বসুন্ধরা দোরাস্বামী

বসুন্ধরা দোরাস্বামী (জন্ম ১৯৪৪) ভারতের মহীশূরে আবস্থিত বসুন্ধরা পারফর্মিং আর্টস সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালিকা। তিনি একজন দক্ষ ভরতনাট্যম নৃত্যশিল্পী, নৃত্যপরিচালক কোরিওগ্রাফার এবং সম্মানিত গুরু, যিনি গত ছয় দশক ধরে নৃত্যের এই রূপটিতে উচ্চ স্তরের অবদান রেখে আসছেন। তিনি অষ্টাঙ্গ বিন্যাস যোগের শৃঙ্খলায় প্রয়াত শ্রী পট্টবি জৈসের [১] অন্যতম অনুগামী শিষ্য এবং তিনি বসুন্ধরা ধাঁচে নিজস্ব উপধারা বিকাশ করেছেন।

বসুন্ধরা দোরাস্বামী

প্রাথমিক জীবন সম্পাদনা

বসুন্ধরা দোরাস্বামী ১৯৪৪ সালে কর্ণাটকের দক্ষিণ কানারার মোড়বিদ্রিতে পি নাগরাজ এবং শ্রীমতি বরদা দেবী দম্পতির ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি মুরলিধর রাওয়ের নেতৃত্বে [২] অল্প বয়সেই ভরতনাট্যমের সাথে পরিচিত হন এবং [২] এবং রাজ্য স্তরের প্রতিযোগিতায় ৫ বছর বয়সে স্বর্ণপদক জিতেছিলেন। বসুন্ধরা তাঁর নিবেদিত প্রশিক্ষণের কারণে কর্ণাটক মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত বিদ্বথ পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেছিলেন এবং টানা তিনবার স্বর্ণপদক লাভ করেছিলেন। [৩] তিনি প্রয়াত শ্রী এইচ.এস. দোরাস্বামীর সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন [১] এবং তাঁর একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

কর্মজীবন সম্পাদনা

১৯৮৮ সালে বসুন্ধরা দোরাস্বামী যোগ ও ভরতনাট্যমের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্কের বিষয়ে নিজের [৪] পিএইচ ডি অর্জন করেছিলেন।  তিনি ফোকলোরে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন এবং 'তাং-টা' ও' কালারিপায়াত্তু' [৫] মার্শাল আর্টের একজন অনবদ্য উদ্গাতা। এটি তাঁর নৃত্যের একাধিক শাখার জ্ঞানের পদ্ধতির সন্ধানে [৬] সহযোগিতা করে। ড. বসুন্ধরা দোরাস্বামী যোগ ও নৃত্যের পারস্পরিক সম্পর্কের উপর "নাট্য যোগ দর্শন" নামক একটি গ্রন্থ প্রকাশ করেছেন। [৭]

পুরস্কার ও সম্মাননা সম্পাদনা

ড. বসুন্ধরাকে কর্ণাটক রাজ্য সরকার নৃত্যের জন্য সর্বোচ্চ রাজ্য পুরস্কার "নাট্য রানী শান্তলা" পুরস্কার [৮] এবং রাজ্যোৎসব পুরস্কারে [কর্ণাটক রাজ্য] ভূষিত করা হয়েছিল । তিনি আজ অবধি কর্ণাটক সংগীত নৃত্য একাডেমীর সম্মানজনক পুরস্কার "কর্ণাটক কলা তিলক" এর কনিষ্ঠ প্রাপক [৯] এবং উড়ুপির শ্রী কৃষ্ণ মুট থেকে "আাস্থানা নৃত্য রত্ন" প্রাপ্ত একমাত্র নৃত্যশিল্পী। তিনি দূরদর্শন ভারত কর্তৃক "চন্দনা পুরস্কার", পদ্ম ভূষণ সরোজা বৈদ্যনাথন (নয়াদিল্লি) এর "শ্রেষ্ঠ কলা প্রচারক",[১০] পদ্ম বিভূষণ শ্রী বালামুরালী কৃষ্ণ (চেন্নাই), নাট্য জ্যোতি [অস্ট্রেলিয়া] কর্তৃক "কালা বিপঞ্চি" পদকে ভূষিত হয়েছে। [১১] 

দূরদর্শনে তিনি একজন এ-গ্রেড বা ১ম স্তরের শিল্পী [৯]

তিনিই একমাত্র ভরতনাট্যম নাট্যচঞ্চল, যিনি ইউনেস্কোর নেতৃত্বে প্যারিসে 'ওয়ার্ল্ড পিসিই' সম্মেলনে অংশ নিতে ভারত থেকে আমন্ত্রিত হয়েছিলেন, যেখানে ১৩৭ টি দেশের প্রতিনিধিত্বকারী ২৫০০ জন ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। [১২]

গ্রন্থপঞ্জি সম্পাদনা

  • নাট্য যোগ দর্শন, বসুন্ধরা দোরাস্বামী কর্তৃক যোগ ও নৃত্যের পারস্পরিক সম্পর্কের উপর প্রকাশিত

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. Nathan, Archana। "The sacred framework"। The Hindu। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৬ 
  2. Kamath, Ganesh। "Moodbidri's grand old building that served as court slinking into oblivion"daijiworld.com। daijiworld। ২১ আগস্ট ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৫ 
  3. Cavale, Sangeetha। "Yoga and the energy of dance"Times। Times of India। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০০২ 
  4. Malini, Nair। "Fit to dance"The Crest Edition। Times of India। ৮ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  5. Kumar, Sujit Chandra। "When the body becomes all eyes"Deccan Chronicle। DC। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. "Tapping yoga for creativity"The Hindu। The Hindu Newspaper। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০১০ 
  7. "An Invaluable treasure for Classical Dance"Big News Live। Big News Live। ১৬ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৫ 
  8. "Kannada Being Suppressed: URA"। Indian Express। The New Indian Express। ২৪ মে ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  9. Nathan, Archana। "The sacred framework"। The Hindu। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৬ 
  10. "'Shreshta Kala Pracharak' award to Vasundhara"। Bangalore First। ১৫ এপ্রিল ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৬ 
  11. Ganga, Madappa। "attendance Annual Dance Awards"। Alliance Française de Bangalore। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৪ 
  12. Paul, George। "VASUNDHARA MAKES HISTORY BY PERFORMING AT THE UNESCO"narthaki। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০০৩