বায়ারফ্রিঞ্জেন্স

ছক কাগজের ওপর রাখা একটি ক্যালসাইট স্ফটিকের যুগ্ন প্রতিসরণ
ক্যালসিয়েট স্ফটিকে প্রস্ফুটন এবং বায়ারফ্রিঞ্জেন্স যখন লেজারের একটি মরিচী দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়

বায়ারফ্রিঞ্জেন্স হলো কোনো বস্তুর প্রতিসরাঙ্ক থাকার একটি আলোকিক বৈশিষ্ট্য যা সমবর্তন এবং আলোর বিস্তারের দিকের ওপর নির্ভর করে।[১] এই আলোকিক ধারণার বস্তুগুলিকে বলা হয় বায়ারফ্রিঞ্জেন্ট (বা বায়ারফ্র‍্যাক্টিভ)। বায়ারফ্রিঞ্জেন্সকে প্রায়সই বস্তুর প্রতিসরণাঙ্কের সর্বোচ্চ পার্থক্যের ভিত্তিতে গণনা করা হয়। প্রায়শই অ-ঘনকাকৃতির স্ফটিকের গঠন গঠন সম্পন্ন স্ফটিকগুলি বায়ারফ্রিঞ্জেন্ট হয়, যেমন যান্ত্রিক পীড়নের অধীন প্লাস্টিক

বায়ারফ্রিঞ্জেন্স যুগ্ন প্রতিসরণের কারণ যাদ্দারা, বায়ারফ্রিঞ্জেন্ট বস্তুর আপতিত কোনো আলোক রশ্মি কিছুটা ভিন্ন রাস্তা বেছে নেয় এবং দুইটি রশ্মিতে বিভক্ত হয়ে যায়। এই ক্রিয়াটি ১৬৬৯ সালে একজন ডেনিস বিজ্ঞানি র‍্যাসমুস বারটালিন কতৃক প্রথম বর্ণিত হয়, যিনি অন্যতম সবচেয়ে শক্তিশালী বায়ারফ্রিঞ্জেন্স সম্পন্ন ক্যালসাইট স্ফটিকে ইহা পর্যবেক্ষণ করেন।[২] যদিও, ১৯ শতকের আগে অগাস্টিন-জিন ফ্রিনেল কতৃক মেরুকরণের মাধ্যমে, আলোকে অনুপ্রস্থ মেরুকরণ (তরঙ্গ ভেক্টরের দিকের সাথে উল্লম্ব) ক্ষেত্র সম্পন্ন তরঙ্গ হিসেবে উপলব্ধি করা এর ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি।

ব্যাখ্যাসম্পাদনা

 
আপতিত আলোক রশ্মি সমান্তরাল সমবর্তন এবং উলম্ব সমবর্তনের ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন প্রতিসরণাঙ্কের সম্মুখীন হয় আর তাই তা ভিন্ন ভিন্ন কোনে প্রতিসরিত হয়।
 
ক্যালসিয়েট স্ফটিকের মাধ্যমে প্রত্যক্ষীকৃত যুগ্ন প্রতিসরিত চিত্র, একটি ঘূর্ণয়মান মেরূপ্রবণ ছাঁকনির মাধ্যমে প্রত্যক্ষীকৃত যা দুইটি ছবির বিপরীত মেরুকরণ দশাকে চিত্রিত করছে।

একাক্ষ বস্তুসম্পাদনা

সবথেকে সরল বায়ারফ্রিঞ্জেন্সকে একাক্ষ হিসেবে ব্যাখ্যা করা হয় যার অর্থ হলো, সেখানে আলোকিক ধারণার নিয়ন্ত্রনের জন্য শুধুমাত্র একটি অভিমূখ বিদ্যমান, যেহেতু এর উলম্ব সকল অভিমূখ (বা একটি নির্দিষ্ট কোনে) আলোকিকভাবে সমান। ফলে এর অক্ষ বরাবর ঘোরালেও এর আলোকিক বৈশিষ্টের পরিবর্তন হয় না। বস্তুটির এই বিশেষ অভিমুখ, আলোক অক্ষ হিসেবে পরিচিত। আলোক অক্ষের সমান্তরালে বিস্তৃত আলোক রশ্মিটি (যার সমবর্তন আলোক অক্ষের সাথে উলম্ব) ইহার বৈশিষ্ট্যসূচক সমবর্তন নির্বিশেষে একটি প্রতিসরণাঙ্ক কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত হয়। ভিন্ন দিকে বিস্তৃত রশ্মির ক্ষেত্রে একটি রৈখিক সমবর্তন থাকে যা অক্ষের সাথে উলম্ব হয় এবং এই সমবর্তন সম্পন্ন রশ্মিকে বলা হয় সাধারণ রশ্মি এবং এটিও সেই একই প্রতিসরণাঙ্ক কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত হয়।

দ্ব্যক্ষ বস্তুসম্পাদনা

তথাকথিত দ্ব্যক্ষ স্ফটিকের ক্ষেত্রে বিষয়টি যথেষ্ট কঠিন।[৩]

আরো দেখুনসম্পাদনা

টীকাসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Olympus Microscopy Resource Center"। Olympus America Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১১-১৩ 
  2. See:
  3. Landau, L. D., and Lifshitz, E. M., Electrodynamics of Continuous Media, Vol. 8 of the Course of Theoretical Physics 1960 (Pergamon Press), §79