বাভারীয় বিজ্ঞান ও মানববিদ্যা অ্যাকাডেমি

বাভারীয় বিজ্ঞান ও মানববিদ্যা অ্যাকাডেমি (জার্মান: Bayerische Akademie der Wissenschaften বায়ারিশে আকাডেমিয়ে ডের ভিসেনশাফটেন) জার্মানির মিউনিখে অবস্থিত একটি স্বশাসিত সরকারী প্রতিষ্ঠান। এখানে সে সকল পণ্ডিতদের নিযুক্ত করা কয় যারা তাদের নির্দিষ্ট বিষয়ে ইতোমধ্যে যথেষ্ট অবদান রেখেছেন। এই অ্যাকাডেমির সাধারণ লক্ষ্য নিজেদের মধ্যে আন্তঃশাস্ত্রীয় যোগাযোগ স্থাপন এবং বিভিন্ন বিষয়গুলিতে নিয়োজিত প্রতিনিধিদের সহযোগিতা প্রদান।

বাভারীয় বিজ্ঞান ও মানববিদ্যা অ্যাকাডেমি
Bayerische Akademie der Wissenschaften.jpg
বায়ারিশে আকাডেমিয়ে ডের ভিসেনশাফটেন
নীতিবাক্যজার্মান: Tendit ad aequum
প্রতিষ্ঠিত১৭৫৯
সভাপতিটোমাস হোলমান
অবস্থান
আলফোন্স-গোপেল-ষ্ট্রাসে . ১১
, , ,
জার্মানি
স্থানাঙ্ক৪৮°০৮′৩০″ উত্তর ১১°৩৪′৫০″ পূর্ব / ৪৮.১৪১৬৭° উত্তর ১১.৫৮০৫৬° পূর্ব / 48.14167; 11.58056স্থানাঙ্ক: ৪৮°০৮′৩০″ উত্তর ১১°৩৪′৫০″ পূর্ব / ৪৮.১৪১৬৭° উত্তর ১১.৫৮০৫৬° পূর্ব / 48.14167; 11.58056
ওয়েবসাইটbadw.de

ইতিহাসসম্পাদনা

১৭৫৮ সালের ১২ অক্টোবর আইনজীবী ইয়োহান গেয়র্গ ফন লোরি (১৭২৩-১৭৮৭) মিউনিখের কোয়েনেজ অ্যান্ড মাইনিং কলেজের প্রিভি কাউন্সিলর বাভারিয়া বিদ্বান সমাজ (Bayerische Gelehrte Gesellschaft) প্রতিষ্ঠা করেন।[১] ১৭৬৯ সালের ২৮ মার্চ বাভারিয়ার নির্বাচক ম্যাক্সিমিলিয়ান তৃতীয় জোসেফ বাভারীয় বিজ্ঞান ও মানববিদ্যা অ্যাকাডেমির নেতৃত্ব দেন। প্রথম সভাপতি ছিলেন সিগমুন্ড ফন হাইমহাউসন। অ্যাকাডেমির ভিত্তি দলিলে বিশেষভাবে পূর্ববর্তী বিদ্বান সমাজ পার্নাসুস বোইকুসের (বাভারিয়ান মাউন্টেন মিউস) উল্লেখ ছিল।[১]

বাভারীয় বিজ্ঞান ও মানববিদ্যা অ্যাকাডেমি মূলত দুটি বিভাগে বিভক্ত, ইতিহাস (Historische Klasse, হিস্টোরিশে ক্লাসে) এবং দর্শনশাস্ত্র (Philosophische Klasse, ফিলোজোফিশে ক্লাসে); গণিতপদার্থবিজ্ঞানসহ প্রাকৃতিক বিজ্ঞান দর্শনশাস্ত্রের অংশ হিসাবে বিবেচিত হত। তবে দর্শনশাস্ত্র ও ইতিহাসের শ্রেণী বর্তমানে গণিত ও প্রাকৃতিক বিজ্ঞান থেকে পৃথক করা হয়েছে।

সদস্যসম্পাদনা

প্রতিটি শ্রেণী সাধারণত ৪৫ জন সদস্যে এবং সংশ্লিষ্ট সদস্যদের সংখ্যা ৮০ জনে সীমাবদ্ধ। তবে ৭০ বছর বা তার অধিক বয়সী সদস্যদের এই সীমার আওতায় আনা হয় না; পাশাপাশি সাধারণ সদস্যদের সংখ্যা ১২০ জন।

ইতিহাসে, অ্যাকাডেমির অনেক বিখ্যাত সদস্য রয়েছে, যার মধ্যে ইয়োহান ভল্ফগাং ফন গ্যোটে, গ্রিম ভ্রাতৃদ্বয়, টেওডোর মম্‌জেন, আন্থিমস গাজিস, আলেকজান্ডার এবং ভিল্‌হেল্ম ফন হুম্বোল্ট, কার্ট সেটে, মাক্স প্লাংক, অটো হান, আলবার্ট আইনস্টাইন, মাক্স ভেবার, ভের্নার কার্ল হাইজেনবের্গ এবং আডল্‌ফ বুটেনান্ড্‌ট

সভাপতিসম্পাদনা

প্রথম সভাপতি ছিলেন মিন্ট ও মাইনিং কমিশনের চেয়ারম্যান সিগমুন্ড,কাউন্ট অফ হিমহাউসন। ফ্রাইড্রিক হেনরিচ জ্যাকবেরি, ফ্রেডরিক উইলহেল ভন শিলিং, জাস্টাস ভন লিবিগ, ইগনাজ ভন ডোলিংগার, ম্যাক্স ভন পেটেনকফফার এবং ওয়ালথার মেইসনারও সভাপতিদের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ছিলেন।

বর্তমানে সভাপতি প্রফেসর ডক্টর থমাস ও হোলমান

অ্যাকাডেমির কমিশনসম্পাদনা

দীর্ঘমেয়াদী প্রকল্পের জন্য অ্যাকাডেমি কমিশন গঠন করে থাকে। বর্তমানে ৩৭টি কমিশন কার্যকর রয়েছে এবং এতে ৪৫০ জনের অধিক ব্যক্তি কাজ করছে।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

উদ্ধৃতিসমূহ

  1. Geschichte: Bayerische Akademie der Wissenschaften

সোর্স

  • "Geschichte"। Bayerische Akademie der Wissenschaften। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-১২-১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা