ফ্রেডেরিক বারোজ

ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ

স্যার ফ্রেডারিক জন বারুজ জি.সি.এস.আই, জি.সি.আই.ই (১৮৮৭–১৯৭৩),[১] ঔপনিবেশিক শাসন কালে একজন ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসাক ও ১৯শে ফেব্রুয়ারি ১৯৪৬ থেকে ১৪ই আগস্ট ১৯৪৭ সাল পর্যন্ত বাংলার সর্বশেষ গভর্নর ছিলেন।[২] স্যার ফ্রেডারিক বারুজ বঙ্গভঙ্গের বিপক্ষে ছিলেন। স্যার ফ্রেডারিক বারুজ সাবেক রসরেলওয়ের কর্মচারী ছিলেন এবং তিনি  ইংল্যান্ডের সাবেক ন্যাশনাল ইউনিয়ন অব রেলওয়েম্যান তথা রেলওয়ে শ্রমিকদের সভাপতি ছিলেন।

স্যার আদ্রিয়ান কার্টন ডি বিয়ার্টের রেকর্ড অনুসারে: "তিনি তাঁর প্রথম বক্তৃতায় কলকাতার বুড়া সাহেবদের সঙ্গে হৃদ্যতা গড়ে তুলে ছিলেন যখন, পরোক্ষ ভাবে শুরুতেই বিনয়ী হয়ে, রেলওয়েতে বললেন 'যখন ভদ্রলোকেরা শিকার ও শুটিং করতেন আমিও তখন শিকার ও শুটিং করতাম'। তিনি বাংলার গভর্নর হয়েও আমার দিকে চেয়ে অনেক বেশি গর্বিত হলেন যেন প্রথম বিশ্বযুদ্ধের বিশেষ গার্ড প্রধানের চাইতেও বেশি।"[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Frederick Burrows : Oxford Biography Index entry"। ৪ ডিসেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০১৬ 
  2. "Welcome To The Rajbhavan, Kolkata"। ২১ জানুয়ারি ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০১৬ 
  3. Sir Adrian Carton de Wiart, Happy Odyssey, London: Jonathan Cape, 1950, p. 277.
রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
রিচার্ড ক্যাসি, ব্যারন ক্যাসি
বাংলার গভর্নর
১৯৪৬ ও ১৯৪৭
উত্তরসূরী
-