প্রধান মেনু খুলুন

ফাগুন হাওয়ায়

ভাষা আন্দোলনভিত্তিক বাংলা সিনেমা

ফাগুন হাওয়ায় তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ২০১৯ সালের বাংলাদেশী ঐতিহাসিক নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র। টিটো রহমানের বাংলা ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে লেখা গল্প বউ কথা কও অবলম্বনে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে।[১] ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেডের ব্যানারে ছবিটি প্রযোজনা করেন ফরিদুর রেজা সাগর এবং পরিবেশনা করে দি অভি কথাচিত্র। এতে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেছেন যশপাল শর্মা, নুসরাত ইমরোজ তিশা, সিয়াম আহমেদ, আবুল হায়াত, শহীদুল আলম সাচ্চুফজলুর রহমান বাবু

ফাগুন হাওয়ায়
ফাগুন হাওয়ায় চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpeg
ফাগুন হাওয়ায় চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকতৌকীর আহমেদ
প্রযোজক
চিত্রনাট্যকারতৌকীর আহমেদ
উৎসটিটো রহমান কর্তৃক 
বউ কথা কও
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকার
চিত্রগ্রাহকএনামুল হক সোহেল
সম্পাদকঅমিত দেবনাথ
প্রযোজনা
কোম্পানি
পরিবেশকদি অভি কথাচিত্র
মুক্তি
  • ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ (2019-02-15)
দৈর্ঘ্য১৩৬ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

কুশীলবসম্পাদনা

  • যশপাল শর্মা - জামশেদ, বদমেজাজের জন্য শাস্তি পেয়ে খুলনায় বদলি হয়ে আসা পাকিস্তানি পুলিশ কর্মকর্তা।
  • সিয়াম আহমেদ - নাসির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।
  • নুসরাত ইমরোজ তিশা - দীপ্তি, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী।[২][৩]
  • আবুল হায়াত - দীপ্তির ঠাকুরদাদা
  • আফরোজা বানু - নাসিরের মা
  • শহীদুল আলম সাচ্চু - আজমত, স্থানীয় মুসলিম লীগের নেতা।
  • ফজলুর রহমান বাবু - চন্দর, পুলিশ স্টেশনের ঝাড়ুদার।
  • রওনক হাসান - ওবায়েদ, আজমতের ভাই ও মুসলিম লীগের সদস্য।
  • সাজু খাদেম - মঞ্জু, নাসিরের খালাতো ভাই।
  • ফারুক আহমেদ - মৌলভী
  • নরেশ ভূইয়া
  • আজাদ সেতু
  • আবদুর রহিম
  • হাসান আহমেদ

নির্মাণসম্পাদনা

২০১৮ সালের ১০ মার্চ থেকে খুলনার পাইকগাছা উপজেলায় ছবিটির শুটিং শুরু হয়। পাইকগাছার রাড়ুলী গ্রামে এবং কে বি কে হরিশচন্দ্র কলেজিয়েট ইউনিস্টিটিউটে ছবিটির মঞ্চের দৃশ্য ধারণ করা হয়।[৪]

ছবিটির দীপ্তি চরিত্রের জন্য নুসরাত ইমরোজ তিশাকে চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করা হয়। তিশা পূর্বে তৌকীর আহমেদের হালদা (২০১৭) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তিনি শুটিং শুরুর দুই দিন পর খুলনায় চিত্রায়নে যোগ দেন।[৫]

প্রচারণাসম্পাদনা

২০১৮ সালের ১৬ই নভেম্বর এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ফাগুন হাওয়ায় ছবির প্রথম পোস্টার প্রকাশিত হয়। এই অনুষ্ঠানে প্রধান দুই অভিনয়শিল্পী নুসরাত ইমরোজ তিশাসিয়াম আহমেদ ১৯৫০-এর দশকের সাজসজ্জায় উপস্থিত ছিলেন।[৬] ২০১৯ সালের ১০ই জানুয়ারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে অবকাশ যাপন শেষে বাংলাদেশে ফিরে এসে ছবিটির পরিচালক তৌকীর আহমেদ ঢাকা শহরে ছবিটির প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন।[৭] ২০ই ফেব্রুয়ারি ইউটিউবে ছবিটির ট্রেলার প্রকাশিত হয়। এতে ১৯৫২ সালের সময়কে চিত্রিত হতে দেখা যায়।[৮]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "আসছে ভাষা আন্দোলনভিত্তিক চলচ্চিত্র 'ফাগুন হাওয়ায়'"দৈনিক জনকন্ঠ (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  2. "তৌকীরের ফাগুন হাওয়ায় তিশা"আরটিভি অনলাইন। ৮ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  3. "তিশা হলেন 'ফাগুন হাওয়া'-র নায়িকা"দ্য ডেইলি স্টার। ৯ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  4. হক, এনামুল (২০ মার্চ ২০১৮)। "'ফাগুন হাওয়ায়' ছবির রিহার্সেল থেকে..."দৈনিক ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  5. "তিশার নতুন ছবি 'ফাগুন হাওয়া'"দৈনিক মানবজমিন। ৯ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  6. রতন, আবু সুফিয়ান (১৭ নভেম্বর ২০১৮)। "'ফাগুন হাওয়ায়' সিয়াম ও তিশা"দৈনিক আমাদের সময়। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  7. "দেশে ফিরেই ফাগুন হাওয়ায় ছবির প্রচারণায় তৌকীর"দৈনিক যুগান্তর। ১৬ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  8. "'ফাগুন হাওয়ায়' ছবির ট্রেলার প্রকাশ"সারাবাংলা.নেট। ২০ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগসম্পাদনা