পাকিস্তান নৌবাহিনী

পাকিস্তান নৌবাহিনী (উর্দু: پاک بحریہ‎‎; Pɑk Bahri'a) (রিপোর্টিং নাম: পিএন) পাকিস্তান সশস্ত্র বাহিনীর নৌ যুদ্ধ শাখা, পাকিস্তানের আরব সাগর বরাবর ১,০৪৬ কিলোমিটার (৬৫০ মা) তটরেখা, এবং গুরুত্বপূর্ণ বেসামরিক বন্দর এবং সামরিক ঘাঁটি প্রতিরক্ষার দায়িত্ব পালন করে থাকে। ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান স্বাধীন হবার পর পাকিস্তান নৌবাহিনী আবির্ভূত হয়। প্রতিবছর ৮ সেপ্টেম্বর ১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের স্মরণে নৌবাহিনী দিবস পালিত হয়।[১]

পাকিস্তান নৌবাহিনী
Pakistan Navy emblem.svg
পাকিস্তান নৌবাহিনীর ক্রেস্ট
সক্রিয়১৪ আগস্ট, ১৯৪৭ – বর্তমান
দেশ পাকিস্তান
শাখানৌবাহিনী
অংশীদারপ্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়
পাকিস্তান সশস্ত্র বাহিনী
নৌ সদর দপ্তর (এনএইচকিউ)এনএইচকিউ, ইসলামাবাদ
ডাকনামپاک بحریہ (Pak Bahr'ya) বা পিএন
নীতিবাক্যএকটি নীরব বাহিনী হিসেবে গণ্য করা (A Silent Force to Reckon With)
রঙনেভি নীল ও সাদা         
বার্ষিকীনৌ দিন ৮ সেপ্টেম্বর
যুদ্ধসমূহ
সজ্জাMilitary and Civil decorations of Pakistan.
যুদ্ধের সম্মাননানিশান-ই-হায়দার
কমান্ডার
Chief of Naval StaffAdmiral Muhammad Zakaullah
Vice Chief of Naval StaffVice Admiral Muhamamd Shafiq
উল্লেখযোগ্য
কমান্ডার
Admiral Mohammad Shariff
Admiral Iftikhar Ahmed Sirohey
Vice-Admiral Syed Mohammad Ahsan
প্রতীকসমূহ
নেভির আদর্শ পতাকাNaval Standard of Pakistan.svg
পাকিস্তানের নেভাল জ্যাকNaval Jack of Pakistan.svg
Naval Ensign of kistanNaval Ensign of Pakistan.svg
Aircraft flown
বৈদ্যুতিক যুদ্ধHawker 850
হেলিকপ্টারWestland Lynx, Aérospatiale SA-319B Alouette III, Harbin Z-9
প্রহরী বিমানLockheed P-3C Orion, Fokker F27-2000, Breguet Atlantique I
পরিবহন বিমানWestland Sea King

পাকিস্তান নৌবাহিনীর বর্তমান এবং প্রধান উদ্দেশ্য হলো দেশে এবং বিদেশে পাকিস্তানের অর্থনৈতিক এবং সামরিক স্বার্থ রক্ষা করা এবং সামরিক অনুশীলন ও কূটনীতির মাধ্যমে পাকিস্তান সরকারের প্রতিরক্ষা নীতি বাস্তবায়ন করা। [২][৩] ২১ শতকে, পাকিস্তান নৌবাহিনী সীমিত আকারে বিদেশী অপারেশনের উপর গুরুত্ত্ব দিয়েছে এবং পাকিস্তান এন্টার্কটিক প্রোগ্রাম প্রতিষ্ঠায় একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।[৪][৫]পাকিস্তান কোস্ট গার্ড, পাকিস্তান মেরিন এবং নৌবাহিনীর আধা-সামরিক যুদ্ধ বিভাগ পাকিস্তান নৌবাহিনীকে সহযোগিতা করে থাকে।

ইতিহাসসম্পাদনা

আজ পাকিস্তানের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন। পাকিস্তানের অঙ্গরাজ্যের অস্তিত্ব বিদ্যমান এবং একটি নতুন নৌবাহিনী - রয়েল পাকিস্তান নৌবাহিনীর - জন্ম হয়েছে। আমাকে এর আদেশ কর্তা হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় আমি গর্বিত। আমার ও আপনার কর্তব্য হলো আগামী কয়েক মাসের মধ্যে আমাদের নৌবাহিনীকে একটি সুখী এবং কার্যকারী বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা

— মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ, পাকিস্তান রাষ্ট্রের স্থপতি, ১৯৪৮ সালের মার্চ মাসে পাকিস্তান নেভাল একাডেমি, করাচীতে।, [৬]

১৯৪৭ সালের ১৪ আগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে পাকিস্তান নৌবাহিনী আত্মপ্রকাশ করে।[৬] দেশ বিভাগের সময় সশস্ত্র বাহিনী পুনর্গঠন কমিটি (AFRC) রাজকীয় ভারতীয় নৌবাহিনীকে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিভক্ত করে দেয়।

সূচনাসম্পাদনা

 
১৯৫১ সালে ফ্রিগ্রেট শমসের
 
পিএনএস বদর(ডিস্ট্রয়ার), ১৯৫৭ সালে যুক্তরাজ্য ভ্রমণকালে

১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধসম্পাদনা

 
১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের সময় সাবমেরিন পিএনএস গাজী। ১৯৭১ সালের যুদ্ধে সাবমেরিনটি ১০০ জন ক্রু সহ রহস্যজনক ভাবে ডুবে যায়।

১৯৭১ সালের বাংলাদেশ-পাকিস্তান যুদ্ধসম্পাদনা

১৯৯৯ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধসম্পাদনা

 
পাকিস্তান নৌবাহিনীর একটি বিমান P3C Orion

প্রাক্তন নৌবাহিনী প্রধানদের তালিকাসম্পাদনা

 
FM-90 on board PNS Zulfiqar
 
Two 4-cell C-802 anti-ship missile launchers on board PNS Zulfiqar

পাকিস্তান নৌবাহিনী প্রধান (চার-তারকা অ্যাডমিরাল) পাকিস্তানের "জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ" এবং "ন্যাশনাল কমান্ড অথরিটির" সবচেয়ে সিনিয়র এবং ঊর্ধ্বতন সদস্য। নৌবাহিনী প্রধান দেশটির সমুদ্র প্রতিরক্ষার কাজে দায়বদ্ধ থাকেন।

  1. রেয়ার অ্যাডমিরাল জেমস উইলফ্রেড জেফফ্রড (১৫ আগস্ট ১৯৪৭ – ৩০ জানুয়ারি ১৯৫৩)[৭]
  2. ভাইস অ্যাডমিরাল হাজী মোহাম্মদ সিদ্দিক চৌধুরী (৩১ জানুয়ারি ১৯৫৩ – ২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৯)[৭]
  3. ভাইস অ্যাডমিরাল আফজাল রহমান খান (১ মার্চ ১৯৫৯ – ২০ অক্টোবর ১৯৬৬)[৭]
  4. অ্যাডমিরাল সায়েদ মুহাম্মদ আহসান (২০ অক্টোবর ১৯৬৬ – ৩১ আগস্ট ১৯৬৯)[৭]
  5. ভাইস অ্যাডমিরাল মুজাফফর আহমেদ (১ সেপ্টেম্বর ১৯৬৯ – ২২ ডিসেম্বর ১৯৭১)[৭]
  6. ভাইস অ্যাডমিরাল হাসান হাফিজ আহমেদ(৩ মার্চ ১৯৭২ – ৯ মার্চ ১৯৭৫)[৭]
  7. অ্যাডমিরাল মুহাম্মদ শরীফ (২৩ মার্চ ১৯৭৫ – ২১ মার্চ ১৯৭৯)[৭]
  8. অ্যাডমিরাল কেরামত মুহাম্মদ নিয়াজি (২২ মার্চ ১৯৭৯ – ২৩ মার্চ ১৯৮৩)[৭]
  9. অ্যাডমিরাল তারিক কামাল খান (২৩ মার্চ ১৯৮৩ – ৯ এপ্রিল ১৯৮৬)[৭]
  10. অ্যাডমিরাল ইফতিখার আহমেদ শিরহি (৯ এপ্রিল ১৯৮৬ – ৯ নভেম্বর ১৯৮৮)[৭]
  11. অ্যাডমিরাল ইয়াস্তুর-উল-হক মালিক (১০ নভেম্বর ১৯৮৮ – ৮ নভেম্বর ১৯৯১)[৭]
  12. অ্যাডমিরাল সাইদ মুহাম্মদ খান (৯ নভেম্বর ১৯৯১ – ৯ নভেম্বর ১৯৯৪)[৭]
  13. অ্যাডমিরাল মনসুরুল হক (১০ নভেম্বর ১৯৯৪ – ১ মে ১৯৯৭)[৭]
  14. অ্যাডমিরাল ফাসিহ বোখারী (২ মে ১৯৯৭ – ২ অক্টোবর ১৯৯৯)[৭]
  15. অ্যাডমিরাল আব্দুল আজিজ মীর্জা (২ অক্টোবর ১৯৯৯ – ২ অক্টোবর ২০০২)[৭]
  16. অ্যাডমিরাল শহীদ করিমুল্লাহ (৩ অক্টোবর ২০০২ – ৬ অক্টোবর ২০০৫)
  17. অ্যাডমিরাল আফজল তাহির (৭ অক্টোবর ২০০৫ – ৭ অক্টোবর ২০০৮)
  18. অ্যাডমিরাল নোমান বশির (৭ অক্টোবর ২০০৮ – ৭ অক্টোবর ২০১১)
  19. অ্যাডমিরাল মুহাম্মদ আসিফ স্যান্ডিলা (৭ অক্টোবর ২০১১ – ৭ অক্টোবর ২০১৪)

কমিশন অফিসার র‍্যাঙ্কসম্পাদনা

পাকিস্তান নৌবাহিনীর কমিশন্ড অফিসার পদ সমূহ
পে গ্রেড O-10 O-9 O-8 O-7 O-6 O-5 O-4 O-3 O-2 O-1
Insignia                    
টাইটেল অ্যাডমিরাল ভাইস- অ্যাডমিরাল রেয়ার-অ্যাডমিরাল কমোডর ক্যাপ্টেন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট-কমান্ডার লেফটেন্যান্ট সাব-লেফটেন্যান্ট মিডশিপম্যান
ন্যাটো কোড OF-10 OF-9 OF-8 OF-7 OF-6 OF-5 OF-4 OF-3 OF-2 OF-1
Rank Hierarchy 4-স্টার অ্যাডমিরাল 3-স্টার অ্যাডমিরাল 2-স্টার অ্যাডমিরাল 1-স্টার অফিসার
Structure of the Enlisted rank of the Pakistan Navy
পে গ্রেড OR-9 OR-8 OR-7 OR-6 OR-5 OR-4 OR-3 OR-2 OR-1 OR-1
Insignia
টাইটেল Master Chief Petty Officer Fleet Chief Petty Officer Chief Petty Officer Petty Officer No equivalent Leading Rate No equivalent Able Seaman Tech-I Ordinary Rate Tech-II No equivalent
Abbreviation MCPO FCPO CPO PO NE LH NE ABT-I ODT-II NE
NATO Code OR-9 OR-8 OR-7 OR-6 OR-5 OR-4 OR-3 OR-2 OR-1 OR-1

নৌবহরসম্পাদনা

ডুবোজাহাজ সমূহসম্পাদনা

Class Picture Type Origin Boat Displacement Note
Conventional-powered submarines (8 in service + 8 on order)
অ্যাগস্টা-শ্রেণির সাবমেরিন   Attack Submarine France/Pakistan Agosta-90B class : PNS Khalid (S137)

PNS Saad (S138) PNS Hamza (S139), Agosta-70 class : PNS Hashmat (S135) PNS Hurmat (S136)

2,050 tonnes
1,760 tonnes
Being upgraded by STM, Turkey.[৮][৯] Agosta-70 submarines were originally intended to be sold to South Africa, but after the UN embargo on it, they were sold to Pakistan instead.[১০] ৪৫০ কিমি পাল্লার বাবর ক্রুজ মিসাইল বহন করে। ১৮০ কিমি পাল্লার এক্সসেট অ্যান্টি শিপ মিসাইল বহন করে।
Type 039B submarine - Attack Submarine China/Pakistan - - 8 submarines are on order from China under the Transfer of Technology agreement at a price of $5 billion
Midget submarine Shallow Water Attack Submarine(SWAS) Italy X-Craft

X-Craft

X-Craft

110 tons 3 active. These mini-submarines designed by Italian firm M/s COSMOS in 1986. First craft was brought to Pakistan in semi knock down condition in 1988.
Midget submarine Special Purpose Submarine Pakistan
[নির্ধারিত হয়নি]
[নির্ধারিত হয়নি]
[নির্ধারিত হয়নি]
[নির্ধারিত হয়নি]
[নির্ধারিত হয়নি]
[নির্ধারিত হয়নি]
unspecified 1 launched. In its 2015-2016 yearbook, Pakistan Ministry of Defence Production (MoDP) listed the development and construction of a Indigenous 01 Midget submarine.[১১]

[১২][১৩]

অন্যান্য নৌবহরসম্পাদনা

পাকিস্তান নৌবাহিনীর জাহাজ শ্রেণীর একটি তালিকা:[১৪][১৫][১৬]

জাহাজ উৎস পরিমান যোগদান নোট
ফ্রিগ্রেট
F-22P জুলফিকার শ্রেণী
  পাকিস্তান
  গণচীন
২০০৯ পিএনএস জুলফিকার
পিএনএস শমশের
পিএনএস সাইফ
পিএনএস আসলাত
F-260 পিএনএস আলমগীর   যুক্তরাষ্ট্র ২০১০ Acquired in August 2010.[১৭]
তারিক শ্রেণী
  যুক্তরাজ্য ১৯৯০ এর দশক পিএনএস বাবর
পিএনএস শাহ্‌ জাহান
পিএনএস তারিক
পিএনএস খাইবার
পিএনএস টিপু সুলতান (PNS Badr decommissioned.)
মাইন হান্টার
মুনসিফ শ্রেণী   ফ্রান্স
  পাকিস্তান
১৯৮৮–১৯৯৭ পিএনএস মুনসিফ
পিএনএস মুহাফিজ
পিএনএস মুজাহিদ
মিসাইল বোট
জালালাত II শ্রেণী   পাকিস্তান দেশে তৈরী
জুররাত শ্রেণী   পাকিস্তান ২০০৬ দেশে তৈরী
আজমত শ্রেণী   গণচীন ২০১৩ ২ টি জাহাজ পাকিস্তান নৌবাহিনী অর্ডার করেছে, rumoured to increase to 8 ships.
লারকানা শ্রেণী   পাকিস্তান পাকিস্তানের নিজস্ব দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরী প্রথম ক্রাফট
MRTP-33   তুরস্ক ২০০৭-২০০৮ Eventual requirement of 8 MRTPs
MRTP-15   তুরস্ক ২০০৬-২০০৮ No further procurement announced
Auxiliary Vessels
Fuqing Class   গণচীন ১৯৮৭ গভীর পানির দ্রুত তেল সম্পূরণ ট্যাঙ্কার
Poolster class   নেদারল্যান্ডস ১৯৯৪ Deep water fleet logistics and replenishment ship
তেল ট্যংকার ১৯৮৪-১৯৯২ শুধু মাত্র সবুজ জলে চালনার জন্য, নীল জলে চালনার উপযোগী নয়
Hydrologic Survey Vessel ১৯৮৩ Used for coastal survey, collecting marine data
Dredging Vessel ২০০৮
Utility Ships ২০১১
প্রশিক্ষণ জাহাজ
রাহ নাওয়ার্ড   যুক্তরাজ্য ২০১০ প্রিন্স উইলিয়ামস হিসেবে রয়্যাল নেভি থেকে কেনা
হোভারক্রাফট
গ্রিফফন শ্রেণী   যুক্তরাজ্য ১২ - SSGN এবং পাকিস্তান মেরিন ব্যবহার করে
উপকূলীয় পেট্রোল বোট
গালফ ক্র্যাফট   যুক্তরাষ্ট্র ১৭ ২০১০ 12 Gulf craft and, 5 patrol boats delivered by USA on 13 Feb 2010 at Karachi.ulf Craft Inc | AMEinfo.com]</ref>

আরোও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

উদ্ধৃতি
  1. "Pakistan Times"। ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ নভেম্বর ২০১৪  অজানা প্যারামিটার |1= উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য)
  2. Pakistan Navy (18 March 2008)। "Pakistan Navy: Roles and Function"Naval Inter-Service Public Relation (Naval ISPR)। Pakistan Navy Public and Military Affairs। সংগ্রহের তারিখ 2011  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  3. Khan, Pakistan Navy (retired), current research officer at Pakistan Naval War College, Commander Muhammad Azam (২০১১)। "Options for Pakistan Navy: § Pakistan Navy: A sentinel for energy and economic security"United States Naval Academy: Commander Muhammad Azam Khan, retired. Current, research officer at the Pakistan Naval War College: 7। 
  4. Mills, J.M. (2003). Exploring polar frontiers: a historical encyclopedia. 1 (A–M). Santa Barbara: ABC-CLIO.
  5. PN, Pakistan Navy। "Pakistan Navy: Hydrography"Naval Inter-Service Public Relation (Naval ISPR)। Pakistan Navy Department of National Research and Hydrography। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ 2011  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  6. GoPAK, Government of Pakistan। "History"Electronic Government of Pakistan। Pakistan Navy, Historical reference। ৫ ডিসেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১২ 
  7. Pervaiz Iqbal Cheema. The Armed Forces of Pakistan, New York: New York University Press. 2003. pp. 86~90
  8. Reporter, The Newspaper's Staff (২০১৬-০৬-২৩)। "Turkish firm to upgrade Pakistan submarines"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১০-২৯ 
  9. "SharpEye Radar for Pakistan Navy Submarine Agosta 90B Upgrade"। নভেম্বর ২২, ২০১৭। 
  10. Goldrick, James (১৯৯৭)। No Easy Answers: The Development of the Navies of India, Pakistan, Bangladesh, and Sri Lanka, 1945–1996 (ইংরেজি ভাষায়)। Lancer Publishers। আইএসবিএন 978-1-897829-02-8 
  11. H I Sutton। "Mystery Submarine In Service With Pakistan's Navy SEALs"। Forbes.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-১০ 
  12. "Pakistan's New Midget Submarine: Emerging Challenge to India in the Arabian Sea"thediplomat.com 
  13. Bilal Khan। "Pakistan proceeds with new miniature submarine program"। Quwa.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-১০ 
  14. "Official Website – Frigates"। ১৬ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১৪ 
  15. "Official Website – Missile Boats"। ২৭ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১৪ 
  16. "Globalsecurity.org"। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১৪ 
  17. "PNS Alamgir, OHP Class frigate to reach Pakistan"। ৪ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১৪ 
ইন্টারনেট
  • "Orbat"Naval and Maritime Security Agency Warship Names 1947–2005। ৬ এপ্রিল ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুন ২০০৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা