"জুলাই ২০১৬ ঢাকা আক্রমণ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

* {{পতাকা আইকন|বাংলাদেশ}} এই ঘটনায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী [[শেখ হাসিনা]] জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন। তিনি একে ধর্ম ও মানবতার অবমাননা বলে মন্তব্য করেন। তার মতে ইসলাম শান্তির ধর্ম এবং ইসলামের নামে মানুষ হত্যা বন্ধ হওয়া উচতি। তিনি বলেন “দেশবাসীকে সঙ্গে নিয়ে যে কোন মূল্যে আমরা ষড়যন্ত্রকারীদের চক্রান্ত প্রতিহত করব।”<ref name="কালের কণ্ঠ">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|title=প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পূর্ণ বিবরণ|url=http://www.kalerkantho.com/online/national/2016/07/02/377120|website=কালের কণ্ঠ অনলাইন|accessdate=২ জুলাই ২০১৬}}</ref> রাষ্ট্রপতি [[আব্দুল হামিদ]] এই সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানান। এছাড়া তিনি জিম্মি সংকটের অবসানে যৌথ অভিযানে অংশ নেয়া যৌথ বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদ জানান।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|title=গুলশান এলাকায় সন্ত্রাসী ঘটনার তীব্র নিন্দা রাষ্ট্রপতির|url=https://www.dailyjanakantha.com/details/article/201523/গুলশান-এলাকায়-সন্ত্রাসী-ঘটনার-তীব্র-নিন্দা-রাষ্ট্রপতির|website=দৈনিক জনকণ্ঠ|accessdate=২ জুলাই ২০১৬}}</ref>
* {{পতাকা আইকন|ইতালি}} ইতালির প্রধানমন্ত্রী [[মাত্তেও রেনসি]] নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন, “আমাদের মূল্যবোধ ঘৃণা ও সন্ত্রাস থেকে অনেক শক্তিশালী।” এছাড়া তিনি এই ঘটনাকে “বেদনাদায়ক ক্ষতি” বলে মন্তব্য করেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|title=বাংলাদেশ হত্যাকাণ্ড: 'বেদনাদায়ক ক্ষতি' বললেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী|url=http://abpananda.abplive.in/world-news/italy-pm-warns-of-painful-loss-in-bangladesh-carnage-226494|website=[[এবিপি আনন্দ]]|accessdate=২ জুলাই ২০১৬}}</ref>
* {{পতাকা আইকন|জাপান}} জাপানের প্রধানমন্ত্রী [[শিনজোশিনযো আবে]] সন্ত্রাসীদের হাতে জিম্মি জাপানিদের জীবিত উদ্ধারে ইতোমধ্যে ঢাকাস্থ দূতাবাসে নির্দেশনা দেয়ার কথা এক সংবাদ সম্মেলনে জানান এবং তিনি এটিকে “দুঃখজনক” হিসেবে আখ্যা দেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|title=জিম্মি সঙ্কটে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস জাপানের|url=https://web.archive.org/save/http://dailyjagoran.com/top-news/জিম্মি-সঙ্কটে-বাংলাদেশের/|website=দৈনিক জাগরণ|accessdate=২ জুলাই ২০১}}</ref> এছাড়া অন্যান্য জাপানি সরকারি কর্মকর্তা ও সংস্থা যাদের মধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার, মন্ত্রিসভার মুখ্য সহকারী সচিব কোইচি হাগুইদা, মন্ত্রিসভার সহকারী সচিব ইয়োশিহিদে সুগা, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এই ঘটনায় তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দা করে।
* {{পতাকা আইকন|ভারত}} ভারতের প্রধানমন্ত্রী [[নরেন্দ্র মোদি]] বলেন “ঢাকায় আক্রমণ আমাদের অনেক কষ্ট দিয়েছে। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলেছি এবং এ আক্রমণের তীব্র নিন্দা জানাই।”<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|title=গুলশানে হামলা: শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলেছেন মোদি|url=http://www.banglatribune.com/national/news/119013/গুলশানে-হামলা-শেখ-হাসিনার-সঙ্গে-কথা-বলেছেন-মোদি|website=বাংলা ট্রিবিউন|accessdate=২ জুলাই ২০১৬}}</ref>
* {{পতাকা আইকন|মালয়েশিয়া}} মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে সমগ্র বিশ্ব এর মুসলিমদের সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে এক হওয়ার কথা বলেন।<ref>{{cite news|title=Malaysian PM condemns Dhaka attack, calls Muslims to unite against terrorism|url=http://bdnews24.com/bangladesh/2016/07/02/malaysian-pm-condemns-dhaka-attack-calls-muslims-to-unite-against-terrorism|accessdate=3 July 2016|publisher=[[Bdnews24.com]]|date=2 July 2016}}</ref>
১,০৯২টি

সম্পাদনা