"সূরা ফালাক" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

মান-সম্মত অবয়বে আনয়ন
(পরিমার্জন)
(মান-সম্মত অবয়বে আনয়ন)
}}
 
'''সূরা আল-ফালাক''' ({{lang-ar|سورة الفلق}}; ''নিশিভোর'') [[মুসলমান|মুসলমানদের]] ধর্মীয় গ্রন্থ [[কুরআন|কুরআনের]] ১১৩ নম্বর [[সূরা]]; এর [[আয়াত]], অর্থাৎ বাক্য সংখ্যা ৫ এবং [[রূকু]], তথা অনুচ্ছেদ সংখ্যা ১। সূরা আল-ফালাক [[মদীনা|মদীনায়]] অবতীর্ণ হয়েছে; যদিও কোন কোন বর্ণনায় একে [[মক্কা|মক্কায়]] অবতীর্ণ হিসাবে উল্লেখ করা হয়।<ref name="তাকু১" >{{cite book |last=মওদুদী |first=সাইয়েদ আবুল আ'লা |title=তাফহীমুল কুরআন |year=১৯৭২|publisher= |isbn= }}</ref> এর পাঁচ আয়াতে [[শয়তান|শয়তানের]] অনিষ্ট থেকে সুরক্ষার জন্য সংক্ষেপে [[আল্লাহ|আল্লাহর]] নিকট প্রার্থণা করা হয়। এই সূরাটি এবং এর পরবর্তী [[সূরা নাস|সূরা আন-নাসকে]] একত্রে ''মু'আওবিযাতাইন'' (আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাওয়ার দু'টি সূরা) নামে উল্লেখ করা হয়।<ref name="তাকু১" /> অসুস্থ অবস্থায় বা ঘুমের আগে এই সূরাটি পড়া একটি ঐতিহ্যগত [[সুন্নাহ|সুন্নত]]।<ref name="বুখারী">{{cite book| author = ইমাম বুখারী| title = সহীহ আল-বুখারী| pages = ৫০১৭ নং হাদীস}}</ref>
 
== নামকরণ ==
সূরা ফালাক ও [[আন-সূরা নাস|সূরা আন-নাস]] আলাদা আলাদা সূরা হলেও এদের পারস্পরিক সম্পর্ক এত গভীর ও উভয়ের বিষয়বস্তু পরস্পরের সাথে এত বেশী নিকট সম্পর্কিত যে এদেরকে একত্রে “মু’আওবিযাতাইন” (আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাওয়ার দু’টি সূরা) নামে ডাকা হয়; আবারআর এই সূরা দু’টি নাযিলও হয়েছে একই সাথে।সাথে একই ঘটনার পরি-প্রেক্ষিতে।<ref name="মাক্বো" >{{cite book |last=শাফী' |first=মুহাম্মদ |title=তফসীর মাআরেফুল ক্বোরআন |year=১৯৯১ |publisher=খাদেমুল-হারামাইন বাদশাহ ফাহদ কোরআন মুদ্রণ প্রকল্প, মদীনা মোনাওয়ারা, সৌদী আরব |isbn= }}</ref><ref name="দান">{{cite book| last=বায়হাকী |first=ইমাম |title=দালায়েলে নবুওয়াত: ইমাম|year=১৯৯০ |publisher= |isbn= বায়হাকী।}}</ref><ref name="তাকু">{{cite web| url=http://www.banglatafheem.com/index.php?option=com_quran&id=114&view=quran| title=সূরার নামকরণ| website=www.banglatafheem.com| accessdate=: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫| publisher=''তাফহীমুল কোরআন'', ২০ অক্টোবর ২০১০}}</ref>
 
== নাযিল হওয়ার সময় ও স্থান ==
২৮,৯৩৯টি

সম্পাদনা