প্রবাল চৌধুরী (জন্ম: ১৯৪৭ - মৃত্যু: ২০০৯) বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী। বিশ শতকের ষাটের দশক থেকে তিনি বাংলা সিনেমায় প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসেবে জনপ্রিয়তা লাভ করেন।

প্রবাল চৌধুরী
Probal Chowdhury.jpg
জন্ম১৯৪৭
মৃত্যু২০০৯
জাতীয়তাবাংলাদেশী
নাগরিকত্ববাংলাদেশ Flag of Bangladesh.svg
পরিচিতির কারণসংগীত শিল্পী

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

প্রবাল চৌধুরী ১৯৪৭ সালে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার বিনাজুরিত গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার অন্যান্য ভাই বোন কল্যাণী ঘোষ, উমা খান, স্বপন চৌধুরী, দেবী চৌধুরী ও পূর্ণিমা দাশ। কল্যাণী ঘোষ এবং উমা খান ও শিল্পজগতে যথেষ্ট পরিচিত।[১]

কর্মজীবনসম্পাদনা

কর্মজীবনে তিনি একজন সংগীতজ্ঞ ছিলেন।

সংগীত জীবনসম্পাদনা

১৯৬৬ সাল থেকে তিনি বাংলাদেশ বেতারে গান গাওয়া শুরু করেন। ক্লাসিক্যাল সঙ্গীত আর ভরাট কণ্ঠের অধিকারী এই শিল্পীকে আশির দশকে সঙ্গীতবোদ্ধারা অভিহিত করেছিলেন বাংলাদেশের হেমন্ত মুখোপাধ্যায় হিসেবে।[২] তার গাওয়া সোনা বউ চলচ্চিত্রের ‘আমি ধন্য হয়েছি ওগো ধন্য/তোমারি প্রেমেরই জন্য’ বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করে। এছাড়াও তার উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে আছে 'লোকে যদি মন্দ কয়, সেতো নহে পরাজয়', 'আরে ও প্রাণের রাজা, তুমি যে আমার' ইত্যাদি।

মৃত্যুসম্পাদনা

১৭ অক্টোবর, ২০০৯ তারিখ, শনিবার তিনি পরলোকগমন করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর।

পুরস্কার ও সম্মাননাসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. দৈনিক প্রথম আলো
  2. "শিল্পী প্রবাল চৌধুরী"। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১০-২৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা