পার্ল পদমসী

ভারতীয় অভিনেত্রী

পার্ল পদমসী (১৯৩১ – ২৪ এপ্রিল ২০০০) একজন ভারতীয় থিয়েটার ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তিনি থিয়েটারে অভিনেত্রী, পরিচালক, প্রযোজক হিসেবে কাজ করেছেন। তিনি মুম্বইয়ে ইংরেজি থিয়েটারের সাথে যুক্ত ছিলেন। পঞ্চাশের দশক থেকে শুরু করে নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত তিনি থিয়েটারের সাথে যুক্ত ছিলেন। থিয়েটারের বাইরে তিনি কিছু হিন্দিইংরেজি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছিলেন।[১] তার অভিনীত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল: খাট্টা মিঠা, জুনুন, বাতোঁ বাতোঁ মেঁ, কামসূত্র: এ টেল অব লাভ এবং সাচ আ লং জার্নি[২] তিনি ছোট শিশুদের জন্য স্কুল থিয়েটারও চালাতেন।[৩]

পার্ল পদমসী
পার্ল পদমসী.jpg
জন্ম১৯৩১
মৃত্যু২৪ এপ্রিল ২০০০
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাঅভিনেত্রী , থিয়েটার পরিচালক-প্রযোজক

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

পার্ল পদমসী ১৯৩১ সালে ব্রিটিশ ভারতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ছিলেন খ্রিষ্টান এবং তার মাতা ছিলেন ইহুদি

তার প্রথম স্বামী ছিলেন বাঙালি হিন্দু। চৌধুরী-পদমসী দম্পতির দুই সন্তান ছিল। তাদের ছেলে রঞ্জিত চৌধুরী একজন অভিনেতা। তাদের মেয়ের নাম ছিল রোহিণী চৌধুরী। তারা বেশি দিন সংসার করেন নি। তাদের বিবাহবিচ্ছেদের সময় তাদের সন্তানরা অল্পবয়স্ক ছিল।

এরপর তিনি কচ্ছদেশীয় এক খোজা মুসলমানের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তার দ্বিতীয় স্বামীর নাম ছিল আলিক পদমসী। আলিক পদমসীর নামের সাথে মিল রেখে তিনি নিজের নামের শেষে 'পদমসী' যুক্ত করেন এবং এই নামেই তিনি থিয়েটার দুনিয়ায় পরিচিত। আলিক পদমসী ইংরেজি থিয়েটার এর সাথে যুক্ত ছিলেন। পার্ল পদমসী ও আলিক পদমসী একই থিয়েটার দলে যুক্ত ছিলেন এবং তারা মুম্বইয়ে "ইংরেজি থিয়েটার"কে জনপ্রিয় করতে অবদান রেখেছিলেন।[৪][৫] তার দ্বিতীয় বিয়ের পর তার দশ বছরের মেয়ে রোহিণী চৌধুরী মারা যায়।

তার দ্বিতীয় স্বামীর ঔরসে তার এক মেয়ের জন্ম হয়। তার দ্বিতীয়পক্ষের মেয়ে রায়েল পদমসীর মুম্বইয়ে নিজের থিয়েটার কোম্পানি আছে।[৬][৭] সন্তান জন্মের কিছু দিন পর আলিক পদমসীর সাথে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে তার।

মৃত্যুসম্পাদনা

পার্ল পদমসী ২০০০ সালের ২৪ এপ্রিল ৬৯ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি তার বাবার ধর্মের অনুসারী ছিলেন। বিবাহের পরও তিনি তার ধর্ম ত্যাগ করেন নি। মৃত্যুর পর তাকে মুম্বইয়ের বান্দ্রার এক খ্রিষ্টান গোরস্তানে সমাহিত করা হয়।[৮] তার স্মৃতির স্মরণে 'এইস প্রোডাকশনস' প্রতি বছর 'পার্ল পদমসী ট্রফি' প্রদান করে।[৯]

অভিনীত চলচ্চিত্রসম্পাদনা

তিনি ১৩ টি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সাথে যুক্ত ছিলেন।[১০] অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি হাঙ্গামা বোম্বে ইশটাইল চলচ্চিত্রে প্রযোজনার সাথে যুক্ত ছিলেন।[১১] তার অভিনীত চলচ্চিত্রগুলো হল:

  • স্মাদার্দ ভয়েজেস (১৯৭৭)
  • খাট্টা মিঠা (১৯৭৮)
  • হাঙ্গামা বোম্বে ইশটাইল (১৯৭৮)
  • জুনুন (১৯৭৯)
  • বাতোঁ বাতোঁ মেঁ (১৯৭৯)
  • স্টেইং অন (১৯৮০)
  • পার্টি (১৯৮৪)
  • ওয়েস্ট ইজ ওয়েস্ট (১৯৮৭)
  • দ্য পারফেক্ট মার্ডার (১৯৮৮)
  • রামায়ণ: দ্য লিজেন্ড অব প্রিন্স রাম (১৯৯২)
  • দ্য পিকক স্প্রিং (১৯৯৬)
  • কামসূত্র: আ টেল অব লাভ (১৯৯৬)
  • সাচ আ লং জার্নি (১৯৯৮)

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Total recall: Ten years after her death, the remarkable Pearl Padamsee comes alive on stage again"Time Out, Mumbai 
  2. "Pearl Padamsee: Filmography"New York Times। ৩ নভেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৯ 
  3. Tharoor, Shashi (১৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৩)। "Bombay in the '60s:a morality play"New York Times 
  4. http://m.outlookindia.com/story.aspx?sid=4&aid=209328[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. http://jwa.org/encyclopedia/article/baghdadi-jewish-women-in-india
  6. "Pearls of wisdom by Raell Padamsee"DNA। ২০ এপ্রিল ২০১০। 
  7. "Pathbreakers: Rael Padamsee"Hindustan Times। ৮ মার্চ ২০০৬। ১৯ আগস্ট ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৯ 
  8. "The Alyque Padamsee brand of life - The Times of India"The Times Of India 
  9. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৩ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৯ 
  10. https://m.imdb.com/name/nm0655590/filmotype/actress?ref_=m_nmfm_1
  11. https://m.imdb.com/title/tt2459230/fullcredits/producer?ref_=m_ttfc_4