"ডেভিড ওয়ার্নার" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(খেলোয়াড়ী জীবন - নতুন পরিচ্ছেদ সৃষ্টি)
আক্রমণাত্মক বামহাতি ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত ওয়ার্নার। পাশাপাশি দৌঁড়িয়ে ফিল্ডিং করেন। মাঝেমাঝে স্পিন বোলারের ভূমিকাও অবতীর্ণ হন তিনি। অফ-স্পিন বোলিংয়ের সাথে লেগ স্পিন বোলিংয়ের যোগসূত্র রক্ষা করেন। ১৭০ সেন্টিমিটারের দীর্ঘদেহী শরীরে শক্তিশালী হাতের ব্যাটিংয়ে বলকে শূন্যে উঠাতে পারেন অবলীলাক্রমে। ২০০৯ সালে নিউ সাউথ ওয়েলসের পক্ষে [[টুয়েন্টি২০]] আন্তর্জাতিকে [[Shaun Tait|শন টেইটের]] বলকে [[Adelaide Oval|অ্যাডিলেইড ওভালের]] ছাদে পাঠান। [[Sydney Cricket Ground|সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডেও]] তিনি একই বোলারকে মোকাবেলা করে সফলকাম হন।<ref>[http://www.smh.com.au/news/sport/cricket/warner-coshes-redbacks-to-sour-tait-return/2009/01/06/1231004022956.html Warner coshes Redbacks to sour Tait return] SMH 7 January 2009</ref>
 
তাসমানিয়ার বিপক্ষে [[অপরাজিত (ক্রিকেট)|অপরাজিত]] ১৬৫ রান করে একদিনের সর্বোচ্চ রান করেন [[New South Wales cricket team|ব্লুজের]] খেলোয়াড় হিসেবে।<ref>{{cite web|url=http://www.news.com.au/dailytelegraph/story/0,22049,24726020-5001023,00.html |title=David Warner seals NSW Blues win with record knock |publisher=News.com.au |date= |accessdate=2013-08-09}}</ref> পরবর্তীতে ৫৪ বলে ৯৭ [[রান (ক্রিকেট)|রান]] করে অল্পের জন্য অস্ট্রেলীয় ঘরোয়া ক্রিকেটে দ্রুততম [[সেঞ্চুরি (ক্রিকেট)|সেঞ্চুরির]] রেকর্ড গড়তে পারেননি।<ref>{{cite web|url=http://www.news.com.au/heraldsun/story/0,21985,24763519-11088,00.html |title=Opener David Warner just misses Australia's fastest one-day centuryArticle |publisher=News.com.au |date= |accessdate=2013-08-09}}</ref> ঘরোয়া ক্রিকেটে তার এ সাফল্যের প্রেক্ষিতে জানুয়ারি, ২০০৯ সালে তিনি অস্ট্রেলিয়ার টুয়েন্টি২০ দলে অন্তর্ভূক্ত হন।<ref>{{cite web|last=Lalor |first=Peter |url=http://www.foxsports.com.au/story/0,8659,24887240-23212,00.html |title=Matthew Hayden considers his future after being dropped |publisher=Foxsports |date=2009-01-08 |accessdate=2013-08-09}}</ref> ১১ জানুয়ারি, ২০০৯ তারিখে [[দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় ক্রিকেট দল|দক্ষিণ আফ্রিকার]] বিপক্ষে টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে [[Melbourne Cricket Ground|মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে]] অভিষিক্ত হন। টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকের ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুতম অর্ধ-শতক করেন ৪৩ বল ৮৯ রান যাতে ৭টি চার ও ৬টি ছক্কার মার ছিল।<ref>{{cite web|url=http://stats.cricinfo.com/ci/content/records/284094.html |title=Twenty20 Internationals - Fastest fifties |publisher=Stats.cricinfo.com |date= |accessdate=2013-08-09}}</ref> ওয়ার্নার [[ক্রিস গেইল|ক্রিস গেইলের]] শতকের চেয়ে মাত্র ১১ রান দূরে ছিলেন। অভিষেকে তার ৮৯ রান ছিল টুযেন্টি২০ আন্তর্জাতিকের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ও পঞ্চম সমতাসূচক সর্বোচ্চ স্কোর।<ref>{{cite web|url=http://www.theroar.com.au/david-warner/ |title=David Warner profile page |publisher=The Roar |date=2009-01-11 |accessdate=2013-08-09}}</ref>
২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১০ তারিখে টি২০-তে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত [[ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল|ওয়েস্ট ইন্ডিজের]] বিপক্ষে মাত্র ২৯ বলে ৬৭ রান করেন। তার ৫০ রান আসে মাত্র ১৮ বলে। এরফলে তিনি তার নিজস্ব ১৯ বলের রেকর্ড ভঙ্গ করেন ও [[যুবরাজ সিং|যুবরাজ সিংয়ের]] পর দ্বিতীয় দ্রুততম অর্ধ-শতক করেন।<ref>{{cite web|url=http://www.cricinfo.com/ausvwi09/engine/current/match/406198.html |title=2nd T20I: Australia v West Indies at Sydney, Feb 23, 2010 &#124; Cricket Scorecard &#124; ESPN Cricinfo |publisher=Cricinfo.com |date= |accessdate=2013-08-09}}</ref>
 
== তথ্যসূত্র ==
৭৩,৩৬৫টি

সম্পাদনা