"এসপ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্প্রসারণ করা হলো
(জীবনী)
(সম্প্রসারণ করা হলো)
| influenced = [[এরিস্টটল]], [[হিরোডোটাস]], [[প্লুতার্ক]], [[Aristophanes|এরিস্টোফ্যান্স]], [[সোফোক্লিস]], [[সক্রেটিস]], [[Diogenes Laertius|ডিওজেন্স]], [[Demetrius of Phalerum|দিমিত্রিয়াস অব ফালেরাম]], [[Phaedrus (fabulist)|ফায়েদ্রাস]], [[Babrius|বাব্রিয়াস]], [[Avianus|এভিয়ানাস]], [[Dositheus Magister|দোসিথিয়াস]], [[Himerius|হিমারিয়াস]], [[Maximus Planudes|ম্যাক্সিমাস প্লানুডেস]]
}}
'''এসপ''' ({{IPAc-en|ˈ|iː|s|ɒ|p}} {{respell|EE|sop}}; {{lang-grc|Αἴσωπος}}; [[জন্ম]]: [[খ্রিষ্টপূর্বখ্রিস্টপূর্ব ৬২০]] - [[খ্রিষ্টপূর্বখ্রিস্টপূর্ব ৫৬৪]]) বিখ্যাত ও প্রাচীন গ্রীক [[লেখক]] ছিলেন। খ্রিষ্টখ্রিস্ট-পূর্ব ষষ্ঠ শতকে তিনি পশু-প্রাণীদের ঘিরে অনেকগুলো [[উপ-কথা]] বা কল্পকাহিনী মুখে বলার মাধ্যমে অনেকগুলো নীতি-কথা ব্যক্ত করে আধুনিক বিশ্বে অমর হয়ে রয়েছেন। একসময় তিনি থ্রাসে দাসত্ব থেকে মুক্তি লাভ করেছিলেন। প্রাণীসম্পর্কীয় চরিত্র, স্থির বিষয়াবলীকে ঘিরে রচিত উপ-কথা ব্যক্ত করে মানবচরিত্রের সমস্যার সমাধান করতে পারঙ্গমতা প্রদর্শন করেছেন। এ উপ-কথাগুলোর সাথে তাঁর নামও যুক্ত হয়ে আছে এবং মৌখিকভাবে দীর্ঘ সময় ধরে প্রবাহিত হচ্ছে। ইন্দো-ইউরোপীয় জনগোষ্ঠীর সাধারণ জীবনধারায় এ উপ-কথাগুলোর ভূমিকা অপরিসীম। এছাড়াও [[বিশ্বসাহিত্য]] অঙ্গনেও এর জনপ্রিয়তা অসম্ভব আকারে রয়েছে।
 
গ্রীক ও রোমান লেখকেরা এসপের উপ-কথাগুলোকে [[গদ্য]] কিংবা পদ্যে ধারাবাহিকভাবে লিখে গেছেন। তন্মধ্যে, এসপের উপ-কথাগুলো কবি বাব্রিয়াস কর্তৃক হেলেনীয় রোমান সময়কালে ১ম অথবা ২য় শতকে গ্রীক শ্লোকে পুণঃলিখিত হয়। রোমান কবি [[ফায়েদ্রাস]] ল্যাটিন ভাষার শ্লোকে ১ম শতকে রচনা করেছেন। [[বাব্রিয়াস|বাব্রিয়াসের]] উপ-কথাগুলোও এসপের নামধারণ করেছে।
 
আধুনিক ইউরোপে প্রচলিত উপ-কথাগুলো বাইজেন্টাইন সন্ন্যাসী [[ম্যাক্সিমাস প্লানুডেস|ম্যাক্সিমাস প্ল্যানুডেসের]] ল্যাটিন সংস্করণ থেকে আহুত। সংস্কৃত ভাষায় পঞ্চতন্ত্র শিরোনামে খ্রীষ্টখ্রীস্ট-পূর্ব ৩য় শতক থেকে খ্রীষ্ট পরবর্তী ৪র্থ শতকের মধ্যে ভারতীয় লেখক [[বিষ্ণুশর্মা]] লিখেছেন। ''পঞ্চতন্ত্র'' কমপক্ষে ৫০টি ভাষায় দুই শতাধিক সংস্করণে লিখিত হয়েছে।
 
== জীবনী ==
জনপ্রিয় গ্রীক উপ-কথা লেখক এসপ সম্বন্ধে খুব কমই জানা গেছে। তাঁকে উপ-কথার জনক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যে-কোন ধরনের তথ্য বিভিন্ন পৌরাণিক উপাখ্যান ও লোকমুখে তাঁর সম্বন্ধে তুলে ধরা হয়েছে। তিনি খুব সহজেই সাধারণ জনগণের কাছাকাছি চলে এসেছেন এবং নিজস্ব প্রজ্ঞা ও বুদ্ধিমত্তা তুলে ধরেছেন বিভিন্ন হাস্য উদ্দীপক ও মজাদার গল্প বলার মাধ্যমে। ইউরোপের উপ-কথাগুলোয় এসপের সৃষ্ট উপ-কথাগুলোকে ঘিরে রচিত হয়েছে। তবে, তাঁর জীবনভিত্তিক তথ্যগুলোর তেমন ভিত্তি নেই।
এসপের জন্মস্থান নিয়ে বেশ বিতর্ক রয়েছে। থ্রেস, ফ্রিজিয়া, এথিওপিয়া, সামোস, এথেন্স এবং সার্দিস - শহরগুলোর প্রত্যেকেই তাঁর জন্মস্থানের সম্মাননার দাবীদার।<ref name=bio/> তাঁর জীবনভিত্তিক তথ্যগুলোর তেমন ভিত্তি নেই। তবে, তিনি যে সামোসের ইয়াদমনের ক্রীতদাস ছিলেন ও ডেলফির অধিবাসীদের হাতে মর্মান্তিকভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন তা নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই। বিখ্যাত ইতিহাসবেত্তা [[হিরোডোটাস|হিরোডোটাসও]] তাঁর হত্যার বিষয়ে কোন কারণ উল্লেখ করেননি। পরবর্তীকালে অনেক [[লেখক|লেখকই]] তাঁর অবজ্ঞাসূচক দৃষ্টিভঙ্গী, ডেলফিতে টাকা ছড়ানো, রৌপ্যনির্মিত পেয়ালা চুরি ইত্যাদি বিষয়াবলী এ হত্যাকাণ্ডে ইন্ধন জুগিয়েছে বলে ধারণা করেছেন।
 
খুব সম্ভবতঃ খ্রিস্ট-পূর্ব ৬০০ সালে তিনি জীবিত ছিলেন। এসপের জন্মস্থান নিয়ে বেশ বিতর্ক রয়েছে। থ্রেস, ফ্রিজিয়া, এথিওপিয়া, সামোস, এথেন্স এবং সার্দিস - শহরগুলোর প্রত্যেকেই তাঁর জন্মস্থানের সম্মাননার দাবীদার।<ref name=bio/> বলা হয়ে থাকে যে, তিনি ফ্রিজিয়া থেকে এসেছেন। এসপ গ্রীক দাস ছিলেন। বিভিন্ন ব্যক্তিকে প্রভু মেনে তাদের সেবা করেছেন। তিনি সামোসের সামিয়ান ইয়াদমন নামীয় এক প্রভুর ক্রীতদাস ছিলেন ও তাঁর কাছ থেকে অবশেষে মুক্তি লাভ করেন।<ref>[http://www.aesopos.com/ aesopos.com - Aesop]</ref> পরবর্তীতে তিনি রাজা ক্রোইসাসের দরবার আনীত হন। রাজা ক্রোইসাস এসপের ব্যক্তিত্বের প্রখরতা ও বুদ্ধিমত্তা যাঁচাই করে আশ্চর্যান্বিত হন এবং তাঁকে বিভিন্ন জায়গায় প্রেরণ করেন। ডেলফি গমনের একপর্যায়ে স্থানীয় পুরোহিতদের নিজস্ব মনগড়া আইনের মাধ্যমে তাঁকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।
 
এসপের জন্মস্থান নিয়ে বেশ বিতর্ক রয়েছে। থ্রেস, ফ্রিজিয়া, এথিওপিয়া, সামোস, এথেন্স এবং সার্দিস - শহরগুলোর প্রত্যেকেই তাঁর জন্মস্থানের সম্মাননার দাবীদার।<ref name=bio/> তাঁর জীবনভিত্তিক তথ্যগুলোর তেমন ভিত্তি নেই। তবে, তিনি যে সামোসের ইয়াদমনের ক্রীতদাস ছিলেন ও ডেলফির অধিবাসীদের হাতে মর্মান্তিকভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন তা নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই। বিখ্যাত ইতিহাসবেত্তা [[হিরোডোটাস|হিরোডোটাসও]] তাঁর হত্যার বিষয়ে কোন কারণ উল্লেখ করেননি। পরবর্তীকালে অনেক [[লেখক|লেখকই]] তাঁর অবজ্ঞাসূচক দৃষ্টিভঙ্গী, ডেলফিতে টাকা ছড়ানো, রৌপ্যনির্মিত পেয়ালা চুরি ইত্যাদি বিষয়াবলী এ হত্যাকাণ্ডে ইন্ধন জুগিয়েছে বলে ধারণা করেছেন।
 
== এসপের উপ-কথা ==
৭৭,২৬৮টি

সম্পাদনা