নদী: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

১,১৪৮ বাইট বাতিল হয়েছে ,  ৫ বছর পূর্বে
Saidursj-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে WikitanvirBot-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত
(নদ ও নদীর মধ্যে পার্থক্য)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(Saidursj-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে WikitanvirBot-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত)
[[চিত্র:Surma River 0003.jpg|thumb|সুরমা নদী]]
'''নদী''' (সমার্থক শব্দ - তটিনী, তরঙ্গিনী, সরিৎ ইত্যাদি) সাধারণত মিষ্টি জলের একটি প্রাকৃতিক জলধারা যা ঝরণাধারা, বরফগলিত স্রোত অথবা প্রাকৃতিক পরিবর্তনের মাধ্যমে সৃষ্ট হয়ে প্রবাহ শেষে [[সাগর]], [[মহাসাগর]], [[হ্রদ]] বা অন্য কোন নদী বা জলাশয়ে পতিত হয় । মাঝে মাঝে অন্য কোন জলের উৎসের কাছে পৌছানোর আগেই নদী সম্পূর্ণ শুকিয়ে যেতে পারে। নদীকে তার গঠন অনুযায়ী [[শাখানদী]], [[উপনদী]], প্রধান নদী, নদ ইত্যাদি নামে অভিহিত করা যায়। আবার ভৌগোলিক অঞ্চলভেদে ছোট নদীকে বিভিন্ন নামে ডাকা হয়।
 
'''নদ ও নদীর মধ্যে পার্থক্য"'
 
নদ আর নদীর মধ্যে কোন আকার ও গঠনগত পার্থক্য নাই। যা পার্থক্য আছে তা হলো ব্যাকরণগত। যে সকল নদীর বাংলা বানানের শেষে অ-কারান্ত আছে সেই সকল নদীগুলোকে নদ বলে। যেমন: কপতাক্ষকে নদ বলা হয়। কারণ, কপতাক্ষ শব্দের শেষে অ-কারান্ত আছে। একইভাবে ব্রহ্মপুত্রও একটি নদ।
 
অপরদিকে যে সকল নদীগুলোর বাংলা বানানের পর আ-কারান্ত আছে সেই সকল নদীগুলোকে নদী বলা হয়। যেমন: মেঘনা শব্দের শেষে আ-কারান্ত আছে, তাই মেঘনা একটি নদী হিসাবে পরিচিত।
 
== নদীর জন্ম ও তাত্তিক ধারণা==