"হিন্দু-মুসলিম সম্পর্ক" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

Niloy Mohonto-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Bangali ind-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত
ট্যাগ: মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা
(Niloy Mohonto-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Bangali ind-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত)
{{হিন্দুধর্ম}}
{{Islam and other religions}}
'''হিন্দু–মুসলিম সম্পর্ক''' অনুসন্ধান ও গবেষণা শুরু হয় ৭ম শতকের প্রথম দিকে, [[ভারতীয় উপমহাদেশ|ভারতীয় উপমহাদেশে]] ইসলামিক প্রভাব বিস্তারের সূচনা লগ্ন থেকে। বিশ্বের তিনটি বৃহত্তম ধর্মের দুটি হলো [[হিন্দুধর্ম]] এবং [[ইসলাম ধর্ম]]<ref>{{cite web|url=http://features.pewforum.org/grl/population-number.php?sort=numberHindu|title=Table: Religious Composition by Country, in Numbers|date=18 December 2012|publisher=Pew Research Center's Religion & Public Life Project (Washington DC)}}</ref>। হিন্দুধর্ম, ভারতীয় উপমহাদেশের হিন্দু মানুষের জীবনের সামাজিক-ধর্মীয় উপায়। ইসলাম ধর্ম [[তাওহিদ|যথাযথভাবে]] [[একেশ্বরবাদী]] ধর্ম যেখানে সর্বোচ্চ উপাস্য হলো [[আল্লাহ]] ([[আরবি ভাষা|আরবি]]: الله {{transl|ar|"ঈশ্বর"}}: দেখুন [[ইসলাম ধর্মে ঈশ্বর]])। সর্বশেষ [[ইসলামের পয়গম্বর|ইসলামী নবী]] [[মুহাম্মাদ]], যিনি [[কুরআন|কুরআনকে]] মুসলমানদের মধ্যে ইসলামী কিতাব হিসেবে বিশ্বাস বিতরণ করেন।
 
==তুলনামুলক সাদৃশ্য ও পার্থক্য চিহ্নিতকরণ==
===আদর্শ ও নৈতিক গুনাবলি===
===ধর্মীয় আচার-রীতিনীতি, প্রার্থনা ও উপবাস পদ্ধতি===
হিন্দুধর্মের অনুসারীগণ দৈনিক নিয়মিত ও অনিয়মিতভাবে তাদের উপাস্য দেবতা, দেবীগণের প্রতিমূর্তিকে সামনে রেখে উপাসনা ও ভক্তিমূলক পূজা করে থাকে। তাদের দৈনন্দিন উপাসনার মধ্যে আরেকটি প্রচলিত রীতি হল অগ্নির দ্বারা উপাসনা, এতে অগ্নিবেদীতে ঘি তুষ প্রভৃতি দান করে দেহ ও মনের আত্মিক মুক্তি সন্ধান করা হয়। অন্যদিকে ইসলাম ধর্মে সালাত বা নামাজ নামক উপাসনার মাধ্যমে প্রতিদিন পর্যায়ক্রমিকভাবে পাঁচবার আল্লাহ বা ঈশ্বরকে স্বরণ করা হয়।
 
===খাবার===
ইসলাম ধর্মমতে মানবজীবন একটাই ও একবারই আসে। এতে পুনরায় দেহ ধারণ বলে কিছু নেই। শুধু কিয়ামতের দিন সবাইকে পুনরুত্থিত করা হবে ও বিচার করা হবে। জীবিত থাকা অবস্থায় কৃতকর্মের উপর ভিত্তি করে মৃত্যুপরবর্তী জীবনে প্রতিদান দেওয়া হবে যা অনন্তকালের জন্য প্রাপ্য হবে।
বিপরীতভাবে হিন্দুধর্মমতে, মানুষ মৃত্যুর পর পুনরায় দেহ ধারণ করে। একে পুনর্জন্ম বলে।
 
===বিজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের অভিমত===
====হিন্দুধর্ম সম্পর্কে মুসলিম বিজ্ঞ ব্যক্তিগণের অভিমত====
 
====ইসলামধর্ম সম্পর্কে হিন্দু বিজ্ঞ ব্যক্তিগণের অভিমত====
 
==রাজনীতি ও ঐতিহাসিক সংঘর্ষ==
==হিন্দুধর্ম ও ইসলামধর্মের সমাজ সংষ্কৃতি ব্যবস্থা==
==শহরগুলোতে বৃদ্ধির হার==
ভারত প্রধানত হিন্দু ধর্মপ্রধান দেশ হলেও বিভিন্ন শহরে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের সংখ্যা বৃদ্ধির হার নিম্নে ৬.৩%(দিল্লি) থেকে সর্বোচ্চ ৯৫%(ভুপাল) পর্যন্ত রয়েছে| পাশাপাশি এক লক্ষের অধিক জনসংখ্যাবিশিষ্ট বেশ কিছু শহর রয়েছে যেখানে ৫০%-র বেশি মুসলিম বসবাস করে।
 
==আরও দেখুন==
{{প্রবেশদ্বার|হিন্দুধর্ম|ইসলাম}}
১৪,৯০৫টি

সম্পাদনা