"বাংলা হরফ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(একীভূতকরণ ফলক অপসারণ)
{{Merge to|বাংলা লিপি}}
 
'''বাংলা হরফ''' বলতে বাংলা লিপিতে লেখা বা মুদ্রিত বিষয়বস্তু তথা টেক্সটে লিখনের যেসব দৃশ্যমান মৌলিক উপাদানগুলি বিদ্যমান, তাদেরকে বোঝায়। বাংলা হরফের মধ্যে বাংলা লিপির স্বরবর্ণ ও ব্যঞ্জনবর্ণগুলি ছাড়াও আরও আছে বিভিন্ন সংখ্যাচিহ্ন, যতিচিহ্ন, বন্ধনী, গাণিতিক অপারেশনের চিহ্নাদি, বিশেষ নির্দেশক চিহ্ন, তারাচিহ্ন, ইত্যাদি। বাংলা টেক্সটে ব্যবহৃত এগুলির প্রতিটিই একেকটি বাংলা হরফ। মুদ্রণশিল্পের আবির্ভাবের আগে হরফগুলি হাতে লেখা হত। মুদ্রণশিল্পের আবির্ভাবের পরে এগুলি ছাপাখানাতে যান্ত্রিক পদ্ধতিতে ছাপা হওয়া শুরু হয়। টাইপরাইটারের আবির্ভাবের পর এগুলি ছাপাখানার বাইরে ব্যক্তিগত ব্যবহারকারীরাও ছাপাতে শুরু করেন। টাইপরাইটার বা ছাপাখানায় মুদ্রিত বাংলা হরফকে বাংলা মুদ্রাক্ষর বলা হয়। বিংশ শতাব্দীর শেষভাগে এসে ডেস্কটপ কম্পিউটারভিত্তিক প্রকাশনাতে ডিজিটাল উপায়ে বাংলা হরফ ছাপানোর প্রযুক্তি ব্যবহার করা শুরু হয়।
 
৭৫০টি

সম্পাদনা