পিয়ের দে গেটার

বেলজীয় সঙ্গীত রচয়িতা

পিয়ের খ্রিষ্টান দে গেটার (ফরাসি: Pierre Chretien De Geyter) (৮ই অক্টোবর, ১৮৪৮ - ২৬শে সেপ্টেম্বর, ১৯৩২) ছিলেন একজন বেলজীয় সমাজতন্ত্রী, যিনি পরবর্তীকালে সাম্যবাদী হয়েছিলেন। তিনি ছিলেন সুরকার ও গীতিকার এবং আন্তর্জাতিকের সুর দেয়ার জন্য বিখ্যাত ছিলেন।

পিয়ের দে গেটার
পিয়ের দে গেটার
পিয়ের দে গেটার
জন্ম৮ অক্টোবর, ১৮৪৮
মৃত্যু২৬ সেপ্টেম্বর, ১৯৩২

জীবনীসম্পাদনা

দ্য গিটার বেলজিয়ামের ঘেন্টে জন্মেছিলেন। তার পিতামাতা ছিলেন মূলত ফ্রান্সের ফ্ল্যান্ডার্স অঞ্চলের অধিবাসী কিন্তু বেলজিয়ামের টেক্সটাইল কারখানায় কাজ করতে এসেছিলেন। যখন তার সাত বছর বয়স, পরিবারের ৫ সন্তানসহ, পিতামাতা ফ্রান্সে ফিরে আসেন এবং লিলিতে স্থায়ী হন। সেখানে তিনি সুতা তৈরিকারী হিসেবে কাজ শুরু করেন এবং শ্রমিকদের বিকেলবেলার ক্লাসে লেখাপড়া শেখেন। ষোল বছর বয়সে তিনি তিনি লিলি একাডেমিতে ভর্তি হন যেখানে ড্রয়িং ক্লাসে অংশ নেন যেটা তাকে কাঠখোদাই শিল্পী হিসেবে কাজ পেতে সহায়তা করে। এরপর তিনি সংগীত ক্লাসেও পড়াশোনা করেন এবং ফরাসী শ্রমিক দলের লিলি অঞ্চলের স্থানীয় নেতা গুস্তাভ দেলোরির সৃষ্ট শ্রমিকদের গায়কদল "La Lyre des Travailleurs"-এ যোগ দেন।

১৫ জুলাই ১৮৮৮ তারিখে গুস্তাভ দেলোরি তাকে কিছু গান লিখতে ও সুর দিতে অনুরোধ করেন। এই গানগুলোর ভিতরে ছিলো ইউজিন পতিয়ের লেখা ‘আন্তর্জাতিক’। সেটি ছিল এক দীর্ঘ কবিতা। তার অংশবিশেষ নিয়ে তৈরি করা হয় সংগীত। সারা দুনিয়ায় প্রায় সকল ভাষায় এই সংগীত অনূদিত হয়েছে এবং গাওয়া হয় একই সুরে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা