"লিওন জনসন (ক্রিকেটার)" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন
(→‎আন্তর্জাতিক ক্রিকেট: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যা?)
(বট বানান ঠিক করছে, কোনো সমস্যায় তানভিরের আলাপ পাতায় বার্তা রাখুন)
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বড়দের দলে খেলার পূর্বে জনসন অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলেন ও সাতটি যুবদের একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেন। ৩০.০০ গড়ে ত্রিশ রান সংগ্রহ করেন যাতে তার সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল অপরাজিত ২৯। পাশাপাশি স্লো বোলিং করে ৯ উইকেট পান ২৭.৪৪ গড়ে। তন্মধ্যে সেরা বোলিং করেন ৩/২৪।<ref>{{citation |url=http://cricketarchive.com/Archive/Players/97/97641/97641.html |title=Leon Johnson profile |publisher=CricketArchive}} Retrieved on 21 August 2008.</ref> ২০০৬ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পালন করেন।<ref>{{citation |url=http://content-uk.cricinfo.com/scotia/content/story/234737.html |title=West Indies ready and raring |author=Brian Murgatroyd |publisher=Cricinfo.com |date=27 January 2006}} Retrieved on 21 August 2008.</ref> দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তার সংগৃহীত ৮৩ রানের ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল প্রতিযোগিতার পরের রাউন্ডে অগ্রসর হয়।<ref>{{citation |url=http://content-uk.cricinfo.com/magazine/content/story/237993.html |title=The world at their feet |author=Andrew McGlashan |publisher=Cricinfo.com |date=21 February 2006}} Retrieved on 21 August 2008.</ref><ref>{{citation |url=http://content-uk.cricinfo.com/scotia/content/story/236521.html |title=Windies waltz as South Africa stumble |author=Andrew McGlashan |publisher=Cricinfo.com |date=10 February 2006}} Retrieved on 21 August 2008.</ref>
 
ক্যারিব বিয়ার সিরিজে ধারাবাহিকভাবে সফলতা প্রাপ্তির ফলে বারমুদা ও [[কানাডা জাতীয় ক্রিকেট দল|কানাডা]] নিয়ে অনুষ্ঠিত ত্রি-দেশীয় সিরিজে তাকে অন্তর্ভূক্তঅন্তর্ভুক্ত করা হয়।<ref name="WIdebut"/> [[Brendan Nash|ব্রেন্ডন ন্যাশ]] ও [[Kemar Roach|কেমার রোচের]] সাথে তারও [[Bermuda national cricket team|বারমুদার]] বিপক্ষে [[একদিনের আন্তর্জাতিক|একদিনের আন্তর্জাতিকে]] অভিষেক ঘটে। ২৮ বলে ২৭ রান করে [[Delyone Borden|ডেলিওয়ান বর্ডেনের]] বলে কট-আউট হন। ঐ খেলায় দল ছয় উইকেটে জয় পায়।<ref>{{citation |url=http://content-uk.cricinfo.com/westindies/content/story/365689.html |title=Sarwan seals West Indies success |author=Cricinfo staff |publisher=Cricinfo.com |date=20 August 2008}} Retrieved on 21 August 2008.</ref> ২২ আগস্ট, ২০০৮ তারিখে জনসন তার প্রথম অর্ধ-শতক করেন। [[Xavier Marshall|জেভিয়ার মার্শালের]] সাথে ১২৮ রানের জুটি গড়েন ও রেকর্ডসংখ্যক ছক্কা গড়েন। কানাডা দল ৪৯ রানে পরাজিত হয়।<ref>{{citation |url=http://content-uk.cricinfo.com/scotia/content/current/story/365923.html |title=Marshall breaks sixes record in West Indies win |author=Cricinfo staff |publisher=Cricinfo.com |date=22 August 2008}} Retrieved on 23 August 2008.</ref>
 
সেপ্টেম্বর, ২০১৪ তারিখে [[Gros Islet|গ্রোস আইলেটের]] [[Beausejour Stadium|বিউসেজোর স্টেডিয়ামে]] [[বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল|বাংলাদেশের]] বিপক্ষে তার [[টেস্ট ক্রিকেট|টেস্ট]] অভিষেক ঘটে। ঐ টেস্টের উভয় ইনিংসে তিনি ৬৬ ও ৪১ রান করেন।<ref>[http://www.espncricinfo.com/west-indies-v-bangladesh-2014/content/story/780293.html?CMP=chrome Bangladesh bowl, Leon Johnson debuts]</ref>
১,০৭,৮৪০টি

সম্পাদনা