বব ম্যাকলিওড

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

রবার্ট উইলিয়াম ম্যাকলিওড (ইংরেজি: Bob McLeod; জন্ম: ১৯ জানুয়ারি, ১৮৬৮ - মৃত্যু: ১৫ জুন, ১৯০৭) ভিক্টোরিয়ার স্যান্ড্রিজ (বর্তমানে পোর্ট মেলবোর্ন) এলাকায় জন্মগ্রহণকারী অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন। ১৮৯২ থেকে ১৮৯৩ সময়কালে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের পক্ষে ছয়টি টেস্টে অংশগ্রহণ করেন।

বব ম্যাকলিওড
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরবার্ট উইলিয়াম ম্যাকলিওড
জন্ম(১৮৬৮-০১-১৯)১৯ জানুয়ারি ১৮৬৮
স্যান্ড্রিজ, ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু১৫ জুন ১৯০৭(1907-06-15) (বয়স ৩৯)
মিডলপার্ক, ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
সম্পর্কচার্লি ম্যাকলিওড (ভ্রাতা)
ড্যানিয়েল ম্যাকলিওড (ভ্রাতা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৬২)
১ জানুয়ারি ১৮৯২ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট২৪ আগস্ট ১৮৯৩ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৫৭
রানের সংখ্যা ১৪৬ ১৭০১
ব্যাটিং গড় ১৩.২৭ ২২.৩৮
১০০/৫০ ০/০ ১/৬
সর্বোচ্চ রান ৩১ ১০১
বল করেছে ১০৮৯ ৯২৮১
উইকেট ১২ ১৪১
বোলিং গড় ৩১.৮৩ ২২.৭২
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৫/৫৩ ৭/২৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/০ ৩৯/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১০ নভেম্বর ২০১৭

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রায় দশ বছর ভিক্টোরিয়ার প্রতিনিধিত্ব করেছেন বব ম্যাকলিওড। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতে মিডিয়াম বোলিং করতেন। পাশাপাশি বামহাতে ব্যাটিংয়েও পারদর্শিতা দেখিয়েছেন।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

ভিক্টোরিয়ার পোর্ট মেলবোর্নে জন্মগ্রহণ করেন। নরম্যান ম্যাকলিওড ও জানেট দম্পতির সন্তান তিনি। তার আরও চার ভাই ছিল।

১৩ ফেব্রুয়ারি, ১৮৮৩ তারিখে স্কচ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। ১৮৮৩ সালে ১ম বিশ দলের সদস্য হন ও ১৮৮৪ সালে অধিনায়ক মনোনীত হন। ১৮৮৩-৮৫ সময়কালে ১ম এককাদশে খেলেন। স্কচ দলের পক্ষে ১০ ইনিংসে ৪৬১ রান তোলেন যা তৎকালীন সময়ে যে কোন স্কচ ছাত্রের চেয়ে বেশি ছিল। তন্মধ্যে ১৮৮৫ সালে মেলবোর্ন গ্রামার স্কুলের বিপক্ষে মনোরম ১৩১ রানের সেঞ্চুরি করেন। এ সেঞ্চুরিটি স্কচ ছাত্র কর্তৃক সরকারি বিদ্যালয়ের প্রথম ঘটনা ছিল। একই মৌসুমে ওয়েসলি কলেজের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত খেলায় ১১/৮৫ লাভ করেন।

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

১৮৯২ সালে মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত টেস্টের মাধ্যমে তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়। ১-৬ জানুয়ারি, ১৮৯২ তারিখে অনুষ্ঠিত ঐ টেস্টের প্রথম ইনিংসে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে পাঁচ-উইকেট দখল করে সবিশেষ কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখেন।[১] দ্বিতীয় ইনিংসে তার বোলিং পরিসংখ্যান ছিল ১/৩৯। এছাড়াও আট নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৪ ও ৩১ রান তোলেন। এরফলে অস্ট্রেলিয়া দল ৫৪ রানের ব্যবধানে জয়লাভে সমর্থ হয়।

১৮৯৩ সালে অস্ট্রেলিয়া দলের সদস্যরূপে প্রথম ও শেষবারের মতো ইংল্যান্ড সফরে যান। এ সফরে তিনি নিজের সহজাত ক্রীড়া প্রতিভাঅল-রাউন্ড নৈপুণ্য ইংরেজদের কাছে তুলে ধরেন। ১৭ গড়ে ৬৩৮ রান ও ২৪-এর অধিক রান খরচায় সাতচল্লিশ উইকেট সংগ্রহ করেছিলেন।[২] কিন্তু নিজ দেশে তা করতে পারেননি।

বামহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে ছয় টেস্টে ১৩.২৭ গড়ে ১৪৬ রান তোলেন। ২৪-২৬ আগস্ট, ১৮৯৩ তারিখে অনুষ্ঠিত ম্যানচেস্টার টেস্টই তার সর্বশেষ টেস্ট ছিল। নয় নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২ ও ৬ এবং চূড়ান্ত ইনিংসে ১/২১ পান।

অবসরসম্পাদনা

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর নেয়ার পর দল নির্বাচক, দলীয় ম্যানেজার, কমিটির সদস্যসহ ভিক্টোরিয়ান ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি মনোনীত হন। ১৯০৭ সালে ভিক্টোরিয়ান ফুটবলের লীগে মেলবোর্ন ক্রিকেট ক্লাবের প্রতিনিধি হিসেবে এইচসিএ হ্যারিসনের স্থলাভিষিক্ত হন।

ক্রীড়া প্রশাসনে নিবেদিতপ্রাণ ছিলেন বব ম্যাকলিওড। ১৫ জুন, ১৯০৭ তারিখ রাত দুইটায় ভিক্টোরিয়ার মিডল পার্কে ৩৯ বছর বয়সে তার দেহাবসান ঘটে।[৩] তার ভ্রাতা চার্লি ম্যাকলিওড অস্ট্রেলিয়ার দলের পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। তার তুলনায় নিজ ভাই বেশ সুপরিচিত ছিলেন। ১৮৯৯ ও ১৯০৫ সালে তার ভাই ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "1st Test: Australia v England at Melbourne, Jan 1-6, 1892"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১২-১৮ 
  2. profile of Bob Mcleod at Wisden Cricketers' Almanack
  3. Felix (২২ জুন ১৯০৭)। "Cricket: Death of R. W. M'Leod"The Australasian (Melbourne, Vic. : 1864 - 1946)। Melbourne, Vic.: National Library of Australia। পৃষ্ঠা 23। সংগ্রহের তারিখ ২৮ অক্টোবর ২০১৪ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা