পাথারিয়া পাহাড়

পাথারিয়া পাহাড় মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় অবস্থিত, যার পূর্ব নাম "আদম আইল"। এই পাহাড়ের উপর থেকে পতিত পানিতেই সৃষ্টি হয়েছে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত

অবস্থানসম্পাদনা

এই পাহাড়টি বাংলাদেশের উত্তর-পূর্ব কোণে অবস্থিত সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার ৮ নম্বর দক্ষিণভাগ ইউনিয়নের অধীন গৌরনগর মৌজার অন্তর্গত। এই পাহাড়, সিলেট সদর থেকে ৭২ কিলোমিটার, মৌলভীবাজার জেলা থেকে ৭০ কিলোমিটার, কুলাউড়া রেলওয়ে জংশন থেকে ৩২ কিলোমিটার এবং কাঁঠালতলী থেকে ৮ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত।

নামকরণসম্পাদনা

প্রায় এক হাজার বছর আগে এই অঞ্চলটি গভীর অরণ্য দ্বারা পূর্ণ ছিলো এবঙ এখানে "পাথরি" নামক নাগা জনগোষ্ঠীর একটি উপশাখার অধিবাসীরা বসবাস করত; কালক্রমে বসবাসকারী জনগোষ্ঠীর নামের সাথে মিল থেকে এই অরণ্য অঞ্চলের নাম 'পাথারিয়া' হয়।[১]

বর্ণনাসম্পাদনা

এই পাহাড়টি ২৪ কিলোমিটার অঞ্চল জুড়ে বিস্তৃত। এটি বাংলাদেশের সাথে ভারতের পূর্ব দিকের সীমান্তবর্তী খাসিয়া-জয়ন্তীয়া উচ্চভূমির একটি বর্ধিত অংশ যার অপর অংশ ভারতের আসামে বিস্তৃত।[২]

উদ্ভিদ বৈচিত্রসম্পাদনা

এখানে পূর্বে প্রচুর প্রাকৃতিক কমলা লেবুর গাছ থাকলেও বর্তমানে তার সঙখ্যা হ্রাস পেয়েছে। এই বনাঞ্চলটি আগর-আতর কাঠ গাছের জন্য বিখ্যাত। বর্তমানে এখানে যেসব প্রাকৃতিক উদ্ধিদ দেখা যায় তার মধ্যে রয়েছেঃ নাগকেশর, পালান,[৩] বাঁশ, বেত, কালাকস্তুরী বা মুশকদানা ও বনঢ্যাড়শ।[৪]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "barlekha.hpage.co.in"। ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ডিসেম্বর ২০১২ 
  2. পাথারিয়া পাহাড়, মৌলভীবাজার। দৈনিক কালের কন্ঠ; তারিখঃ ১৫ মার্চ ২০১০; সংগ্রহঃ ১৭ ডিসেম্বর, ২০১২
  3. http://www.kishorgonj.com/?p=11409
  4. http://www.prothomalo.com/print/news/187292[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগসম্পাদনা