"মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে, কোন সমস্যা?
(বট কসমেটিক পরিবর্তন করছে; কোনো সমস্যা?)
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে, কোন সমস্যা?)
[[চিত্র:Caslon-schriftmusterblatt.jpeg|thumb|right|300px|টাইপসেট ফন্ট এবং ভাষার একটি প্রতিরূপ। উইলিয়াম ক্যাসলন এটি করেছেন। ১৭২৮ সালের সাইক্লোপিডিয়া থেকে এটি পাওয়া গেছে।]]
[[মুদ্রণশৈলী|মুদ্রণশৈলীর]] পরিভাষায় একটি '''মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ''' ({{lang-en|Typeface}}) বলতে শৈলীগত একতা প্রদর্শনকারী কতগুলি [[হরফ|হরফের]] (glyph) একটি সমন্বিত সেটকে বোঝায়। একটি মুদ্রাক্ষর-ছাঁদে কোন ভাষার বর্ণমালা, অঙ্ক, এবং যতিচিহ্ন থাকতে পারে। এতে বিভিন্ন ধারকলিপি ও প্রতীকও থাকতে পারে। এমনকি কোন কোন মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ সম্পূর্ণভাবেই প্রতীক দিয়ে গঠিত হতে পারে, যেমন- গাণিতিক প্রতীকের মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ, কিংবা মানচিত্র নির্মাণে ব্যবহৃত মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ।
 
ডেস্কটপ কম্পিউটারের মাধমে প্রকাশনা শুরু হওয়ার আগে মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ এবং ফন্ট-এর মধ্যে সংজ্ঞার পার্থক্য ছিল। কিন্তু বর্তমানে ডিজিটাল মুদ্রণশৈলীর যুগে এই দুইটিকেই প্রায় একই অর্থে ব্যবহার করা হয়। ফন্ট বলতে কোন মুদ্রাক্ষর-ছাঁদের নির্দিষ্ট একটি সদস্যকে বোঝাতে পারে। যেমন এরিয়াল মুদ্রাক্ষর-ছাঁদটির রোমান, গাঢ় এবং বাঁকা এই তিনটি ফন্ট হওয়া সম্ভব।
 
মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ নকশা করার শিল্প ও কলাকৌশলকে [[মুদ্রাক্ষর নকশাকরণ]] বলা হয়। যারা এই কাজ করেন, তাদেরকে বলা হয় [[মুদ্রাক্ষর নকশাবিদ]]। ডিজিটাল মুদ্রণশৈলীর ক্ষেত্রে এদেরকে ফন্ট প্রস্তুতকারক বা ফন্ট নকশাবিদ নামে ডাকা হয়।
 
মুদ্রাক্ষর-ছাঁদ এবং ফন্টের আকার ঐতিহ্যগতভাবে [[পয়েন্ট (মুদ্রণশৈলী)|পয়েন্ট]] এককে মাপা হয়। পয়েন্ট এককটিকে বিভিন্ন সময়ে ভিন্নভাবে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে। তবে বর্তমানে পয়েন্ট বলতে ডেস্কটপ কম্পিউটার প্রকাশনা শিল্পে সংজ্ঞায়িত জন্য "ডেস্কটপ পাবলিশিং পয়েন্ট"-কেই বোঝায়। একটি পয়েন্টের আকার এক ইঞ্চির ৭২ ভাগের এক ভাগ।
 
== পরিভাষা (ইংরেজি বর্ণানুক্রমে) ==
১,৮২,৩৮১টি

সম্পাদনা