"ভাষাবিজ্ঞান" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎১৯শ শতক ও তুলনামূলক ঐতিহাসিক ভাষাবিজ্ঞান: ১৯শ শতক ও তুলনামূলক ঐতিহাসিক ভাষাবিজ্ঞান
(Removing Link FA template (handled by wikidata))
(→‎১৯শ শতক ও তুলনামূলক ঐতিহাসিক ভাষাবিজ্ঞান: ১৯শ শতক ও তুলনামূলক ঐতিহাসিক ভাষাবিজ্ঞান)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
অনেকেই [[১৭৮৬]] সালকে ভাষাবিজ্ঞানের জন্মবছর হিসেবে গণ্য করেন। ঐ বছরের [[২৭শে সেপ্টেম্বর]] তারিখে ভারতে কর্মরত ব্রিটিশ প্রাচ্যবিদ [[উইলিয়াম জোন্স (ভাষাতাত্ত্বিক)|স্যার উইলিয়াম জোন্স]] কলকাতার [[রয়াল এশিয়াটিক সোসাইটি|রয়াল এশিয়াটিক সোসাইটির]] এক সভায় একটি গবেষণাপত্র পাঠ করেন, যাতে তিনি উল্লেখ করেন যে [[সংস্কৃত]], গ্রিক, [[লাতিন]], [[কেল্টীয়]] ও [[জার্মানীয় ভাষা|জার্মানীয়]] ভাষাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য রকমের গাঠনিক সাদৃশ্য রয়েছে এবং প্রস্তাব করেন যে এগুলো সবই একই ভাষা থেকে উদ্ভূত। জোন্সের এই আবিষ্কারের ওপর ভিত্তি করে সমগ্র ১৯শ শতক জুড়ে ঐতিহাসিক ভাষাবিজ্ঞানীরা তুলনামূলক কালানুক্রমিক পদ্ধতি অনুসরণ করে বিভিন্ন ভাষার ব্যাকরণ, শব্দভাণ্ডার ও ধ্বনিসম্ভারের মধ্যে তুলনা করার চেষ্টা করেন এবং ফলশ্রুতিতে আবিষ্কার করেন যে প্রকৃতপক্ষেই লাতিন, গ্রিক ও সংস্কৃত ভাষাগুলো পরস্পর সম্পর্কিত, ইউরোপের বেশির ভাগ ভাষার মধ্যে বংশগত সম্পর্ক বিদ্যমান এবং এগুলো সবই একটি আদি ভাষা [[প্রত্ন-ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষা]] থেকে উদ্ভূত। [[রাস্‌মুস রাস্ক]], [[ফ্রান্ৎস বপ]], [[ইয়াকপ গ্রিম]], প্রমুখ ইউরোপীয় ভাষাবিজ্ঞানী তাঁদের গবেষণা প্রকাশ করা শুরু করেন। ১৯শ শতকের শেষ চতুর্থাংশে [[লাইপ্‌ৎসিশ]]-ভিত্তিক "[[নব্যব্যাকরণবিদেরা]]" (Jung-grammatiker; [[কার্ল ব্রুগ্‌মান]], [[হের্মান অস্ট্‌হফ]], [[হের্মান পাউল]], প্রমুখ) দেখান যে শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে আদি ভাষাগুলোর উচ্চারণের সুশৃঙ্খল, নিয়মাবদ্ধ পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে নতুন ভাষাগুলোর উদ্ভব হয়েছে।
 
একই সময়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভাষাবিজ্ঞানের আরেকটি ধারা স্বাধীনভাবে কাজ করে যাচ্ছিল। মার্কিন নৃতাত্ত্বিক ভাষাবিজ্ঞানীরা আমেরিকান ইন্ডিয়ান ভাষাসমূহের ওপর কাজ করতে শুরু করেন। এগুলোর অধিকাংশই ছিল বিলুপ্তির পথে, এবং এগুলোর কোন লিখিত দলিলও ছিল না। ফলে ঐতিহাসিক রচনাসমূহের তুলনা করে নয়, মার্কিন ভাষাবিজ্ঞানীরা মাঠে গিয়ে উপাত্ত সংগ্রহ করে ভাষা বিশ্লেষণ করতেন। yeas
 
== ২০শ শতক, সোস্যুর, এককালিক ভাষাবিজ্ঞান ও সংগঠনবাদ ==
৩টি

সম্পাদনা