয়জাতিয় দলগুলো নিয়ে ১৯৫৭ সাল থেকে [[আফ্রিকান কাপ অব নেশন্স]] আয়োজন করে আসছে। ২০০৯ সাল থেকে [[আফ্রিকান নেশন্স চ্যাম্পিয়নশীপ]] প্রতিযোগিতাও নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়াও, [[আফ্রিকান যুব চ্যাম্পিয়নশীপ|অনূর্ধ্ব-২১]] এবং অনূর্ধ্ব-১৭ পর্যায়ের প্রতিযোগিতাও আয়োজন করে।
 
উয়েফার সাথে যৌথভাবে যুব দল নিয়ে [[উয়েফা-ক্যাফ মেরিডিয়ান কাপ]] আয়োজন করে। [[ফুটসাল]] নিয়ে [[আফ্রিকান ফুটসাল চ্যাম্পিয়নশীপ]] অনুষ্ঠিতঅণুষ্ঠিত হয়। [[ক্যাফ বীচ সকার চ্যাম্পিয়নশীপ]] নামে [[বীচ সকার]] প্রতিযোগিতা রয়েছে। এছাড়াও, [[প্যান আফ্রিকান গেমস|প্যান আফ্রিকান গেমসের]] ফটুবল বিষয়ে ক্যাফ সাংগঠনিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করে।
 
== তথ্যসূত্র ==
১,০৭,৮৪০টি

সম্পাদনা