ফুয়াদ আল মুকতাদির

বাংলাদেশি গায়ক, সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক

ফুয়াদ আল মুক্তাদির (৬ আগস্ট ১৯৮০; সংক্ষেপে ফুয়াদ নামে পরিচিত) হলেন একজন বাংলাদেশি গায়ক, সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক।[১][২]

ফুয়াদ আল মুকতাদির
ধানমন্ডি ক্লাবে ফুয়াদ (বামে)
ধানমন্ডি ক্লাবে ফুয়াদ (বামে)
প্রাথমিক তথ্য
জন্মনামফুয়াদ আল মুকতাদির
জন্ম (1980-08-06) ৬ আগস্ট ১৯৮০ (বয়স ৪৩)
বিয়ানীবাজার, সিলেট, বাংলাদেশ
ধরনইলেকট্রনিকা, হিপ-হপ, টেকনো, অলটারনেটিভ রক, ইলেকট্রনিক রক, আম্বিয়েন্ট, ডাউনটেম্পো, R & B, ইলেকট্রোপপ, পপ র‍্যাপ, হিপ হাউজ
পেশারেকর্ড প্রযোজক, সঙ্গীতশিল্পী
বাদ্যযন্ত্রকী-বোর্ড, কণ্ঠ, গিটার, বেইজ গিটার, ড্রামস
কার্যকাল২০০৩–বর্তমান
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট

ফুয়াদ ১৯৮৮ সালে আট বছর বয়সে বাংলাদেশ ছেড়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চলে যান এবং ওখানে একটি জুনিয়র স্কুলে ভর্তি হন। তিনি সবসময় সঙ্গীত নিয়ে ব্যস্ত থাকতেন এবং অবশেষে ১৯৯৩ সালে তিনি একটি ব্যান্ড দল “যেফির” গঠন করেন মধু, হিমেল, শুমন এবং ফ্রেডকে সাথে নিয়ে। ১৯৯৯ সালে ব্যান্ড ভেঙে যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত তারা অনেকগুলো গান রেকর্ড করে। তারা যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক শহরের বাংলাদেশী বসবাসকারীদের জন্য দুইটি অ্যালবাম মায়া ১ এবং মায়া ২ বের করেন।

ক্যারিয়ার

সম্পাদনা

যেফির ব্যান্ড ছেড়ে আসার তার প্রথম রেকর্ড হল “রি-এভুলেশন”। অবস্কুর ব্যান্ডের কীবোর্ড বাদক সোহলে আজিজের সহায়তায় এই অ্যালবামটি বের হয়। এই অ্যালবামটিতে প্রধান গায়ক ও গৌণ গায়কের গাওয়া ১৪ টি গান অন্তর্ভুক্ত আছে। এই অ্যালবামে আসল গানের পাশাপাশি একই গানের রিমিক্স গান অন্তর্ভুক্ত আছে। লিটুর “সিলতি” অনীলা নাজ চৌধুরীর “ঝিলমিল”, আমরিন মুসার “ভ্রমর কইয়ো” এবং “মন চাইলে মন” এর রি-মিক্সড গান এই অ্যালবামে অন্তর্ভুক্ত আছে। ফুয়াদ’স ভ্যারিয়েশন নং. ২৫ প্রযোজিত হয় ২০০৬ সালে।[৩] ২০০৬ সালে এরপর জি-সিরিজ এবং আরশির ব্যনারে এই অ্যালবামে আরো দুইটি নতুন গান অন্তর্ভুক্ত করে পূর্বের অ্যালবামটি ভ্যারিয়েশন নং. ২৫.২ নামে পুনরায় বের করা হয়। এই অ্যালবামের কয়েকটি গানের নাম হলঃ পুনমের “নবীনা” রাজিব/ফুয়াদের “নিটোল পায়ে” এবং বাপ্পা মজুমদারের “কোন আশ্রয়”। ফুয়াদের “বন্য” অ্যালবামটি বের হয় ২০ জুলাই, ২০০৭ সালে জি-সিরিজের ব্যানারে। এই অ্যালবামের কয়েকটি গানের নাম হলঃ উপলের “তোর জন্য আমি বন্য”, ফুয়াদ/বিশপের “বন্য র‍্যাপ”, ফুয়াদের “জংলী”, দা-দুষ্ট নাম্বার” এবং নিটোল পায়ে (লাইভ)। ফুয়াদ আরো কিছু অ্যালবামে কাজ করেছেন। যেমনঃ সুমন ও অনীলা’র “এখনো আমি”, তপুর (যাত্রী’র কন্ঠে) “বন্ধু হবে কি?”, ফুয়াদ ফিচারিং কনা, ফুয়াদ ফিচারিং মালা, ফুয়াদ ফিচারিং মিলা “রি-ডিফাইন্ড” এবং ফুয়াদ ফিচারিং বিভিন্ন শিল্পী “ক্রমান্বয়” বের হয় ২০০৮ সালের ডিসেম্বরে। তিনি শেরিন, অনীলা, সুমন, তপু এবং অন্যান্য শিল্পীদের বিভিন্ন একক ও মিক্সড অ্যালবামেও কাজ করেছেন।[৪]

ব্যক্তিগত জীবন

সম্পাদনা

ফুয়াদের পরিবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক শহরে স্বাস্থ্য সেবা সংক্রান্ত ব্যবসায় জড়িত।[২] ২০১১ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি ফুয়াদ মায়াকে বিয়ে করেন।[৫] তাঁর স্ত্রী মায়া, কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকর্ম বিষয়ে স্নাতক। ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ তে এই দম্পতির কন্যা আজালিয়া জন্মগ্রহণ করে।[৬][৭]

অ্যালবামের তালিকা

সম্পাদনা
  • মায়া (১৯৯৮)
  • মায়া ২ (১৯৯৯)
  • ক্রান্তি (২০০৩)
  • রি ইভোল্যুশন (২০০৪)
  • ভ্যারিয়েশন নং. ২৫ (২০০৬)
  • ভ্যারিয়েশন নং. ২৫.২ (২০০৬)
  • বন্য (২০০৭)

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Fuad Al-Muqtadir chats to Ameet"Bbc.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-১৭ 
  2. "ক্যানসারজয়ী ফুয়াদের গল্প"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-০৪ 
  3. "::: Star Weekend Magazine :::"www.thedailystar.net। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-০৪ 
  4. "Mega-hits of the band Feedback are getting a makeover"archive.thedailystar.net। ২০২০-০৭-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-০৪ 
  5. "বিয়ে নিয়ে বললেন ফুয়াদ"www.prothom-alo.com। ২০১১-০৫-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-০৪ 
  6. "বাবা হলেন সঙ্গীতশিল্পী ফুয়াদ"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-০৪ 
  7. "বাবা হলেন ফুয়াদ"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-০৪ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা