"মহিলাদের টুয়েন্টি২০ ক্রিকেট" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

খেলোর ধরণ - নতুন অনুচ্ছেদ
(খেলোর ধরণ - নতুন অনুচ্ছেদ)
'''মহিলাদের টুয়েন্টি২০ ক্রিকেট''' [[মহিলাদের ক্রিকেট|মহিলাদের ক্রিকেটে]] [[টুয়েন্টি২০]] খেলায় নব সংযোজনী বিষয়। ২০০৪ সাল থেকে [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেট|আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে]] মহিলাদের টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। জুন, ২০০৯ সালে [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল|আইসিসি]] প্রথমবারের মতো [[ইংল্যান্ড|ইংল্যান্ডে]] [[আইসিসি মহিলাদেরমহিলা বিশ্ব টুয়েন্টি২০]] [[প্রতিযোগিতা|প্রতিযোগিতার]] প্রচলন ঘটায়।<ref>http://www.ecb.co.uk/news/world/icc-world-twenty20-2009/womens-icc-world-twenty20-2009/</ref> স্বাগতিক [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল|ইংল্যান্ড দল]] ঐ প্রতিযোগিতার শিরোপা লাভ করেছিল।<ref>http://www.ecb.co.uk/news/world/icc-world-twenty20-2009/womens-final,306178,EN.html</ref>
 
== খেলার ধরণ ==
{{মূল|টুয়েন্টি২০}}
 
মহিলাদের টুয়েন্টি২০ খেলার ধরণ পুরুষদের ক্রীড়ায় ব্যবহৃত নিয়মাবলী অনুসরণ করা হয়:
* [[popping crease|পপিং ক্রিজ]] অতিক্রম করে বল ডেলিভারি দিলে [[বোলিং (ক্রিকেট)|বোলার]] [[no ball|নো বলে]] অভিযুক্ত হবেন। এরফলে অতিরিক্ত ১ রানসহ পরবর্তী ডেলিভারিটি ফ্রি‘ফ্রি-হিটেরহিটের’ মর্যাদা পাবে। এতে ব্যাটসম্যান শুধুমাত্র [[run out|রান আউটে]] ডিসমিস হবেন।
* একজন বোলার ইনিংসে সর্বোচ্চ ৪ ওভার বোলিং করতে পারবেন।
* আম্পায়ারগণ ইচ্ছে করলে সময় নষ্টের কারণে প্রতিপক্ষকে ৫-রান জরিমানাস্বরূপ প্রদান করতে পারেন।
* যদি ফিল্ডিংরত দল ৭৫ মিনিটের মধ্যে ২০ ওভার বোলিং করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে প্রতি ওভারের জন্য অতিরিক্ত ৬ রান পাবে। এছাড়াও, ব্যাটিংরত দল সময় নষ্ট করলে আম্পায়ার অতিরিক্ত সময় যুক্ত করবেন।
 
== তথ্যসূত্র ==
{{প্রবেশদ্বার|ক্রিকেট}}
{{Reflist}}
৭৭,২২৯টি

সম্পাদনা