"বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

কলেবর বৃদ্ধি ও তথ্যসূত্র যোগ
(+)
(কলেবর বৃদ্ধি ও তথ্যসূত্র যোগ)
'''বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির''' বাংলাদেশের একটি ছাত্র সংগঠন। আদর্শিকভাবে এটি ইসলামী রাজনৈতিক দল [[বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী|বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর]] সাথে সংযুক্ত। এই দলটির পূর্বতন নাম ছিল পাকিস্তান ছাত্র সংঘ।{{cn}} ১৯৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের সময়ে দলটি সক্রিয়ভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতা করে এবং বুদ্ধিজীবী হত্যাসহ নানা যুদ্ধাপরাধে অংশ নেয়।{{cn}} বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরে দলটি নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়। ১৯৭৭ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি [[ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়|ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের]] কেন্দ্রীয় [[মসজিদ|মসজিদে]] শিবির পুনরায় প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন জনাব [[মীর কাশেম আলী।আলী]]।
{{pov}}
 
{{onesource}}
==লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য==
'''বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির''' বাংলাদেশের একটি ছাত্র সংগঠন। আদর্শিকভাবে এটি ইসলামী রাজনৈতিক দল [[বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী|বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর]] সাথে সংযুক্ত। এই দলটির পূর্বতন নাম ছিল পাকিস্তান ছাত্র সংঘ।{{cn}} ১৯৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের সময়ে দলটি সক্রিয়ভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতা করে এবং বুদ্ধিজীবী হত্যাসহ নানা যুদ্ধাপরাধে অংশ নেয়।{{cn}} বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরে দলটি নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়। ১৯৭৭ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে শিবির পুনরায় প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন জনাব মীর কাশেম আলী।
শিবিরের [[সংবিধান]] অনুযায়ী এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে, ”[[আল্লাহ]] প্রদত্ত ও [[রাসূল]] (সা.) প্রদর্শিত বিধান অনুযায়ী মানুষের সার্বিক জীবনের পুনবির্ন্যাস সাধন করে আল্লাহর সন্তোষ অর্জন।”<ref>http://shibir.org.bd/page/content/3</ref>
 
==ভিশন==
সমৃদ্ধ [[বাংলাদেশ]] গড়ার লক্ষে সৎ, দক্ষ ও [[দেশপ্রেমিক]] [[নাগরিক]] তৈরি ।<ref>http://shibir.org.bd/page/content/71</ref>
 
==কর্মসূচী ==
শিবির পাঁচদফা [[কর্মসূচি]] নিয়ে কাজ করছে।<ref>http://shibir.org.bd/page/content/6</ref>
 
এক. দাওয়াত : তরুণ ছাত্রসমাজের কাছে ইসলামের আহবান পৌঁছিয়ে তাদের মাঝে ইসলামী জ্ঞানার্জন এবং বাস্তব জীবনে ইসলামের পূর্ণ অনুশীলনের দায়িত্বানুভূতি জাগ্রত করা।
 
দুই. সংগঠন : যেসব ছাত্র ইসলামী জীবন বিধান প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে অংশ নিতে প্রস্তুত, তাদেরকে সংগঠনের অধীনে সংঘবদ্ধ করা।
 
তিন. প্রশিক্ষণঃ এই সংগঠনের অধীনে সংঘবদ্ধ ছাত্রদেরকে ইসলামী জ্ঞান প্রদান এবং আদর্শ চরিত্রবানরূপে গড়ে তুলে জাহেলিয়াতের সমস্ত চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় [[ইসলাম|ইসলামের]] শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করার যোগ্যতাসম্পন্ন কর্মী হিসেবে গড়ার কার্যকরী ব্যবস্থা করা।
 
চার. ইসলামী [[শিক্ষা]] আন্দোলন ও ছাত্র সমস্যা: আদর্শ নাগরিক তৈরির উদ্দেশ্যে ইসলামী মূল্যবোধের ভিত্তিতে শিক্ষাব্যবস্থার পরিবর্তন সাধনের দাবিতে সংগ্রাম এবং ছাত্রসমাজের প্রকৃত সমস্যা সমাধানের সংগ্রামে নেতৃত্ব প্রদান।
 
পাঁচ. ইসলামী সমাজ বিনির্মাণ : অর্থনৈতিক শোষণ, রাজনৈতিক নিপীড়ন এবং সাংস্কৃতিক গোলামী হতে মানবতার মুক্তির জন্য ইসলামী সমাজ বিনির্মাণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালানো।
 
==সংবিধান==
ছাত্রশিবিরের সাংগঠনিক সংবিধানে রয়েছে ৫০টি ধারা ও ৩ টি অধ্যায়।
 
==নেতৃত্ব==
বর্তমানে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ দেলাওয়ার হোসেন<ref>http://shibir.org.bd/page/content/16</ref> এবং সেক্রেটারি জেনারেল মোঃ আব্দুল জব্বার।
 
==কাঠামো==
যারা শিবিরে অন্তর্ভক্ত হয় তাদেরকে ৪ টি স্তরে বিভক্ত করা হয় যথা সমর্থক, কর্মী, সাথী ও সদস্য।
 
==যোগাযোগ==
যোগাযোগ<ref>http://shibir.org.bd/page/content/68</ref>
কেন্দ্রীয় কার্যালয়
বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির
৪৮/১-এ, পুরানা পল্টন,
ঢাকা-১০০০,
বাংলাদেশ।
টেলিফোনঃ +৮৮০২-৯৫৫০৫৩৮, +৮৮০২-৯৫৬৬৪৪০
ই-মেইলঃ info@shibir.org.bd
 
 
== বহিঃসংযোগ ==
* {{official|http://www.shibir.org.bd}}
৬১টি

সম্পাদনা