"আরাশ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট কসমেটিক পরিবর্তন করছে; কোনো সমস্যা?
(সাধারণ ফিক্স using AWB)
(বট কসমেটিক পরিবর্তন করছে; কোনো সমস্যা?)
তাঁর প্রথম অ্যালবাম আরাশ ২০০৫ এর জুনে [[ওয়ার্নার মিউজিক সুইডেন]] কতৃক প্রকাশিত হয়। তখন তিনি মাত্র কলেজ পাশ করেছেন। তাঁর একক সঙ্গীত “বোরো বোরো” এবং “টেম্পটেশন” [[ইউরোপ|ইউরোপব্যাপী]] দারুণ অনপ্রিয় হয়। এছাড়া গান দুইটির মিউজিক ভিডিও ইউরোপের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে এবং এমটিভির ২০টিরও অধিক পৃথিবীব্যাপী আউটলেটে প্রচারিত হয়। তাঁর নিজের দেশ, ইরান ও সুইডেন ছাড়াও আরাশের সঙ্গীত পূর্ব ইউরোপ ও দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের বিভিন্ন দেশ যেমন- রাশিয়া, ইউক্রেইন, গ্রীস, বুলগেরিয়া, পোল্যান্ড, হাঙ্গেরী, জর্জিয়া, আজারবাইজান, সার্বিয়া, স্লোভাকিয়া, রোমানিয়া, তুরস্ক এবং এশিয়ার তাজিকিস্তান, কাজাখস্থান, আফগানিস্থান, উজবেকিস্তানসহ মধ্যপ্রাচ্যের আরব দেশসমূহে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেন।
 
পোল্যান্ডে আরাশ অত্যাধিক জনপ্রিয়। তাঁর “বোরো বোরো” ভারতের [[বলিউড]] চলচ্চিত্রে ব্যবহৃত হয়েছে। ঐ মাসে এমটিভি ইন্ডিয়া আরাশকে মাসের সেরা শিল্পী পদক দেয়। পাঁচটি দেশের মিউজিক চার্ট তাঁর আরাশ অ্যালবামকে গোল্ড সনদপত্রে ভূষিত করেছে: রাশিয়া, স্লোভেনিয়া, জার্মানি, গ্রীস এবং সুইডেন।<ref>http://www.eurovision.tv/event/artistdetail?song=24728&event=1482</ref> প্রায় ৩৫টি দেশের এমটিভি চ্যানেলে আরাশের মিউজিক ভিডিও প্রচারিত হয়েছে।<ref>{{cite web|url=http://www.youtube.com/watch?v=W8utdGOsK_k |publisher=YouTube |title=The Persian Prince of Pop ARASH |accessdate=2010-04-10 |date=2009-11-30}}</ref>
 
== তথ্যসূত্র ==
২,০০,১০৩টি

সম্পাদনা