"শান্তিতে নোবেল পুরস্কার" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সমালোচনা
(r2.6.4) (বট যোগ করছে: bat-smg:Nuobelė taikuos premėjė)
(সমালোচনা)
| doi =
| accessdate = 2009-09-10}}</ref>
 
== সমালোচনা ==
[[হেনরি কিসিঞ্জার]] এবং লে ডাক থো'র নোবেল শান্তি পুরস্কার প্রদানের ফলে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি ব্যাপক সমালোচনার মুখোমুখি হয়। কিন্তু পরবর্তীতে [[লে ডাক থো]] এ পুরস্কার গ্রহণে অস্বীকৃতি জানান।<ref>[http://www.timesonline.co.uk/tol/news/world/article6868007.ece de Sousa, Ana Naomi (9 October 2009). "Top ten Nobel Prize rows". The Times (London: Times Newspapers Limited). Retrieved 25 May 2010.]</ref> এরফলে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটির দুইজন সদস্য পদত্যাগ করেন। জানুয়ারি, ১৯৭৩ সালে [[ভিয়েতনাম যুদ্ধ|উত্তর ভিয়েতনাম]] ও [[মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র|মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের]] মধ্যেকার [[যুদ্ধ বিরতি|যুদ্ধ বিরতির]] আলোচনা এবং সেখান থেকে [[মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী|আমেরিকান সেনা]] প্রত্যাহারের প্রেক্ষাপটে তাঁদেরকে এ [[পুরস্কার]] প্রদান করা হয়। কিন্তু যখন এ পুরস্কারের বিষয়টি ঘোষিত হয়, তখনও উভয় পক্ষের মধ্যে আলাপ-আলোচনা অব্যাহত ছিল।<ref>Abrams, Irwin (2001). p. 219.</ref> অনেক [[সমালোচক|সমালোচকদের]] অভিমত, কিসিঞ্জার [[শান্তি]] প্রণেতা ছিলেন না; বরঞ্চ [[যুদ্ধ|যুদ্ধের]] ব্যাপক প্রসারে সুদূরপ্রসারী ভূমিকা রেখেছিলেন।<ref>Abrams, Irwin (2001). p. 315.</ref>
 
==তালিকা==
৭৭,২৬৮টি

সম্পাদনা