আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল (বাংলাদেশ): সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(→‎অভিযুক্ত ব্যক্তিবর্গ: সংযোগ আশরাফুজ্জামান খান এবং চৌধুরী মুঈনুদ্দীন)
 
==বিচারের বিরূদ্ধে সমালোচনা==
জামায়াত-এ-ইসলামি এই দলটি মূলত ইসলাম ধর্মকে ব্যবহার করে জনসংযোগ তৈরী করে। বর্তমানে এরা মূলত ট্রাইব্যুনালের প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করেছে এবং জাতিসংঘের অধীনে এই ট্রাইব্যুনাল পরিচালনা করার দাবী জানিয়েছে। এছাড়া আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা [[হিউম্যান রাইটস্‌ ওয়াচ|হিউম্যান রাইটস ওয়াচ]] এ ট্রাইব্যুনালের কাজের বিরোধীতা করে বলেছে, <b>Bangladesh: Death Sentence Violates Fair Trial Standards</b><ref>[http://www.hrw.org/news/2013/09/18/bangladesh-death-sentence-violates-fair-trial-standards Human Rights Watch Website]</ref> । তদুপরি <b>যুক্তরাজ্যের হাউজ অব লর্ডস</b> সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর রায়কে প্রত্যাখ্যান করেছে<ref>[http://bdinn.com/news/bk-lawer-lord-calile-asked-un-to-act-on-deterotrating-rigths-situation-in-bangladesh/ UK House of Lords Disapproved The Verdict of SQ Chowdhury]</ref> । ১৯৬৯ সালে শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আইনজীবী ব্রিটিশ লর্ড কার্লাইল এ রায় প্রত্যাখ্যান করে বিবৃতি দেন<ref>[http://progressbangladesh.com/press-statement-lord-carlie-on-ict/ Lord Carlile Calls the Verdict "Disturbing"]</ref> ।
{{original research}}
 
জামায়াত-এ-ইসলামি এই দলটি মূলত ইসলাম ধর্মকে ব্যবহার করে জনসংযোগ তৈরী করে। বর্তমানে এরা মূলত ট্রাইব্যুনালের প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করেছে এবং জাতিসংঘের অধীনে এই ট্রাইব্যুনাল পরিচালনা করার দাবী জানিয়েছে। এছাড়া আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এ ট্রাইব্যুনালের কাজের বিরোধীতা করে বলেছে, <b>Bangladesh: Death Sentence Violates Fair Trial Standards</b><ref>[http://www.hrw.org/news/2013/09/18/bangladesh-death-sentence-violates-fair-trial-standards Human Rights Watch Website]</ref> । তদুপরি <b>যুক্তরাজ্যের হাউজ অব লর্ডস</b> সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর রায়কে প্রত্যাখ্যান করেছে<ref>[http://bdinn.com/news/bk-lawer-lord-calile-asked-un-to-act-on-deterotrating-rigths-situation-in-bangladesh/ UK House of Lords Disapproved The Verdict of SQ Chowdhury]</ref> । ১৯৬৯ সালে শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আইনজীবী ব্রিটিশ লর্ড কার্লাইল এ রায় প্রত্যাখ্যান করে বিবৃতি দেন<ref>[http://progressbangladesh.com/press-statement-lord-carlie-on-ict/ Lord Carlile Calls the Verdict "Disturbing"]</ref> ।
মার্চ ২০১৩ সালে [[দ্য ইকোনমিস্ট]] সাপ্তাহিক এই বিচার ব্যবস্থায় বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের হস্তক্ষেপ, প্রতিরক্ষার জন্য যথেষ্ঠ সময় না দেওয়া, প্রতিরক্ষার সাক্ষী পাচার এবং নিরপেক্ষতা বিতর্কে বিচারকদের পদত্যগ উল্লেখ করে সমালোচনা করে।<ref>[http://www.economist.com/news/leaders/21573990-bangladeshs-war-crimes-tribunal-sullying-its-judicial-and-political-systems-another-kind Another kind of crime]</ref>
 
==আরও দেখুন==
৪২৭টি

সম্পাদনা