বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাঠ

ঢাকার সাভারে অবস্থিত একটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১ নাম্বার গ্রাউন্ড (বিকেএসপি স্টেডিয়ামও বলা হয়ে থাকে) ঢাকার সাভারে অবস্থিত একটি স্টেডিয়াম। এ স্টেডিয়ামে অনেক ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে ২০০৪ সালের আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গ্রাউন্ড
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলি
অবস্থানসাভার, ঢাকা
দেশবাংলাদেশ
প্রতিষ্ঠা১৯৮৯
ধারণক্ষমতা২,০০০
স্বত্ত্বাধিকারীবাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড
ভাড়াটেবাংলাদেশ
প্রান্তসমূহ
নাই
আন্তর্জাতিক খেলার তথ্য
ঘরোয়া দলের তথ্য
বাংলাদেশ (২০০০-)
বিমান বাংলাদেশ (২০০০-২০০১)
উৎস: cricinfo

ভ্যানুটি ২০১৪ সালের আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপের সময় নারীদের অনুশীলন ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও এখানে ২০১৩-১৪ ও ২০১৪-১৫ এর ঢাকা প্রিমিয়ার লীগের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। [১][২]

ইতিহাস

সম্পাদনা

১ নং গ্রাউন্ডটি ২০০০ সালে বাংলাদেশের ঘরোয়া প্রতিযোগিতার জন্য ব্যবহৃত চারটি মাঠের মধ্যে প্রথম এবং এটিই প্রথম। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সহায়তায় অন্য তিনটি মাঠের সুবিধাগুলো উন্নয়ন করা হয়েছে। [৩] গ্রাউন্ড ২, ৩ এবং ৪ এখন নিয়মিতভাবে প্রথম-শ্রেণীর এবং লিস্ট এ ক্রিকেটের জন্য ব্যবহৃত হয়। ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় তারা নিরপেক্ষ মাঠ হিসেবে কাজ করে।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১ নং মাঠ

সম্পাদনা

বিকেএসপি কমপ্লেক্সের মূল প্রবেশপথের ঠিক ভিতরে ডানদিকে অবস্থিত, বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নং 1 মাঠটি ১৯৮০ এর দশকের শেষ দিক থেকে চালু রয়েছে। এটি প্রথম ১৯৯৬ সালে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন সিনিয়র সীমিত ওভারের টুর্নামেন্টে ম্যাচ মঞ্চস্থ করে। এই প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ ১৯৯৪ সালে এসেছিল: উইলস ইন্টারন্যাশনাল কাপের জন্য তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ। [৪]

প্রথম -শ্রেণীর ম্যাচগুলি ২০০০-০১ সালে জাতীয় ক্রিকেট লিগ ছিল, যখন মাঠটি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের হোম গ্রাউন্ড হিসাবে ছিলো। এখন পর্যন্ত শেষ প্রথম-শ্রেণীর ম্যাচগুলি ছিল ২০০৯-১০ সালে। বাংলাদেশ এ ক্রিকেট দল ২০০১-০২ সালে সফরকারী পাকিস্তানিদের বিরুদ্ধে এবং ২০০৫-০৬ সালে শ্রীলঙ্কা এ-এর বিরুদ্ধে প্রথম-শ্রেণীর ম্যাচ খেলেছে। [৫] ২০০০-০১ সালে জাতীয় ক্রিকেট লিগ ওয়ানডে প্রথম লিস্ট এ ম্যাচ ছিল চারটি। সর্বশেষ ছিল ১০০৮-০৯ সালে।

সব মিলিয়ে মাঠটিতে ১০টি প্রথম-শ্রেণীর এবং ১০টি লিস্ট এ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২ নং মাঠ

সম্পাদনা
বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১নং মাঠ
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলি
অবস্থানসাভার, ঢাকা
দেশবাংলাদেশ
আন্তর্জাতিক খেলার তথ্য
প্রথম নারী ওডিআই১৭ নভেম্বর ২০১১:
পাকিস্তান   বনাম   ওয়েস্ট ইন্ডিজ
সর্বশেষ নারী ওডিআই২৬ নভেম্বর ২০১১:
বাংলাদেশ   বনাম   আয়ারল্যান্ড
২ সেপ্টেম্বর ২০২০ অনুযায়ী
উৎস: গ্রাউন্ড প্রোফাইল

বাকি তিনটি মাঠ বিকেএসপি কমপ্লেক্সের আরও ভেতরে অবস্থিত। বড় ঘরোয়া প্রতিযোগিতার ম্যাচগুলি ছাড়াও, সমস্ত মাঠ ছোট ম্যাচের জন্য নিয়মিত ব্যবহার করা হয়।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নং 2 গ্রাউন্ড ২০০৬ সালে তার প্রথম ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর এবং লিস্ট এ ম্যাচ আয়োজন করে। ২০১০ সালে সেখানে দুটি প্রথম-শ্রেণীর ম্যাচও খেলেছে বাংলাদেশ এ। ২০১৪-১৫:মৌসুমের শেষ অবধি গ্রাউন্ডটি ১৯টি প্রথম-শ্রেণীর, ২১;টি লিস্ট এ এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ মঞ্চস্থ করেছে। ২০১১ সালে এটিতে মহিলা ক্রিকেট বিশ্বকাপ জন্য বাছাইপর্বের সিরিজেও তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। [৬]

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৩ নং মাঠ

সম্পাদনা
বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১ নং মাঠ
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলি
অবস্থানসাভার, ঢাকা
দেশবাংলাদেশ
আন্তর্জাতিক খেলার তথ্য
প্রথম নারী ওডিআই১৪ নভেম্বর ২০১১:
আয়ারল্যান্ড   বনাম   ওয়েস্ট ইন্ডিজ
সর্বশেষ নারী ওডিআই২৪ নভেম্বর ২০১১:
আয়ারল্যান্ড   বনাম   নেদারল্যান্ডস
২ সেপ্টেম্বর ২০২০ অনুযায়ী
উৎস: Ground Profiles

৩ এবং নং ৪ নং মাঠ, পাশাপাশি অবস্থিত, তাদের সুবিধাগুলি ভাগ করে নেয়। প্রতিটির ভিড় ধারণক্ষমতা প্রায় ২০০০। [৭] প্রথমদিকে, যখন লিস্ট এ ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ ২০১৩-১৪ সালে মাঠে খেলা হয়েছিল, তখন সুযোগ-সুবিধার মান খেলোয়াড়দের কাছ থেকে কিছু সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছিল। [৮]

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নং ৩ গ্রাউন্ডটি ২০১৩-১৪ সাল থেকে ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর এবং বিশেষ করে লিস্ট এ ক্রিকেটের জন্য ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ব্যবহৃত অন্যতম প্রধান মাঠ। ২০১৬-১৭ মৌসুমের শেষ অবধি গ্রাউন্ডে ১৭টি প্রথম-শ্রেণীর এবং ৯৯টি লিস্ট এ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০১১ সালে এটি মহিলা বিশ্বকাপের জন্য বাছাইপর্বের সিরিজেও দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

২০১৩-১৪ সালে, রাজশাহী বিভাগ, প্রথমে ব্যাট করে, ৭৭ রানে তাদের প্রথম ছয় উইকেট হারায় কিন্তু ৯ উইকেটে ৬৭৫ রানে ঘোষণা করে শেষ করে। ফরহাদ রেজা ২৫৯ রান করেন। [৯] ২০১৪-১৫ সালে, মোসাদ্দেক হোসেন 3 নম্বর গ্রাউন্ডে ২৫০ করেছিলেন, [১০] তারপর পাঁচ দিন পরে ২ নম্বর গ্রাউন্ডে ২৮২ রান করেছিলেন। [১১] শুভাগত হোম ২০১৪-১৫ সালে মাঠে চট্টগ্রাম বিভাগের বিপক্ষে ঢাকা বিভাগের হয়ে ম্যাচে ছয়টি ক্যাচ নিয়ে জাতীয় লিগের রেকর্ডের সমান করেন। [১২]

সেপ্টেম্বর ২০১৫:সালে বিকেএসপি ৩ এবং ৪ গ্রাউন্ডে শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য ICRC আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। [১৩]

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৪ নং মাঠ

সম্পাদনা

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ৪ নং গ্রাউন্ড ২০১৩-১৪ সালে দুটি প্রথম-শ্রেণীর ম্যাচ এবং ২০১৬-১৭ সালে একটি এবং ৩৬টি লিস্ট এ ম্যাচ মঞ্চস্থ করেছে। এটি ২০১৬-১৭ ঢাকা প্রিমিয়ার বিভাগের জন্য নির্বাচিত তিনটি মাঠগুলির মধ্যে একটি ছিল, যখন এটি ২৭টি লিস্ট এ ম্যাচ মঞ্চস্থ করেছিল। এই মাঠে প্রথম প্রথম শ্রেণির ম্যাচে জাতীয় ক্রিকেট লিগে ঢাকা বিভাগ প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ৭৫৬ রান করে ঘোষণা করে, জাতীয় লিগে রেকর্ড মোট চার ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি করেন। ম্যাচটি ড্রতে শেষ হয় যখন রাজশাহী বিভাগ জয়ের জন্য ৬০৬ রান করে, তাদের শেষ উইকেট জুটি শেষ ৮.২ ওভারে খেলার ৯ উইকেট ২৭২ রানে শেষ করে। [১৪]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "First-Class Matches played on Bangladesh Krira Shikkha Protisthan Ground, Savar"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১০ 
  2. "List A Matches played on Bangladesh Krira Shikkha Protisthan Ground, Savar"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১০ 
  3. Shafiur, Rahman (১৯ জুন ২০১৩)। "BCB, BKSP sign deal for two new grounds"Dhaka Tribune। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৫ 
  4. "Other matches played on Bangladesh Krira Shikkha Protisthan Ground, Savar"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  5. "First-class matches played on Bangladesh Krira Shikkha Protisthan Ground, Savar"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  6. "ICC Women's World Cup Qualifying Series 2011–12"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  7. "BKSP, Savar"icc-cricket.com। ২২ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৫ 
  8. Khan, Minhaz Uddin। "Tamim criticizes BKSP facilities"Dhaka Tribune। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০১৭ 
  9. "Chittagong Division v Rajshahi Division 2013–14"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  10. "Barisal Division v Rangpur Division 2014–15" Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  11. "Barisal Division v Chittagong Division 2014–15" Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  12. "Most Catches by a Fielder in a Match in Bangladesh National Cricket League matches"Wisden Records। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  13. Sarker, Md. Abu Talha (১১ সেপ্টেম্বর ২০১৫)। "International T20 cricket starts for the disabled"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ১৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  14. "Dhaka Division v Rajshahi Division 2013–14"Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা