"শাহরিয়ার কবির" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(Reverted 1 edit by 82.130.44.235 (talk) identified as vandalism to last revision by Bellayet. (TW))
==শিক্ষা ও কর্মজীবন==
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আনুষ্ঠানিক শিক্ষা সম্পূর্ণ করে শাহরিয়ার কবির ১৯৭২ সালে [[সাপ্তাহিক বিচিত্রা]]য় সাংবাদিক হিসেবে যোগদান করেন এবং [[১৯৯২]] সাল পর্যন্ত নির্বাহী সম্পাদক পদে থাকেন। তিনি [[একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি]] এর সাথে যুক্ত আছেন। শাহরিয়ার কবির বলেনঃ“ মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের ধ্বংস করা যায় না। বাংলাদেশে অধিকাংশ সময় নেতৃত্ব দিয়েছে ৭১’র পরাজিত শক্তি। তারা মুক্তিযুদ্ধের সব কিছু ধ্বংস করতে চেয়েছে কিন্তু পারেনি। তিনি বলেন, দেশের মানুষ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চায়। মহাজোট সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কাজ শুরু করেছে। আমরা বিশ্বাস করি ২০১৩ সালের মধ্যে শীর্ষ স্থানীয় যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করা সম্ভব হবে। ”<ref> http://www.bangladeshnews24x7.com/districtnews/rajshahidivision/pabnazilla/2253-2010-12-20-15-35-20.html</ref>
 
==স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন বিতর্কিত ভূমিকা==
বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় শাহরিয়ার কবিরের ভূমিকা কী ছিল তা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। যদিও শাহরিয়ার কবির পরবর্তী সময়ে স্বাধীনতা যুদ্ধের বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে বই লিখেছেন এবং সিনেমা বানিয়েছেন তবে মুক্তিবাহিনীর অন্যতম ইউনিট কাদেরিয়া বাহিনীর কমান্ডার [[আবদুল কাদের সিদ্দিকী|বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম]] এক বক্তৃতায় শাহরিয়ার কবির কে রাজাকার তথা দখলদার বাহিনীর সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করেছেন। <ref>https://www.youtube.com/watch?v=6wUhDWZlyfk</ref>
 
ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির অপর সদস্য ‘মুশতারি শফি জাহানারা ইমামের স্মৃতির উদ্দেশে চিঠি' নামক বইতে উল্লেখ করেছেন যে, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির (ঘাদানিক) সভাপতি শাহরিয়ার কবির ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের পক্ষে যুদ্ধ করেননি বরং পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে তিনি খাদ্য হিসেবে মুরগি সরবরাহ করেছেন। এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে সাক্ষ্য দেওয়ার সময় শাহরিয়ার কবিরকে জেরা করা হলে তিনি বলেন, "এটা একটি নির্জলা মিথ্যা"।<ref>http://www.bdtoday.net/blog/blogdetail/detail/2061/junayed/2657#.UTYSeDc57ow</ref>
 
==গ্রন্থতালিকা:==
১৯,৪০৭টি

সম্পাদনা