ফণিভূষণ চক্রবর্তী

ভারতীয় বিচারপতি

ফণিভূষণ চক্রবর্তী (১৮৯৮ - ৮ মে, ১৯৮১) ছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রথম ভারতীয় স্থায়ী প্রধান বিচারপতি ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপাল।[১]

ফণিভূষণ চক্রবর্তী
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের ৪তম রাজ্যপাল
কাজের মেয়াদ
৮ আগস্ট ১৯৫৬ – ৩ নভেম্বর ১৯৫৬
পূর্বসূরীহরেন্দ্রকুমার মুখোপাধ্যায়
উত্তরসূরীপদ্মজা নাইডু
কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি
কাজের মেয়াদ
১৯৫২ – ১৯৫৮
পূর্বসূরীআর্থার ট্রেভর হ্যারিস
উত্তরসূরীকুলদাচরণ দাশগুপ্ত
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৮৯৮
মৃত্যু৮ মে ১৯৮১(1981-05-08) (বয়স ৮২–৮৩)

কর্মকাণ্ডসম্পাদনা

ফণিভূষন ব্রিটিশ ভারতেজয়মন্টপে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯২৭ সালে আইনজীবী হিসেবে কলকাতা উচ্চ আদালতে যোগ দেওয়ার আগে তিনি ঢাকাজগন্নাথ কলেজকলকাতারিপন কলেজ ইংরেজির অধ্যাপক নিযুক্ত ছিলেন। ১৯৪৫ সালে তিনি হাইকোর্টের বিচারপতি হন। ১৯৫২ সালে ইংরেজ প্রধান বিচারপতি স্যার আর্থার ট্রেভর হ্যারিসের পরে তিনিই প্রথম ভারতীয় তথা বাঙ্গালী প্রধান বিচারপতির পদ অলংকৃত করেছিলেন। ১৯৫৬ সালে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল ডাঃ হরেন্দ্র কুমার মুখার্জীর মৃত্যুর পরে সাময়িক ভাবে রাজ্যপালের দায়িত্ব পালন করেন কয়েক মাস। ১৯৫৮ সালে কর্মজীবন থেকে অবসর নেন ফণিভুষণ চক্রবর্তী।[২]

রচনাসম্পাদনা

ফণিভূষণ সাহিত্য সংস্কৃতি জগতে সুপরিচিত ছিলেন। তার রচিত বই এর নাম মর্নিং ব্লসমস

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Office of the Official Liquidator"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  2. প্রথম খন্ড, সুবোধচন্দ্র সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু (২০০২)। সংসদ বাঙ্গালী চরিতাভিধান। কলকাতা: সাহিত্য সংসদ। পৃষ্ঠা ৩২২। আইএসবিএন 81-85626-65-0